সম্পত্তি নিয়ে বিবাদের জের, নরেন্দ্রপুরে স্ত্রী খুনে অভিযুক্ত স্বামী

স্বপ্নার পরিবার সূত্রে খবর, স্থায়ী বাড়ির জন্য সম্প্রতি স্বপ্নার বাবা তাঁকে দু-কাঠা জমি লিখে দেন। অভিযোগ, সেই জমি নিজের নামে লিখিয়ে নেওয়ার জন্য চাপ দিচ্ছিলেন ড্যানি।

Updated By: Sep 21, 2019, 09:43 AM IST
সম্পত্তি নিয়ে বিবাদের জের, নরেন্দ্রপুরে স্ত্রী খুনে অভিযুক্ত স্বামী

নিজস্ব প্রতিবেদন: এক গৃহবধূর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধারকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়াল নরেন্দ্রপুরে। শুক্রবার ঘটনাটি ঘটেছে নরেন্দ্রপুরের কাদারহাট রামকৃষ্ণপল্লী এলাকায়। মৃতার নাম স্বপ্না বৈদ্য (৩০)। স্বপ্নার পরিবারের অভিযোগ সম্পত্তি নিয়ে বিবাদের জেরেই তাঁদের মেয়েকে খুন করা হয়েছে। অভিযোগের তীর গিয়েছে তাঁর স্বামী ড্যানি বৈদ্য ওরফে রাজের দিকেই। 

জানা গিয়েছে,  নরেন্দ্রপুরের কুসুম্বা এলাকার বাসিন্দা স্বপ্নার সঙ্গে বছর দশেক আগে বিয়ে হয় মগরাহাটের বাসিন্দা ড্যানির। সে পেশায় ডেকরেটার্স কর্মী, স্বপ্না স্থানীয় একটি হাসপাতালে নার্সের কাজ করতেন।। দম্পতির বছর আটেকের একটি কন্যা সন্তানও রয়েছে, সে হস্টেলে থেকে পড়াশোনা করছে। 

স্বপ্নার পরিবার সূত্রে খবর, স্থায়ী বাড়ির জন্য সম্প্রতি স্বপ্নার বাবা তাঁকে দু-কাঠা জমি লিখে দেন। অভিযোগ, সেই জমি নিজের নামে লিখিয়ে নেওয়ার জন্য চাপ দিচ্ছিলেন ড্যানি। স্বপ্না রাজি না হওয়াতেই তাঁকে শ্বাসরোধ করে খুন করে ঘরের মধ্যে ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছে এবং বিষয়টি আত্মহত্যা বলে চালানোর চেষ্টা করা হচ্ছে। 

আরও পড়ুন: মদ-গাঁজা খাওয়া নিয়ে সাংসারিক অশান্তি, জামাইবাবুর হাতে খুন শ্যালিকা

থানায় ড্যানির বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছে মৃতার পরিবার। অভিযোগের ভিত্তিতে তাঁকে গ্রেফতার করেছে নরেন্দ্রপুর থানার পুলিস। আজ তাঁকে বাড়ুইপুর আদালতে তোলা হবে। অন্যদিকে মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। খুন না আত্মহত্যা তার তদন্ত শুরু করেছে পুলিস।

Tags: