close

News WrapGet Handpicked Stories from our editors directly to your mailbox

মালদায় ধৃত জেএমবি-র দুই 'মাথা'র সঙ্গে কাশ্মীর যোগ! সামনে এল চাঞ্চল্যকর তথ্য

পেনড্রাইভে কাশ্মীরের জঙ্গিদের নাম। নিরাপত্তা সংক্রান্ত তথ্য।

Arnabangshu Niyogi | Updated: Sep 10, 2019, 02:40 PM IST
মালদায় ধৃত জেএমবি-র দুই 'মাথা'র সঙ্গে কাশ্মীর যোগ! সামনে এল চাঞ্চল্যকর তথ্য

নিজস্ব প্রতিবেদন : ধৃত জেএমবি জঙ্গিদের সঙ্গে কাশ্মীর যোগ! ধৃত জঙ্গিদের বাজেয়াপ্ত পেনড্রাইভ ও ল্যাপটপ থেকে পাওয়া গেল চাঞ্চল্যকর তথ্য। প্রসঙ্গত, দিনকয়েক আগেই  মালদা থেকে আব্দুল বারি ও নাজিমুদ্দিন খান নামে দুই জেএমবি জঙ্গিকে গ্রেফতার করে এসটিএফ। উত্তর দিনাজপুর মডিউলের দুই মাথা ছিল ধৃত বারি ও নাজিমুদ্দিন।

সূত্রের খবর, বাজেয়াপ্ত পেনড্রাইভে রয়েছে কাশ্মীরে মৃত কয়েকজন জঙ্গির নাম। এমনকি, কাশ্মীরের নিরাপত্তা সংক্রান্ত তথ্যও রয়েছে বলে খবর। জানা যাচ্ছে, কাশ্মীরের কোথায় কত সেনা মোতায়েন রয়েছে, পেনড্রাইভে সেই তথ্যও রয়েছে। আর তাতেই গোয়েন্দাদের কপালে চিন্তার ভাঁজ পড়েছে। কাশ্মীরের পাক জঙ্গিদের সঙ্গে কি তাহলে জামাত-উল-মুজাহিদিন বাংলাদেশের জঙ্গিদের সক্রিয় যোগ রয়েছে? কাশ্মীরে বড়সড় কোনও নাশকতার ছক কষছিল এই জঙ্গি সংগঠন? তদন্তকারীদের নজরে এখন সেটাই।

ধৃতদের জেরা করে পুলিস আগেই জানতে পারে, ফকির দিনাজপুর নামে এই মডিউলটি নতুন তৈরি করা হয়েছিল। নতুন সদস্যদের প্রশিক্ষণ দিত ধৃত দুই জঙ্গি। জাতীয় নাগরিকপঞ্জিকে নিয়ে উত্তরবঙ্গে সংখ্যালঘুদের উস্কানি দেওয়ার লক্ষ্য ছিল জেএমবি-র। আর সেই লক্ষ্যেই সংগঠন বাড়ানোর কাজ করছিল তারা।

আরও পড়ুন, মধ্যমগ্রাম শুটআউটকাণ্ডে দিল্লির সুপারি কিলার! ধৃত নাবালক সহ ৫

প্রসঙ্গত, গত মাসে গয়া থেকে গ্রেফতার হয় জেমবি-র ভারত শাখার প্রধান ইজাজ। খাগড়াগড় বিস্ফোরণের মূলচক্রী ছিল ইজাজ। তাকে জেরা করে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতেই একে একে এসটিএফ-এর জালে ধরা পড়ে আবদুল বারি, নাজিমুদ্দিন খান ও আবু কাসেম। যাদের উপর দায়িত্ব ছিল উত্তরের বিভিন্ন জেলায় সংগঠনের হাল আরও মজবুত করা।