হারের মুখে ভারত

Last Updated: Sunday, November 25, 2012 - 12:32

দ্বিতীয় ইনিংসে মাত্র ৭৯ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে হারের মুখে ভারত। মন্টি পানেসের-এর বোলিং জাদুতে বদলার সিরিজ সমতায় ফেরার কাছে চলে গেল। সেওয়াগ (৯), সচিন (৮), কোহলি (৭), যুবরাজ (০) এমনকী পুজারাও ব্যর্থ হলেন। শেষ আশা হয়ে লড়ছেন গম্ভীর। গোতির সঙ্গে লড়াই চালাচ্ছেন ধোনি। ওয়াংখেড়ে ভারত-ইংল্যান্ড দ্বিতীয় টেস্টের তৃতীয় দিন শুধুই কেভিন পিটারসনের। কেপির দাপুটে ১৮৬ রানের সৌজন্যে ব্রিটিশদের প্রথম ইনিংস শেষ হল ৪১৩ রানে। ওঝার বলে আউট হয়ে গিয়ে পিটারসন যখন ড্রেসিংরুমে ফিরে যাচ্ছেন ইংল্যান্ডের স্কোর তখন ৩৮৩। ধোনি বাহিনীর সমবেত ৩২৭ রানকে তখন বেশ কিছুটা পিছনে ফেলে এসেছে ব্রিটিশরা। অবশ্য কেপি ফিরে যাওয়ার পর বেশিক্ষণ স্থায়ী রইল না ইংল্যান্ডের ইনিংস। টেলএন্ডাররা আর মাত্র ৩০ রান যোগ করলেন স্কোরবোর্ডে। ইংল্যান্ডকে হোয়াইট ওয়াশ করে বদলার স্বপ্ন বোধহয় আর পূরণ হল না ধোনি বাহিনীর। মুম্বই টেস্টের তৃতীয় দিনে ব্রিটিশ অধিনায়ক কুক আর কেভিন পিটারসনের জোড়া সেঞ্চুরি টিম ইন্ডিয়ার '৪-০'-র স্বপ্নকে মোটামুটি আরব সাগরে বিসর্জন দিল। এরপর মোটামুটি মিরাক্যল কিছু না ঘটলে এই টেস্ট জেতা ভারতের পক্ষে অসম্ভব।
বহু বিতর্কের পর নিজেকে প্রমাণ করার জন্য ওয়াংখেড়ের ২২ গজকেই বেছে নিলেন কেপি। সঙ্গে পেলেন দলের ক্যাপ্টেনকে। তাঁদের ব্যক্তিগত বিরোধিতার বিন্দুমাত্র প্রতিফলন মাঠে ঘটল না। অতএব? দুর্ভাগ্য ভারতীয় বোলারদের। ওয়াংখেড়ের স্পিনিং ট্র্যাকে মন্টি পানেসরকে সামলাতে ভারতের রথী-মহারথীরা যে ভাবে হিমশিম খাচ্ছিলেন তা দেখে মনে হয়েছিল ধোনির ৩ স্পিনারের ত্রিফলা আক্রমণের কাছে তাসের ঘরের মতই ভেঙে পড়বে ব্রিটিশ ব্যাটিং লাইনআপ। কিন্তু সে গুড়ে যথার্ত ভাবেই বস্তা বস্তা বালি। সব হিসাব উল্টে দিয়ে বহুদিন পর আবার স্বমহিমায় পিটারসন। সেরে ফেললেন কেরিয়ারের ২২ তম শতরান। কিন্তু যখন মনে হচ্ছিল কেপির দ্বিশতরানটা শুধু মাত্র সময়ের অপেক্ষায় মুহূর্ত গুনছে ঠিক তখনই ওঝার বলে ধোনির অসাধারণ ক্যাচে আউট হয়ে গেলেন তিনি। তবে ততক্ষণে ইংল্যান্ডের স্কোর যথেষ্ট স্থিতিশীল। ভারতীয় বোলারদের মধ্যে সফলতম প্রজ্ঞান ওঝা। সংগ্রহে ৫টি উইকেট। তার মধ্যে কুক বাহিনীর 'বড় মাছটি'-ও তাঁরই দখলে। 
ভারতের থেকে ৮৬ রানে এগিয়ে আছে ইংল্যান্ড। পনেসরদের লক্ষ্য হবে কালকের মধ্যে যত দ্রুত সম্ভব ধোনি এন্ড কোং-এর সবকটি উইকেট ফেলে দিয়ে খুব কম রানের তাঁদের বেঁধে ফেলা। যাতে সিরিজে সমতা ফেরাতে অন্তত একটা গোটা দিন তাঁরা হাতে পান। অন্যদিকে ভারতীয় চাইবেন প্রথম ইনিংসের সব ব্যর্থতা ঝেড়ে ফেলে নিজেদের ব্যাটিং গরিমার প্রতি সুবিচার করা। যাতে অন্তত সম্মানজনক ড্রয়ের পরিণতি জোটে ভারতীয় শিবিরের কপালে।
কালকেই তৃতীয় উইকেটে কুক আর কেপির দাপটের কাছে বেশ অসহায় দেখিয়েছে ধোনি বাহিনীর স্পিনার সেনাদের। আজ সকালে ওঝার বলে কুক ১২২ রানে অস্বিনের বলে প্যাভিলিয়নে ফিরে গেলেও পিটারসনের সৌজন্যে ব্রিটিশদের খেলার ছন্দ পতন বিশেষ ঘটেনি। কিন্তু  কামব্যাক ম্যাচে অভিজ্ঞ হরভজনের স্পিনকে বড় বেশি নখদন্তহীন লেগেছে।



First Published: Sunday, November 25, 2012 - 16:12


comments powered by Disqus
Live Streaming of Lalbaugcha Raja