তারকা ক্যারিশ্মা নয়, ভোটের ময়দানে সংগঠনই শেষ কথা, বুঝিয়ে দিল `খোকাবাবুর` নির্বাচনী রেসাল্ট

কঠিন পরীক্ষায় বারবার সেলিব্রিটিদের দাঁড় করিয়ে বাজিমাত করতে চেয়েছেন তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী। কিন্তু সব সময় যে ক্যারিশমাই শেষ কথা নয়, তা পরিষ্কার হয়ে গেল ঘাটাল লোকসভার ভোটের ফলে। বরাবরই বামেদের ঘাঁটি বলে পরিচিত ঘাটাল। সেখানে কেল্লাফতে করতে আচমকাই টলিউডের হার্টথ্রব দেবকে বেছে নেন তৃণমূল নেত্রী। অনেকেই ভেবেছিলেন দল নয়, নিজস্ব ক্যারিশমাকেই ব্যবহার করে সংসদে পৌছে যাবেন দেব। ব্যাপক ব্যবধানে জিতলেন দেব। কিন্তু বুঝিয়ে দিয়ে গেলেন, সংগঠনই শেষ কথা।

Updated By: May 19, 2014, 10:30 AM IST

কঠিন পরীক্ষায় বারবার সেলিব্রিটিদের দাঁড় করিয়ে বাজিমাত করতে চেয়েছেন তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী। কিন্তু সব সময় যে ক্যারিশমাই শেষ কথা নয়, তা পরিষ্কার হয়ে গেল ঘাটাল লোকসভার ভোটের ফলে। বরাবরই বামেদের ঘাঁটি বলে পরিচিত ঘাটাল। সেখানে কেল্লাফতে করতে আচমকাই টলিউডের হার্টথ্রব দেবকে বেছে নেন তৃণমূল নেত্রী। অনেকেই ভেবেছিলেন দল নয়, নিজস্ব ক্যারিশমাকেই ব্যবহার করে সংসদে পৌছে যাবেন দেব। ব্যাপক ব্যবধানে জিতলেন দেব। কিন্তু বুঝিয়ে দিয়ে গেলেন, সংগঠনই শেষ কথা।

নাহলে সবং বিধানসভা কেন্দ্রে কি দেব তিন নম্বরে থাকেন? সবংয়ের বিধায়ক কংগ্রেস প্রার্থী চলে গিয়েছেন দুই নম্বরে। আর এক নম্বরে সিপিআই প্রার্থী সন্তোষ রাণা।

বাকি কেন্দ্রগুলি অবশ্য এক নম্বরেই থাকলেন তৃণমূল প্রার্থী দীপক অধিকারী বা দেব। পাঁশকুড়া পশ্চিম, ডেবরায় পঁচাশি হাজারের কাছাকাছি থাকলেও পিংলায় নব্বই হাজার আর দাশপুর, ঘাটালে তৃণমূল প্রার্থী পেয়েছেন এক লক্ষের ওপরে ভোট। আর এই পাঁচটি কেন্দ্রে কোথাও সত্তর হাজার ভোটের গণ্ডি পেরোতে পারেননি বাম প্রার্থী।

তবে এই পাঁচটি কেন্দ্রে ভোটের যা মার্জিন, তা এক ধাক্কায় অনেকটাই বেড়ে গিয়েছে কেশপুরে।

দেবের প্রাপ্ত ভোট এক লক্ষ উনপঞ্চাশ হাজার চারশো একটি। সিপিআই প্রার্থী সন্তোষ রাণা পেয়েছেন বত্রিশ হাজার পাঁচশো একচল্লিসটি ভোট। বিজেপি প্রার্থীর প্রাপ্ত ভোট পাঁচ হাজার পাঁচশো দুটি ভোট
দুহাজার পাঁচশো বারোটি ভোট পেয়েছে কংগ্রেস

ভোটের দিন কেশপুরে তৃণমূলের বিরুদ্ধে ব্যাপক রিগিংয়ের অভিযোগ করেছিল সব দলই। দেবের জ্যাঠামশাইয়ের গলাতেও শোনা গিয়েছিল সে কথা।

তবে কেশপুরে বিপুল ভোটে দেব জিতলেও খোকাবাবু কিন্তু হেরে গিয়েছেন নিজের বুথে। মহিষদার একশো তিয়াত্তর নম্বর বুথে দেব পেয়েছেন দুশো তিনটি ভোট। আর সিপিআই প্রার্থী চারশো বাহাত্তরটি।