বাড়িতে ঝামেলা হওয়ায় রাতে স্কুলে ঘুমোতে যান, সকালে সেখানেই মিলল প্রৌঢ়ের মাথা থেঁতলানো দেহ!

পুলিসের নিষ্ক্রিয়তার জন্য লক্ষ্মীকান্ত দেশোয়ালিকে খুন হতে হল বলে অভিযোগ তাঁদের।

Updated By: Sep 12, 2020, 04:19 PM IST
বাড়িতে ঝামেলা হওয়ায় রাতে স্কুলে ঘুমোতে যান, সকালে সেখানেই মিলল প্রৌঢ়ের মাথা থেঁতলানো দেহ!
নিজস্ব চিত্র

নিজস্ব প্রতিবেদন : প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বারান্দা থেকে এক ব্যক্তির দেহ উদ্ধারের ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়াল বাঁকুড়ার রাইপুরে।  আজ সকালে ঘটনাটি ঘটেছে বাঁকুড়ার রাইপুর থানার মনিপুর গ্রামে। প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বারান্দা থেকে নিহতের মাথা মাথা থেঁতলানো দেহ উদ্ধার করে পুলিস। পুলিস সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃতের নাম লক্ষ্মীকান্ত দেশোয়ালি। 

স্থানীয়রা জানান, গতকাল রাতে মদ্যপ অবস্থায় লক্ষ্মীকান্ত দেশোয়ালি বাড়িতে ফেরেন। এরপর পরিবারে অশান্তি শুরু হওয়ায় রাতে স্থানীয় প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এসে শুয়ে পড়েন তিনি। এলাকাবাসী মনে করছে, রাতে ফের মদের আসর বসেছিল ওই প্রাথমিক স্কুলে। সেই আসরেই অন্য মদ্যপদের সঙ্গে হয়তো গন্ডগোল বাধে লক্ষ্মীকান্তের। বা স্কুলে হয়তো কোনও দুষ্কৃতী হামলা চালায়। তাদের বাধা দিতে গিয়েছিল লক্ষ্মীকান্ত। যে কারণেই হোক ঝামেলায় জড়ায় লক্ষ্মীকান্ত দেশোয়ালি। তাতেই খুন হন লক্ষ্মীকান্ত। 

স্থানীয়দের দাবি, লকডাউনে দীর্ঘদিন ধরেই বন্ধ রয়েছে গ্রামের প্রাথমিক বিদ্যালয়। বিদ্যালয় চত্বরে প্রায়শই বসছে মদের আসর। বিষয়টি নিয়ে বার বার পুলিসকে জানাল হলেও সেভাবে কোনও ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। পুলিসের নিষ্ক্রিয়তার জন্য লক্ষ্মীকান্ত দেশোয়ালিকে খুন হতে হল বলে অভিযোগ তাঁদের। মৃতের পরিবারের লোকজন এই ঘটনার প্রকৃত তদন্ত দাবি করে দোষীদের শাস্তির দাবি জানিয়েছে।

আরও পড়ুন, সাতসকালে লরির দরজা খুলতেই মিলল নিথর দেহ! জোর চাঞ্চল্য খড়দায়