Shatabdi পুরনো বন্ধু, গল্প হল, আমার সামনেই ফোন আসে Mukul-দার: Kunal

 "আমি ওনার বাড়ি এসেছিলাম। গল্প হল। কথা হল। এবার সিদ্ধান্ত শতাব্দী (Shatabdi Roy) নেবেন।"

Edited By: সুদেষ্ণা পাল | Updated By: Jan 15, 2021, 05:23 PM IST
Shatabdi পুরনো বন্ধু, গল্প হল, আমার সামনেই ফোন আসে Mukul-দার: Kunal

নিজস্ব প্রতিবেদন : শতাব্দী রায় (Shatabdi Roy) তাঁর 'পুরনো বন্ধু'। তিনি শতাব্দী রায়ের বাড়িতে এসেছিলেন 'বন্ধুর সঙ্গে গল্প' করতে। 'বেসুরো' বীরভূম সাংসদের বাড়ি থেকে বেরিয়ে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে এমনটাই দাবি করলেন তৃণমূলের মুখপাত্র কুণাল ঘোষ (Kunal Ghosh)। একইসঙ্গে জানালেন, তাঁর সামনেই শতাব্দী রায়ের কাছে বিজেপি নেতা মুকুল রায়ের (Mukul Roy) ফোন আসে। যদিও দুপক্ষের মধ্যে কী কথা হয়েছে, তা তিনি জানেন না বলেই সাফ জানান কুণাল ঘোষ।

বৃহস্পতিবার ফেসবুকে ফ্যানপেজে সরাসরি ক্ষোভ ব্যক্ত করেন শতাব্দী রায় (Shatabdi Roy)। অসন্তোষ  জানান দলের একাংশের প্রতি। এরপরই এদিন Zee ২৪ ঘণ্টাকে ফোনে শতাব্দী রায় জানান, আগামিকাল দিল্লি যাচ্ছেন তিনি। সেখানে গিয়ে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের (Amit Shah) সঙ্গেও দেখা করতে পারেন বলে জানান। এর ফলে উস্কে উঠেছে জল্পনা। তবে কি এবার বিজেপিতে (BJP) শতাব্দী? সেই প্রশ্নের উত্তরে অবশ্য ধোঁয়াশা জিইয়ে রাখেন বীরভূম সাংসদ। বলেন, "অমিত শাহের সঙ্গে কথা বলা বা না বলাটা বিরাট ব্যাপার নয়। আমি এমপি, উনি মিনিস্টার, দেখা করতেই পারি।"

এরপরই সাংসদ শতাব্দীর মানভঞ্জনে আসরে নামে তৃণমূল (TMC)। শতাব্দী রায়ের (Shatabdi Roy) ক্ষোভ প্রশমনে তাঁকে ফোন করেন সাংসদ সৌগত রায় (Sougata Roy)। জানতে চান ক্ষোভের কারণ। একইসঙ্গে দলের তরফে সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করা হচ্ছে বলেও বীরভূমের সাংসদকে সৌগত রায় জানান বলে জানা গিয়েছে। অন্যদিকে দেখা যায়, শতাব্দী রায়ের বাড়ি ছুটে গিয়েছেন তৃণমূলের মুখপাত্র কুণাল ঘোষও (Kunal Ghosh)।

আরও পড়ুন, 'কাল দিল্লি যাব, অমিত শাহের সঙ্গে দেখা হতেই পারে', বললেন Shatabdi

যদিও বীরভূম সাংসদের সঙ্গে দেখা করে বেরিয়ে কুণাল ঘোষ দাবি করেন, "শতাব্দী রায় আমার বহু পুরনো পরিচিত। আমার পুরনো বন্ধু। তাঁর সঙ্গে কিছক্ষণ গল্প করলাম, আর কী! এখন দুজন রাজনৈতিক ব্যক্তি কথা বললে, রাজনীতি তো থাকবেই! আমি ওনার বাড়ি এসেছিলাম। গল্প হল। কথা হল। এবার সিদ্ধান্ত শতাব্দী নেবেন।" একইসঙ্গে সাংবাদিকদের প্রশ্নে তিনি আরও বলেন, "এখনও পর্যন্ত শতাব্দী রায় তৃণমূল কংগ্রেসেই আছেন।" এরপরই কুণাল ঘোষ জানান, "মুকুলদা ফোন করেছিলেন শুনলাম। আমার সামনেই মুকুলদা ফোন করেছিলেন। আমি তখন বসেছিলাম। তবে কী কথা হয়েছে, জানি না।" যদিও মুকুল রায় (Mukul Roy) দাবি করেছেন, তিনি কোনও ফোন করেননি।   

আরও পড়ুন, মানভঞ্জনে Shatabdi-কে ফোন Sougata-র, বাড়িতে Kunal, পাল্টা খোঁচা Anubrata-র