আজই জন্মদিন আলফ্রেড নোবেলের, যাঁর জন্যই আজকের নোবেল পুরস্কার!

Updated By: Oct 21, 2016, 11:58 AM IST
 আজই জন্মদিন আলফ্রেড নোবেলের, যাঁর জন্যই আজকের নোবেল পুরস্কার!

স্বরূপ দত্ত

আজ ২১ অক্টোবর। জন্মদিন আলফ্রেড নোবেলের। হ্যাঁ, আলফ্রেড নোবেল। যাঁর জন্যই এই পৃথিবীতে নোবেল পুরস্কার দেওয়া হয়। সব পুরস্কারই সেরা পুরস্কার। ছোট কিংবা বড় হয় না পুরস্কারের ক্ষেত্রে। এ কথা মেনে নিয়েও বলা যে, এই পৃথিবীতে নোবেলের থেকে সম্মানজনক পুরস্কার আর একটিও নেই। তাই তো প্রতিবছর মানুষ অপেক্ষা করে থাকেন, এ বছর কে পাচ্ছেন নোবেল পুরস্কার, সেটা জানার জন্য। আজ তাই জন্মদিনে তাঁর সম্পর্কে জেনে নিন কয়েকটা তথ্য। যেগুলো জানলে আপনার ভালো লাগবে। আর বাড়ির ছোটদেরও জানাবেন কিন্তু।

১) ১৮৩৩ সালের ২১ অক্টোবর সুইডেনের স্টকহোমে জন্মগ্রহণ করেন আলফ্রেড নোবেল। একাধারে তিনি ছিলেন বিজ্ঞানী, ইঞ্জিনায়ার, কেমিস্ট, ব্যবসায়ী এবং দার্শনিক। গোটা জীবনে পড়াশোনা এবং কাজের জন্য নানা দেশে ঘুরে বেরিয়েছেন তিনি।

২) আলফ্রেড নোবেলের বাবা ইমানুয়েল নোবেলও বড় মাপের ইঞ্জিনিয়ার ছিলেন। মোট আট ভাই বোনের চতূর্ত ছিলেন আলফ্রেড নোবেল। পরে তাঁরা চলে যান সেন্ট পিটার্সবার্গে। সেখানেই মেশিন এবং বিস্ফোরক পদার্থের ব্যবসা শুরু করেন আলফ্রেডের বাবা।

৩) বিস্ফোরক জিনিস নিয়ে পরীক্ষা করতে ছেলেবেলা থেকেই ভালোবাসতেন আলফ্রেড। ১৮৬৪ নাগাদ আলফ্রেডের যখন বয়স ২৯ বছর, তখন তাঁদের কারখানায় বিস্ফোরন ঘটে। সেই বিস্ফোরনে মারা যান পাঁচ-পাঁচজন। যার মধ্যে একজন ছিলেন আলফ্রেডের ভাই! না, দুঃখে তাও বিস্ফোরক নিয়ে পরীক্ষা থামাননি আলফ্রড।

৪) তাই তো বানিয়ে ফেললেন ডিনামাইট। প্রথমে অবশ্য তিনি এর নাম দিয়েছিলেন 'নোবেলস সেফটি পাউডার' কিন্তু পরে শক্তির গ্রিক শব্দ ডিনামাইটই করে দেন নিজের আবিষ্কার করা জিনিসের নাম। এরপর আরও ৩৫০ পেটেন্ট নিজের নামে করেন আলফ্রেড নোবেল! হ্যাঁ, সাড়ে তিনশো!

৫) যেহেতু মূলত বিস্ফোরক বিক্রি করে তিনি অনেক অনেক টাকা রোজগার করেছিলেন, তাই লোকে তাঁকে ডাকতো মৃত্যুর ব্যবসায়ী হিসেবে! ১৮৮৮ তে তাঁর ভাই মারা যান ফ্রান্সে থাকাকালীন। সংবাদপত্র ভুল করে তাঁর ভাইয়ের বদলে আলফ্রেডের মৃত্যুর খবর ছাপে! আর তাতে হেডলাইন করা হয়, মারা গেলেন মৃত্যুর ব্যবসায়ী! চোখ ফেটে জল আসে নোবেলের। ভাবেন জীবনের শেষটা অন্যরকম করতে হবে। তাই নিজের ২৫০ মিলিয়ন আমেরিকান ডলার রেখে যান নোবেল পুরস্কারের জন্য। তিনি সত্যি সত্যিই মারা যান ১৮৯৬ সালে। আর মাত্র পাঁচ বছর পর ১৯০১ সাল থেকেই শুরু হয় নোবেল পুরস্কার দেওয়া। যা আজও চলছে!