এই প্রথম দেশেই নিষিদ্ধ হয়ে গেল পোকেমন গো!

পোকেমন গো নিয়ে এখন উন্মাদনা চলছে বিশ্বজুড়ে। তবে এই উন্মাদনায় শামিল হতে পারবে না ইরানের গেমপ্রেমীরা। কারণ, দেশটায় আনুষ্ঠানিকভাবে নিষিদ্ধ করা হয়েছে এই পোকেমন গো গেম। রবিবার ইরানে পোকেমন গো অ্যাপ নিষিদ্ধের ঘোষণা করেছে দেশটির হাই কাউন্সিল অফ ভার্চুয়াল স্পেস। এর আগে কোনও বিশেষ বাহিনী বা দল এই গেমটি নিষিদ্ধ করে। তবে এবারই প্রথম কোনো দেশ গেমটি নিষিদ্ধের ঘোষণা করে দিলো।

Updated By: Aug 7, 2016, 06:22 PM IST
 এই প্রথম দেশেই নিষিদ্ধ হয়ে গেল পোকেমন গো!

ওয়েব ডেস্ক: পোকেমন গো নিয়ে এখন উন্মাদনা চলছে বিশ্বজুড়ে। তবে এই উন্মাদনায় শামিল হতে পারবে না ইরানের গেমপ্রেমীরা। কারণ, দেশটায় আনুষ্ঠানিকভাবে নিষিদ্ধ করা হয়েছে এই পোকেমন গো গেম। রবিবার ইরানে পোকেমন গো অ্যাপ নিষিদ্ধের ঘোষণা করেছে দেশটির হাই কাউন্সিল অফ ভার্চুয়াল স্পেস। এর আগে কোনও বিশেষ বাহিনী বা দল এই গেমটি নিষিদ্ধ করে। তবে এবারই প্রথম কোনো দেশ গেমটি নিষিদ্ধের ঘোষণা করে দিলো।

আরও পড়ুন কে বলে পোকেমন খারাপ? পোকেমন মানুষের থেকেও বড়

প্রসঙ্গত, পোকেমন গো এর বিশেষত্ব হল, এতে ভার্চুয়াল আর বাস্তব জগতের মধ্যে সমন্বয় আনা হয়েছে। কেবল ঘরে বসে খেলার মতো নয়, খেলোয়াড়কে বাইরে আনাই এই গেমের মূল লক্ষ্য। একটি স্মার্টফোনে গেমটি খেলার সময়ে পোকেমন গো খেলোয়াড় থেকে পোকেমন বা প্রতিদ্বন্দ্বী দল কত দূরে রয়েছে তার ক্রমাগত নোটিফিকেশন দিয়ে যেতে থাকে। খেলোয়াড়রা চাইলে অপশনে গিয়ে তাদের আশপাশের পরিবেশ স্ক্যান করে দেখতে পারেন, কোথাও পোকেমন রয়েছে কিনা। ভাগ্য সুপ্রসন্ন হলে হয়ত মোবাইলের পর্দায় পোকেমনের দেখা পেয়েও যেতে পারেন হঠাৎ। সপ্তাহ খানেক আগে পোকেমন গো নিষিদ্ধ করে ইজরায়েল সেনাবাহিনী। পোকেমন গো স্মার্টফোনের ক্যামেরা ও লোকেশন সেবা সক্রিয় করে তোলে। এতে সেনা ক্যাম্পের অবস্থান ও এর আশপাশের ফটোগ্রাফের মতো সংবেদনশীল তথ্য ফাঁস হয়ে যেতে পারে। আর সে জন্য পোকেমন গো নিষিদ্ধ করে ইজরায়েল সেনাবাহিনী। এর আগে ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডের কোচের দায়িত্ব নেওয়া হোসে মোরিনহো তাঁর ফুটবলারদের জন্য দিন কয়েকের জন্য গেমটি খেলা নিষিদ্ধ করেছিলেন।

আরও পড়ুন  বুর্জ খলিফাকে ছাপিয়ে আরও দ্বিগুণ উঁচু হচ্ছে জাপানের বাড়ি!