'Bimal Gurung সভা করলে ডুয়ার্সে আগুন জ্বলবে', হুঁশিয়ারি আদিবাসী বিকাশ পরিষদের

ফের অশান্তির আশঙ্কা ডুয়ার্সে।

Updated By: Dec 20, 2020, 12:07 AM IST
'Bimal Gurung সভা করলে ডুয়ার্সে আগুন জ্বলবে', হুঁশিয়ারি আদিবাসী বিকাশ পরিষদের

নিজস্ব প্রতিবেদন: শিলিগুড়িতে সভা করেছেন নির্বিঘ্নেই। কিন্তু ডুয়ার্সে অশান্তি হবে না তো? সভা করতে দেওয়া তো দূর, বিমল গুরুং-কে (Bimal Gurung) ডুয়ার্সে ঢুকতে দেওয়া হবে না বলে হুঙ্কার দিলেন আদিবাসী বিকাশ পরিষদের নেতা রাজেশ লাকরা। তিনি বলেন, 'গুরুং যদি সভা করে, তাহলে আগুন জ্বলবে।'

পাহাড়ে অশান্তি পর আত্মগোপন করেছিলেন বছর তিনেক। ফের স্বমহিমায় বিমল গুরুং (Bimal Gurung)। BJP-কে ছেড়ে এবার বিধানসভা ভোটে TMC-কে সমর্থন করার কথা ঘোষণা করেছেন তিনি।  শুক্রবার ডুয়ার্সের ওদলাবাড়িতে সভা করেন গুরুং। সেই সভায় সোনম লামা নামে এক ব্যক্তিকে বিধানসভা ভোটে প্রার্থী করার পক্ষে জোর সওয়াল করেন তিনি। দাবি করেন, প্রার্থী হিসেবে সোনমের নাম TMC সাংসদ  অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় (Abhishek Banerjee) ও ভোট কৌশলী প্রশান্ত কিশোরের (Prashant Kishore) কাছে পাঠিয়ে দিয়েছেন! এই খবর ছড়িয়ে পড়তে আবার ক্ষোভ দেখা দিয়েছে আদিবাসী বিকাশ পরিষদের অন্দরে।  ডুয়ার্সের নাগরাকাটায় এদিন গুরুং-এর বিরোধিতায় পাল্টা সভা করেন বিকাশ পরিষদের নেতারা। সেই বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়, বিমল গুরুং-কে ডুয়ার্সে ঢুকতে দেওয়া হবে না। বিকাশ পরিষদের নেতারা যেভাবে গুরুং-এর বিরুদ্ধে সুর চড়িয়েছেন, তাতে ফের নতুন করে অশান্তি ছড়াতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, উত্তরবঙ্গে বিমল গুরুং প্রথম জনসভা করেন শিলিগুড়িতে। সেই জনসভায় তিনি ঘোষণা করেন,"দার্জিলিং সাংসদের পদ থেকে পদত্য়াগ করতে হবে রাজু বিস্তকে। পুরো উত্তরবঙ্গে তৃণমূলের হয়ে আমি জনসভা করব। সমস্ত আসন তৃণমূল পাবে। আর আমি তৃণমূল ও বিজেপির মাঝে লৌহমানবের মত দাঁড়িয়ে থাকব।" নাম না করে কটাক্ষ করেন বিনয় তামাং ও অনীত থাপাকেও।