তরুণীকে ধর্ষণ করে খুনের অভিযোগ, রণক্ষেত্র বসিরহাটের ন্যাজাট

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, সন্দেশখালি থানার ন্যাজাটের নেতাজি পল্লি এলাকার বাসিন্দা ওই তরুণীর সঙ্গে প্রণয়ের সম্পর্ক ছিল স্থানীয় চন্দন দাস নামে এক যুবকের সঙ্গে। সম্প্রতি চন্দনকে সে বিয়ে করবে না বলে জানিয়ে দিয়েছিল ওই তরুণী। 

Updated By: Dec 25, 2018, 04:40 PM IST
তরুণীকে ধর্ষণ করে খুনের অভিযোগ, রণক্ষেত্র বসিরহাটের ন্যাজাট

নিজস্ব প্রতিবেদন: বসিরহাটের ন্যাজাটে তরুণীর মৃত্যুতে গ্রেফতার প্রেমিক। মৃতের পরিবারের অভিযোগ, ধর্ষণ করে খুন করা হয়েছে তরুণীকে। মঙ্গলবার গভীর রাতে বাড়ির কাছ থেকেই উদ্ধার হয় তরুণীর দেহ। মঙ্গলবার সকালে এই নিয়ে এলাকায় উত্তেজনা ছড়ায়। দেহ নিয়ে পথ অবরোধ শুরু করেন স্থানীয়রা। পুলিস এসে অভিযুক্তকে দেহ উদ্ধারের চেষ্টা করলে গাড়ি ভাঙচুর করে স্থানীয়রা। পরে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানালে অবরোধ ওঠে। 

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, সন্দেশখালি থানার ন্যাজাটের নেতাজি পল্লি এলাকার বাসিন্দা ওই তরুণীর সঙ্গে প্রণয়ের সম্পর্ক ছিল স্থানীয় চন্দন দাস নামে এক যুবকের সঙ্গে। সম্প্রতি চন্দনকে সে বিয়ে করবে না বলে জানিয়ে দিয়েছিল ওই তরুণী। যদিও যুবক ছিল নাছোড়বান্দা। 

গরুমারায় ফের চোরাশিকারিদের হাতে মৃত্যু গন্ডারের, দেহ উদ্ধার করলেন বনকর্মীরা

সোমবার সন্ধ্যায় হঠাত্ই নিখোঁজ হয়ে যান ওই তরুণী। খোঁজাখুঁজির পর শুরু হয় থানা-পুলিস। এরই মধ্যে গভীর রাতে বাড়ির পাশেই একটি জায়গা থেকে উদ্ধার হয় তরুণীর দেহ। 

ঘটনাকে নিয়ে মঙ্গলবার সকাল থেকে চড়তে থাকে উত্তেজনার পারদ। তরুণীকে ধর্ষণ করে খুন করা হয়েছে বলে সোচ্চার হন স্থানীয় বাসিন্দা ও পরিজনরা। অভিযুক্ত চন্দনকে গ্রেফতারের দাবিতে শুরু হয় দেহ রেখে ন্যাজাট - বসিরহাট সড়ক অবরোধ। পুলিস এসে দেহ উদ্ধারের চেষ্টা করলে পুলিসের গাড়ি ভাঙচুর করে স্থানীয়রা। এর পর অভিযুক্তকে গত রাতেই গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানালে অবরোধ ওঠে। 

স্থানীয় কালীনগর কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী ছিল ওই তরুণী। পুলিস জানাচ্ছে, তরুণী অসুস্থ ছিলেন বলে জানা যাচ্ছে। কী ভাবে তার মৃত্যু হল তা ময়না তদন্তের পরই জানা যাবে। তরুণীকে অন্য জায়গায় খুন করে বাড়ির কাছে ফেলে যাওয়া হয়েছিল কি না তাও খতিয়ে দেখছে পুলিস।