close

News WrapGet Handpicked Stories from our editors directly to your mailbox

ব্যারিকেড ভেঙেই কাঁকিনাড়ায় এগিয়ে চলল বাম-কংগ্রেসের শান্তি মিছিল, জগদ্দল থানায় স্মারকলিপি পেশ

ভাটপাড়ার পুরসভার সামনেও আরও একবার মিছিল আটকানো হয়। পুলিস কমিশনার বিমান বসু, সূর্যকান্ত মিশ্রদের সঙ্গে কথা বলেন।  

Updated: Jun 25, 2019, 05:41 PM IST
ব্যারিকেড ভেঙেই কাঁকিনাড়ায় এগিয়ে চলল বাম-কংগ্রেসের শান্তি মিছিল, জগদ্দল থানায় স্মারকলিপি পেশ

নিজস্ব প্রতিবেদন: ভাটপাড়ার শান্তির দাবিতে বাম-কংগ্রেসের মিছিল ঘিরে কাঁকিনাড়ায় উত্তেজনা। মিছিল আটকে দেয় পুলিস। ব্যারিকেড ভেঙে সামনে এগিয়ে চলে মিছিল। পুলিসের সঙ্গে কিছুটা ধস্তাধস্তি হয়। মিছিলে রয়েছে, বামফ্রন্ট চেয়ারম্যান বিমান বসু,  সিপিএমের রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র, সোমেন মিত্ররা। ভাটপাড়ার পুরসভার সামনেও আরও একবার মিছিল আটকানো হয়। পুলিস কমিশনার বিমান বসু, সূর্যকান্ত মিশ্রদের সঙ্গে কথা বলেন। যদিও পুলিসি বাধা পেরিয়েই মিছিল এগিয়ে চলে। এরপর জগদ্দল থানায় বাম-কংগ্রেস প্রতিনিধি দল একটি স্মারকলিপি জমা দেয়। আগামী ৭ দিনের মধ্যেই পরিস্থিতি ঠিক হয়ে যাবে, আশ্বাস দিলেন বারাকপুরের পুলিস কমিশনার মনোজ ভর্মার। 

 

প্রসঙ্গত, ভাটপাড়ায় চলতে থাকা রাজনৈতিক হিংসার প্রতিবাদে মঙ্গলবার একযোগে প্রতিবাদ মিছিলের ডাক দেয় বাম ও কংগ্রেস। এদিনমিছিলে বিমান বসু বলেন, “শান্তি মিছিলে রং মুছে লোক এসেছে। শান্তি মিছিলে সবাই আসতে পারে। তৃণমূলই রাজ্যে বিজেপিকে ডেকে এনেছে। এখন দানবীয় শক্তিরূপে দেখা দিয়েছে বিজেপি। সঙ্গত দিচ্ছে তৃণমূল। এসবের  মোকাবিলায় মিছিল হবে। মানুষ এরই প্রতিবাদ করছে। শান্তি মিছিল বার বার হবে।”

কাটমানি ইস্যুতে আরও কড়া রাজ্য, ইকনমিক অফেন্স উইংয়ে তৈরি নতুন পদ

সোমেন মিত্র বলেন, “সব শান্তিকামী মানুষ একসঙ্গে পা মিলিয়েছে। পথই পথ দেখাবে। ”প্রসঙ্গত, এবারের লোকসভা নির্বাচনে এই দুই দলেরই অবস্থান প্রায় তলানিতে। বরং মাথাচা়ডা দিয়ে উঠেছে বিজেপি। এবার একজোট হয়ে অস্বিত্ব রক্ষার লড়াই করছে বাম ও কংগ্রেস। যদিও দুই দলেরই বক্তব্য, এই মিছিলে কোনও রাজনৈতিক রং নেই। ভাটপাড়ায় শান্তি ফেরানোর ডাক নিয়েই রাজনীতিক উর্ধ্বে উঠে এই মিছিল।

প্রসঙ্গত, গত কয়েকদিনের টানা অশান্তির পর মঙ্গলবার সকাল থেকে ফের দোকানপাট খুলেছে এলাকায়। ভাটপাড়ার পরিস্থিতি ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হচ্ছে।