পেনশনের টাকা চাই, মাকে মেরে মাথা ফাটাল ছেলে-বৌমা!

অভিযোগ খতিয়ে দেখে উপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দিয়েছেন জেলা প্রোটেশন অফিসার।

Updated By: Jun 14, 2018, 08:41 PM IST
পেনশনের টাকা চাই, মাকে মেরে মাথা ফাটাল ছেলে-বৌমা!

নিজস্ব প্রতিবেদন : পেনশনের টাকা মেয়েকে দিয়ে দিচ্ছে মা। এই সন্দেহে এক বৃদ্ধার উপর নির্মম অত্যাচার চালাল তাঁর ছেলে ও বৌমা। ধাক্কা মেরে বৃদ্ধা শাশুড়িকে মাটিতে ফেলে দেয় বৌমা। আঘাতে মাথা ফেটে যায় সুধা রায় নামে ওই মহিলার। অত্যন্ত অমানবিক এই ঘটনাটি ঘটেছে জলপাইগুড়িতে।

জলপাইগুড়ির মাল মহকুমার ক্রান্তিহাট এলাকার বাসিন্দা সুধা রায় অবসরপ্রাপ্ত স্কুলশিক্ষিকা। বয়স ৮২ বছর। অভিযোগ, বৃদ্ধার পেনশন টাকা হাতানোর জন্য রোজই তাঁর উপর অকথ্য অত্যাচার চালায় ছেলে ও বৌমা। তাঁদের সন্দেহ, পেনশনের সব টাকা মেয়ে রঞ্জনা সরকারকে দিয়ে দেন সুধা রায়। এই নিয়ে নিত্য অশান্তি লেগেই ছিল।

আরও পড়ুন, 'কৃষ্ণ-রাধার প্রেম'! মামীকে বিয়ে করতে ভাগ্নে যা করল...

এভাবেই চলছিল দীর্ঘদিন ধরে। গত রবিবার সীমা ছাড়ায় অত্যাচারের মাত্রা। বৃদ্ধা শাশুড়িকে ধাক্কা মেরে মাটিতে ফেলে দেয় বৌমা নমিতা সাহা। আঘাতে মাথা ফেটে যায় সুধা রায়ের। মাকে বাঁচাতে এলে মেয়ে রঞ্জনারও গলা টিপে ধরা হয় বলে অভিযোগ।

আরও পড়ুন, প্রতিবাদের শাস্তি! স্ত্রীর যৌনাঙ্গে বাঁশ ঢুকিয়ে দিল স্বামী, চলল নারকীয় নির্যাতন

রক্তাক্ত অবস্থায় সুধা রায়কে উদ্ধার করেন স্থানীয় বাসিন্দারা। তাঁরাই হাসপাতালে নিয়ে যান। এদিন মাথায় সেলাই নিয়েই জেলা প্রশাসনের দ্বারস্থ হন বৃদ্ধা। অভিযোগ খতিয়ে দেখে উপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দিয়েছেন প্রোটেশন অফিসার সইফুল্লা আহমেদ। বর্তমানে মেয়ের হেফাজতে রয়েছেন বৃদ্ধা।