লকডাউনের মধ্যে অ্যাম্বুল্যান্সে করে মদ পাচার, তল্লাশিতে উদ্ধার দামী দামী বিদেশি বোতল

কয়েকটি নম্বরে ফোন করলেই নির্দিষ্ট জায়গায় পৌঁছে যাচ্ছিল দামি বিদেশি মদ।

Updated By: Apr 10, 2020, 03:09 PM IST
লকডাউনের মধ্যে অ্যাম্বুল্যান্সে করে মদ পাচার, তল্লাশিতে উদ্ধার দামী দামী বিদেশি বোতল

নিজস্ব প্রতিবেদন : অ্যাম্বুল্যান্সের ভিতর তল্লাশি চালাতেই চক্ষু থ পুলিসের। অ্যাম্বুল্যান্সের ভিতর থেকে উদ্ধার হল বোতল বোতল বিদেশি মদ। ঘটনাটি ঘটেছে মালদার হবিবপুরে। অ্যাম্বুল্যান্সে করে এভাবে মদ পাচারের ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে গোটা এলাকায়।

অভিযোগ, লকডাউনের শুরু থেকেই পুলিস এবং আফগারি দফতরের কাছে বেআইনিভাবে মদ বিক্রির খবর আসছিল। অনেক ক্ষেত্রেই লুকিয়ে চুরিয়ে নির্ধারিত দামের চেয়ে অনেক বেশি দামে মদ বিক্রি করা হচ্ছিল। প্রায় দ্বিগুণ দামে বিক্রি করা হচ্ছিল মদ। কয়েকটি নম্বরে ফোন করলেই নির্দিষ্ট জায়গায় পৌঁছে যাচ্ছিল দামি বিদেশি মদ। এক্ষেত্রে মদ বিক্রেতারা বিভিন্ন এজেন্ট ও রাস্তার ধারে অবস্থিত ধাবাগুলিকে কাজে লাগাচ্ছিলেন। 

গোপন সূত্রে খবর পেয়ে মদ বিক্রির এই চক্রকে ধরতে সক্রিয় হয় পুলিস। ইংরেজবাজার থানার ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়ক সংলগ্ন দোকানগুলির উপর বিশেষ নজর রাখতে শুরু করে পুলিস। এরপর শুক্রবার সকালে একটি অ্যাম্বুল্যান্স আটক করে হবিবপুর  থানার পুলিস। সেই অ্যাম্বুল্যান্সের ভিতর থেকেই উদ্ধার হয় প্রচুর পরিমাণ বিদেশি মদ। 

আইহো নাকা চেকিংয়ের কাছে পুলিস অ্যাম্বুল্যান্সটিকে আটক করে। পুলিসের প্রাথমিকভাবে সন্দেহ, হবিবপুরের কোনও দোকান থেকে বেআইনিভাবে এই মদের বোতলগুলি নিয়ে আসা হয়েছিল। মালদায় নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল সেগুলি। মদ পাচারের ঘটনায় দুজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিস। 

আরও পড়ুন, মানবজাতির বিপদে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে লড়ছে রোশনারা-সুস্মিতারা, উদয়-অস্ত খেটে বানাচ্ছে PPE