পাহাড়ে বিজেপির জামানত ‌জব্দ হবে, কলকাতায় বসে হুঁশিয়ারি দিলেন বিনয় তামাং

দার্জিলিং পাহাড় এখন তাঁর সাম্রাজ্য। শনিবার কলাকায় সাংবাদিক বৈঠক করে এটাই বোঝাতে চাইলেন জিটিএ-র চেয়ারম্যান বিনয় তামাং। একই সঙ্গে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিলেন গুরুং ও বিজেপিকে।

Updated By: Feb 17, 2018, 11:48 AM IST
পাহাড়ে বিজেপির জামানত ‌জব্দ হবে, কলকাতায় বসে হুঁশিয়ারি দিলেন বিনয় তামাং

নিজস্ব প্রতিবেদন: দার্জিলিং পাহাড় এখন তাঁর সাম্রাজ্য। শনিবার কলাকায় সাংবাদিক বৈঠক করে এটাই বোঝাতে চাইলেন জিটিএ-র চেয়ারম্যান বিনয় তামাং। একই সঙ্গে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিলেন গুরুং ও বিজেপিকে।

এদিন বিনয় বলেন, পাহাড়ে আর কোনও গ্রহণ‌যোগ্যতা নেই বিমল গুরুংয়ের। গুরুং জননেতা হলে পাহাড় ছেড়ে পালাতেন না। জনগণের সমর্থন মাথায় নিয়ে পাহাড়েই থাকতেন তিনি। 

আরও পড়ুন - ভবানী পাঠকের মন্দিরে আগুনে নাশকতার তত্ত্ব, ফের মন্দির তৈরি হবে, ঘোষণা রাজ্যের

বিজেপিকে বিমলের চ্যালেঞ্জ, ক্ষমতা থাকলে ২০১৯-এ পাহাড়ে জিতে দেখাক বিজেপি। পাহাড়ে বিজেপির জামানত জব্দ হবে। অর্থাৎ বিজেপির সঙ্গে জোটের ‌যে আর কোনও সম্ভাবনা নেই তা একপ্রকার স্পষ্ট করলেন তামাং।

ঘটনার সূত্রপাত শুক্রবার। শিলিগুড়িতে এক সাংবাদিক বৈঠক করে দার্জিলিংয়ের বিজেপি সাংসদ সুরেন্দ্রসিং আহলুওয়ালিয়া বলেন, আমাকে ওরা পাহাড়ে উঠতে দেবে না বলছে। আমি কোনও এক ব্যক্তির ভোটে নির্বাচিত হইনি। পাহাড়ের মানুষ আমাকে ভোট দিয়েছে। ফলে আমাকে রোখার অধিকার কারও নেই।

বিমল গুরুংকে হত্যার চত্রান্ত হচ্ছে বলেও অভি‌যোগ করেন আহলুওয়ালিয়া। বলেন, গুরুংকে এনকাউন্টারে মারার চেষ্টা হচ্ছে। গুরুং আমাদের শরিক, আমরা তাঁকে রক্ষা করার চেষ্টা করবই। সঙ্গে বিনয় তামাংকে আহলুওয়ালিয়ার খোঁচা, পাহাড়ে আন্দোলনের সময় বিনয়ের বিরুদ্ধেও একাধিক নাশকতায় ‌যুক্ত থাকার অভি‌যোগ রয়েছে। সরকারি সম্পত্তি ধ্বংস, গাড়িতে অগ্নিসং‌যোগ, এমনকী জিটিএর প্রতিলিপি পোড়ানোর অভি‌যোগ রয়েছে তাঁর বিরুদ্ধে। সেই বিমল সাধু হয়ে গেলেন কী করে?