ব্যবহারকারীদের কোনও তথ্যই চিনা সরকারকে দেওয়া হয়নি, দাবি TikTok ইন্ডিয়ার প্রধানের

ভারতে নিষিদ্ধ ঘোষণার ঘণ্টা খানেকের মধ্যেই নিজেদের অবস্থান জানিয়ে ব্যাখ্যা দিলেন TikTok ইন্ডিয়ার প্রধান নিখিল গান্ধী।

Edited By: সুদীপ দে | Updated By: Jun 30, 2020, 11:10 AM IST
ব্যবহারকারীদের কোনও তথ্যই চিনা সরকারকে দেওয়া হয়নি, দাবি TikTok ইন্ডিয়ার প্রধানের
—প্রতীকী চিত্র।

নিজস্ব প্রতিবেদন: TikTok, UC Browser, Helo-সহ ৫৯টি চিনা মোবাইল অ্যাপ নিষিদ্ধ করেছে কেন্দ্র! কেন্দ্রীয় তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রকের থেকে জানানো হয়েছে, এই ৫৯টি অ্যাপ দেশের সার্বভৌমত্ব, অখণ্ডতা, দেশের সুরক্ষার জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর! সে জন্যই এই অ্যাপগুলিকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে। কিন্তু ভারতে নিষিদ্ধ ঘোষণার ঘণ্টা খানেকের মধ্যেই নিজেদের অবস্থান জানিয়ে ব্যাখ্যা দিলেন TikTok ইন্ডিয়ার প্রধান নিখিল গান্ধী।

নিখিল জানান, ভারতীয় আইন অনুযায়ী, ব্যবহারকারীদের সমস্ত তথ্যের গোপনীয়তা এবং সুরক্ষার বিষয়টি মেনে চলছে TikTok। তাঁর দাবি, সংস্থা ব্যবহারকারীদের কোনও তথ্য চিনের সরকার বা অন্য কোনও বিদেশি সরকারের সঙ্গে কখনওই দেয়নি। ভবিষ্যতে সংস্থার কাছে এমন কোনও অনুরোধ করা হলেও সংস্থা তা প্রত্যাখ্যান করবে। নিখিল জানান, TikTok তার ব্যবহারকারীর গোপনীয়তা এবং অখণ্ডতাকেই সর্বাধিক গুরুত্ব দিয়ে দেখে।

আরও পড়ুন: এবার 5G প্রযুক্তির ক্ষেত্রে চিনা সামগ্রী ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞার ভাবনা কেন্দ্রের!

সম্প্রতি TikTok-এর বিরুদ্ধে ব্যবহারকারীদের তথ্যচুরির গুরুতর অভিযোগ উঠেছে। বিষয়টি ধরা পড়েছে Apple-এর নতুন অপারেটিং সিস্টেম iOS 14-এর একটি বিশেষ ফিচারে। iOS 14-এর ওই ফাচারের সাহায্যে সহজেই ধরা পড়ে কোন অ্যাপ ইউজারের কোন তথ্য বা সার্চ হিস্টরি অ্যাকসেস করছে। জানা গিয়েছে, শুধু ভারতীয়দেরই নয়, দীর্ঘদিন ধরেই বিশ্ব জুড়ে iPhone ব্যবহারকারীদের ব্যক্তিগত তথ্য ও কার্যকলাপের উপর নজরদারি চালাত TikTok। বিষয়টি সামনে আসার কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই এ বার ইন্দো-চিন সীমান্তে উত্তেজনার আবহে ৫৯টি চিনা অ্যাপের বিরুদ্ধে বড়সড় পদক্ষেপ করল কেন্দ্র।