শেষ পর্বের ভোটে নজরকাড়া কেন্দ্র দিনহাটা

ফরওয়ার্ড ব্লক ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দিয়ে প্রার্থী উদয়ন গুহ। কমল গুহর ছেলেকে হারাতে এককাট্টা তাঁর পুরনো সহকর্মীরা। নতুন প্রার্থীকে নিয়ে ঘাসফুল শিবিরেও নানা মতভেদ। শেষ পর্বের ভোটে নজরকাড়া কেন্দ্র দিনহাটা।

Updated By: May 1, 2016, 06:36 PM IST
শেষ পর্বের ভোটে নজরকাড়া কেন্দ্র দিনহাটা

ওয়েব ডেস্ক : ফরওয়ার্ড ব্লক ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দিয়ে প্রার্থী উদয়ন গুহ। কমল গুহর ছেলেকে হারাতে এককাট্টা তাঁর পুরনো সহকর্মীরা। নতুন প্রার্থীকে নিয়ে ঘাসফুল শিবিরেও নানা মতভেদ। শেষ পর্বের ভোটে নজরকাড়া কেন্দ্র দিনহাটা।

১৯৭৭ থেকে ২০০১ পর্যন্ত টানা ছ-বার দিনহাটার বিধায়ক নির্বাচিত হন প্রয়াত ফরওয়ার্ড ব্লক নেতা কমল গুহ।

দিনহাটা এক ও দুই নম্বর ব্লক এবং দিনহাটা পুরসভা নিয়ে তৈরি এই বিধানসভা কেন্দ্র। গত পঞ্চায়েত ভোটে দিনহাটার দুটি পঞ্চায়েত সমিতিই দখল করে তৃণমূল। উদয়ন গুহ ফরওয়ার্ড ব্লক ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দেওয়ার পর দিনহাটা পুরসভাও ফরওয়ার্ড ব্লকের হাত থেকে চলে গেছে ঘাসফুলের দখলে।

২০১১-র বিধানসভা নির্বাচনে নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী নির্দল প্রার্থী মহম্মদ ফজলে হককে তিরিশ হাজার ভোটে হারিয়ে দেন উদয়ন গুহ।

২০১৪-র লোকসভা নির্বাচনে দিনহাটা বিধানসভা কেন্দ্রে বামেদের পিছনে ফেলে আট হাজার ভোটে এগিয়েছিল তৃণমূল।

কমল গুহর ছেলে উদয়ন গুহ ফরওয়ার্ড ব্লক ছেড়ে এবার দিনহাটায় ঘাসফুলের প্রার্থী। তাঁর বিরুদ্ধে কংগ্রেসের সমর্থনে ফরওয়ার্ড ব্লক প্রার্থী অক্ষয় ঠাকুর। কংগ্রেস টিকিট না দেওয়ায় নির্দল হিসাবে লড়াই করছেন সিদ্ধার্থশঙ্কর রায় মন্ত্রিসভার সদস্য মহম্মদ ফজলে হক। প্রচারে ফরওয়ার্ড ব্লক-তৃণমূলের দুই প্রার্থীর মুখেই কমল গুহর নাম। সংখ্যালঘু ও  কংগ্রেস সমর্থকদের ভরসায় মাঠে নেমেছেন অশীতিপর ডাক্তার মহম্মদ ফজলে হক।

তৃণমূলের আমলে তৈরি হওয়া আদাবাড়ি ঘাট সেতু দিনহাটা ও সিতাই ব্লকের মধ্যে যাতায়াতের পথ একশো কিলোমিটার কমিয়ে দিয়েছে। শাসকদলের দাবি, স্বাধীনতার পর দিনহাটায় এত উন্নয়ন আগে হয়নি। ভোটারদের একাংশ এই উন্নয়নের ইস্যুতেই উদয়ন গুহর তৃণমূলে যোগ দেওয়াকে সমর্থন করছেন। অন্যরা আবার বলছেন, মানুষের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করেছেন কমল গুহর ছেলে। কোচবিহারে ছটি বিধানসভা কেন্দ্রে রয়েছেন একান্নটি সাবেক ছিটমহলের বাসিন্দারা। প্রায় দশ হাজার ভোটারের মধ্যে ছাপ্পান্ন শতাংশের ভোট দিনহাটা কেন্দ্রে। স্বাধীনতার পর এই প্রথম ভোট দেবেন তাঁরা।

এলাকায় কান পাতলে শোনা যাচ্ছে, উদয়ন গুহ তৃণমূলের টিকিট পাওয়ায় সাবেক ছিটমহলের বাসিন্দাদের নিয়ে তৈরি নাগরিক অধিকার রক্ষা কমিটির নেতারা সন্তুষ্ট নন। প্রচারে উদয়ন গুহ কমিটিকে এড়িয়ে গেছেন বলেও অভিযোগ। তৃণমূলের স্থানীয় নেতাদের অনেকেই আড়ালে-আবডালে এও বলছেন, খোদ জেলা সভাপতি রবীন্দ্রনাথ ঘোষও উদয়ন গুহকে জেতাতে গা লাগাচ্ছেন না। রাজনৈতিক মহলের
মতে নিজের খাসতালুকে কমল গুহর ছেলের লড়াইটা গতবারের মতো সহজ নয়। লোকসভা নির্বাচনে বিজেপির পঁচিশ হাজার ভোট এবার কোনদিকে যায় তার ওপরও নির্ভর করছে দিনহাটার প্রার্থীদের ভাগ্য।