ইন্টার্ন শিক্ষক নিয়োগ এখনও সেই তিমিরেই, বিধানসভায় সংশয় প্রকাশ শিক্ষামন্ত্রীর

আজ সোমবার বিধানসভায় ইন্টার্ন শিক্ষক নিয়োগের কথা ফের উঠলে শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় সংশয় প্রকাশ করে জানিয়েছেন, বিষয়টি নিয়ে আলোচনা চলছে, তা খতিয়ে দেখা হবে। তবে শিক্ষামন্ত্রীর বক্তব্যে একথা স্পষ্ট যে,  ইন্টার্ন শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া এখনও বিশ বাঁও জলেই। 

Updated By: Jun 24, 2019, 02:02 PM IST
ইন্টার্ন শিক্ষক নিয়োগ এখনও সেই তিমিরেই, বিধানসভায় সংশয় প্রকাশ শিক্ষামন্ত্রীর

নিজস্ব প্রতিবেদন:  ইন্টার্ন শিক্ষক নিয়োগ পর্ব এখনও বিশ বাঁও জলেই। একথাই স্পষ্ট হয়েছে বিধানসভায়। গত ১৪ জানুয়ারি ইন্টার্ন শিক্ষক নিয়োগের ভাবনার কথা সামনে আনেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আজ সোমবার বিধানসভায় সে কথা ফের উঠলে শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় সংশয় প্রকাশ করে জানিয়েছেন, বিষয়টি নিয়ে আলোচনা চলছে, তা খতিয়ে দেখা হবে। তবে শিক্ষামন্ত্রীর বক্তব্যে একথা স্পষ্ট যে, ইন্টার্ন শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে এখনই কোনও নিশ্চয়তা নেই। এদিন এ প্রসঙ্গে শিক্ষামন্ত্রী আরও বলেন,  "আমরা  যত তাড়াতাড়ি সম্ভব শূন্যস্থান পূরণ করার চেষ্টা করব। যে সমস্ত ইন্টারভিউ ইতিমধ্যেই নেওয়া হয়েছে জুলাই-এর মধ্যে সেগুলোর কাজ শেষ করা হবে।"

আরও পড়ুন: ফের নৃশংস কলকাতা, রাতের অন্ধকারে মেরে ফেলা হল ৬ টি বিড়ালকে

উল্লেখ্য, বছর শুরুতেই নতুন পাশ করা স্নাতকদের ইন্টার্ন হিসেবে নিয়োগ করে পঠনপাঠনের সমস্যা সামাল দেওয়ার কথা ভেবেছিল রাজ্য সরকার। সেই মতোই নবান্ন সভাঘরে এক বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী জানান, যে সমস্ত স্কুলে শিক্ষক কম সেখানে কলেজ থেকে পাশ করার পরে পড়ুয়াদের দু বছর ইন্টার্ন হিসেবে কাজে লাগানোর বিষয়টি ভেবে দেখছেন তাঁরা। ইন্টার্নশিপের পর শংসাপত্র দেওয়া হবে ওই ইন্টার্নদের। পড়ানোয় দক্ষতা দেখালে শিক্ষক নিয়োগের ক্ষেত্রে অগ্রাধিকারও দেওয়া হবে তাঁদের।

এদিন আরও জানানো হয়েছিল,  প্রাথমিক স্কুলে যাঁরা ইন্টার্নশিপ করবেন, তাঁদের ন্যূনতম যোগ্যতা হতে হবে কলেজ পাশ, ভাতা দেওয়া হবে ২০০০ টাকা। পাশাপাশি মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক স্কুলের ইন্টার্নদের  থাকতে হবে অনার্স বা স্নাতকোত্তর ডিগ্রি। তাঁদের ভাতা হবে ২৫০০ টাকা।