close

News WrapGet Handpicked Stories from our editors directly to your mailbox

মত্ত বাবার তাণ্ডবে বিষ খেয়ে আত্মঘাতী উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার্থী, পরে আত্মঘাতী বাবাও

অমল দাস চাষাবাস করেন। তাঁর মেয়ে প্রভাতী দক্ষিণ  মহেন্দ্রপুর  উচ্চ মাধ্যমিক স্কুলের ছাত্রী। 

Updated: Mar 6, 2019, 01:46 PM IST
মত্ত বাবার তাণ্ডবে বিষ খেয়ে আত্মঘাতী উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার্থী, পরে আত্মঘাতী বাবাও

নিজস্ব প্রতিবেদন:  বাবা মদ্যপান করে বাড়িতে ঢুকে অশান্তি করে। প্রত্যেকদিনের ঘটনায় অপমানে বিষ খেয়ে আত্মঘাতী উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী। ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরগনার পাথরপ্রতিমার দেবিরচক এলাকায়।

 

অমল দাস চাষাবাস করেন। তাঁর মেয়ে প্রভাতী দক্ষিণ  মহেন্দ্রপুর  উচ্চ মাধ্যমিক স্কুলের ছাত্রী। এবছরের উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীও সে। মঙ্গলবার ঘরে বসে পড়াশোনা করছিল সে। অভিযোগ, সেসময় অমল মদ্যপান করে ঘরে ঢুকে অশান্তি শুরু করে। পড়াশোনার অসুবিধা হওয়ায় প্রতিবাদ করে প্রভাতী। অমল তার সঙ্গেও দুর্ব্যবহার করেন। তাকে গালি দেন বলেও অভিযোগ। এরপরই ঘর থেকে বেরিয়ে যায় প্রভাতী।

আরও পড়ুন: কবে হবে বড়মার অন্ত্যেষ্টি? ঠাকুরবাড়িতে চরম টানাপোড়েন

 পরে পরিবারের সদস্যরা তাকে খুঁজতে বের হন। ধান খেতের মধ্যেই প্রভাতী অচৈতন্য অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন তাঁরা। তার মুখ থেকে গ্যাঁজলা বেরোচ্ছিল। তাকে উদ্ধার করে গুদামথুরা প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হয়। অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে ডায়মন্ডহারবার জেলা হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। সেখানেই মৃত্যু হয় তার।  চিকিত্সকরা জানিয়েছে, বিষক্রিয়ার ফলেই মৃত্যু হয়েছে প্রভাতীর।  সব শুনে অমলও বাড়ি ফিরে বিষ খেয়ে আত্মহত্যা করেন।  ঘটনায় শোকস্তব্ধ এলাকা।