শনিবারের পর রবিবার আরও নামতে পারে পারদ, পড়তে পারে রেকর্ড ঠান্ডা

কলকাতা সহ রাজ্যে শৈত্যপ্রবাহ চলবে বলেও জানিয়েছে হাওয়া অফিস।

Reported By: তন্ময় প্রামাণিক | Edited By: সুদেষ্ণা পাল | Updated By: Dec 29, 2019, 12:55 PM IST
শনিবারের পর রবিবার আরও নামতে পারে পারদ, পড়তে পারে রেকর্ড ঠান্ডা

নিজস্ব প্রতিবেদন : মেঘ সরে আকাশ পরিষ্কার হতেই হু হু করে নামল পারদ। বছর শেষের দিনগুলিতে হাড়কাঁপানো ঠান্ডায় যেন জবুথবু হয়ে যাচ্ছে কলকাতাবাসী। শুধু কলকাতা নয়, বাকি রাজ্যের ছবিটাও একই। উত্তরবঙ্গ সহ দক্ষিণবঙ্গে জাঁকিয়ে পড়েছে শীত।

আলিপুর আবহাওয়া দফতরের নথি বলছে, শনিবারের পর রবিবারও কলকাতার তাপমাত্রা ১১-র ঘরেই ঘোরাফেরা করছে। শনিবার কলকাতায় তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছিল ১১.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। স্বাভাবিকের থেকে যা ৬ ডিগ্রি কম। আজ রবিবার সকালে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছে ১১.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ০.১ ডিগ্রির পার্থক্য মাত্র। পূর্বাভাস বলছে, আজ সর্বোচ্চ তাপামাত্রা ২১ ডিগ্রির কাছাকাছি থাকবে। মোটের উপর সারাদিনই আকাশ পরিষ্কার থাকবে। একইসঙ্গে আজ কলকাতা সহ রাজ্যে শৈত্যপ্রবাহ চলবে বলেও জানিয়েছে হাওয়া অফিস। ফলে রাতের দিকে তাপমাত্রা আরও কমতে পারে বলে মনে করছেন আবহাওয়াবিদরা।

জেলাগুলিতেও জাঁকিয়ে পড়েছে শীত। ইতিমধ্যেই কোথাও কোথাও পারদ ১০ ছুঁয়েছে। কোথাও কোথাও আবার তাপমাত্রা নেমে গিয়েছে ১০-এরও নীচে। অনেকেই মনে করছেন, এবার যেভাবে মারকাটারি ব্যাটিং শুরু করেছে শীত, তাতে ভাঙতে পারে ২০১৮-র সর্বনিম্ন তাপমাত্রার রেকর্ড। প্রসঙ্গত, ২০১৮ সালে মরশুমের সবচেয়ে শীতলতম দিন ছিল ২৯ ডিসেম্বর। সেদিন কলকাতায় তাপমাত্রা ছিল ১০.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

আরও পড়ুন, মায়ের চিকিত্সার জন্য দরকার অর্থ, ঝুঁকি নিয়েই কুঁয়োয় নেমে দেহ উদ্ধার মেঘনাদের

উল্লেখ্য, শুধু কলকাতা বা গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গে নয়, তীব্র শীত পড়েছে উত্তর ও উত্তর-পশ্চিম ভারতেও। ঠান্ডায় ১৯০১ সালের রেকর্ড ভেঙে দিয়ে দিল্লিতে শনিবার তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছে ২.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। গতকাল সফদরজঙে তাপমাত্রা নেমে যায় ২.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। পাশাপাশি পালাম, আয়ানগরে তাপমাত্রা নেমে যায় ৩.১ ও ১.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। আর সবাইকে চমকে দিয়ে লোধি রোডে তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছে ১.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস।