close

News WrapGet Handpicked Stories from our editors directly to your mailbox

বউ ফেরতের দাবিতে থানার দরজা আটকে ধরনায় বসলেন স্বামী!

দোয়েলের বাড়ির লোক মেয়েকে বাড়িতে ডেকে নিয়ে গিয়ে অন্যত্র বিয়ে দিয়ে দেয় বলে অভিযোগ।

Updated: Jul 12, 2019, 03:29 PM IST
বউ ফেরতের দাবিতে থানার দরজা আটকে ধরনায় বসলেন স্বামী!

নিজস্ব প্রতিবেদন : "আমার বউকে ফেরত চাই।" চোখে জল নিয়ে কাতর আর্জি স্বামীর। বউ ফেরতের দাবিতে মেদিনীপুর কোতোয়ালি থানার সামনে দরজা বন্ধ করে ধরনায় বসলেন স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির লোকজন। ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না কোনও পুলিশ কর্মীকে। থানা থেকে বেরতেও পারছেন না কেউ। হুলুস্থুলু পড়ে গিয়েছে শহরে।

মেদিনীপুর শহরের  ১ নম্বর ওয়ার্ড তোলাপাড়ার বাসিন্দা রাজা দাসের সঙ্গে চলতি মাসের ৫ তারিখ বিয়ে হয় পড়শি দোয়েল মণ্ডলের। দীর্ঘ ৮ বছরের সম্পর্ক। তারপরই সাতপাকে বাধা পড়েন যুগল। কিন্তু সপ্তাহ না ঘুরতেই দোয়েলের বাড়ির লোক মেয়েকে বাড়িতে ডেকে নিয়ে গিয়ে অন্যত্র বিয়ে দিয়ে দেয় বলে অভিযোগ। এরই প্রতিবাদে বউ ফেরতের দাবিতে প্ল্যাকার্ড হাতে থানার সামনে ধরনায় বসেছে রাজা দাস ও তাঁর পরিবার।

পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, ৫ জুলাই বাড়ি থেকে পালিয়ে রাজা দাসের বাড়িতে আসে প্রেমিকা দোয়েল মণ্ডল। এরপর মন্দিরেই বিয়ে সারে যুগল। অভিযোগ, তার পরদিনই বাবার অসুস্থতার কথা বলে দোয়েল বাড়ি ফিরিয়ে নিয়ে যায় তাঁর পরিবার। তারপর থেকে আর স্বামী রাজা দাসের বাড়িতে ফেরেননি দোয়েল।

অভিযোগ, স্ত্রী দোয়েলের সঙ্গে কোনও যোগাযোগও করতে দেওয়া হয়নি রাজাকে। শেষে ফেসবুক মারফত রাজা জানতে পারেন যে স্ত্রী দোয়েলকে তাঁর বাড়ির লোক অন্যত্র আবার বিয়ে দিয়েছে। এরপরই এই বিষয়ে পুলিস সুপারের কাছে লিখিত অভিযোগ জানান রাজা।

আরও পড়ুন, চারদিনের মধ্যে বিজেপির হাত থেকে পঞ্চায়েত কেড়ে নিয়ে 'জবাব' দিল তৃণমূল

কিন্তু তাতেও সুরাহা মেলেনি বলে অভিযোগ। শেষে আজ কোতোয়ালি থানার সামনে বউ ফেরতের দাবিতে ধরনায় বসেছে স্বামী রাজা দাস ও তাঁর পরিবার। এই ঘটনায় রীতিমতো চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে শহরে।