মেসি এখন ইরানে `রাক্ষস` আর লটারি কন্যা লিমা `রাক্ষসী`

Last Updated: Tuesday, December 10, 2013 - 10:36

লিওনেল মেসি নামটা এখন দু চোখের বিষ ইরানে। বিশ্বকাপের গ্রুপ বিন্যাসের লটারিতে যবে থেকে আর্জেন্টিনার গ্রুপে ইরানের নাম ওঠে, তখন থেকেই মেসিকে সহ্য করতে পারছেন না ইরানের অধিকাংশ মানুষ। মেসিকে নিয়ে কত দিন ধরে ইরানে যা চলছে তাতে অনায়াসে আর্জেন্টিনার এই ফুটবলার দৈত্য বনে গিয়েছেন।

ইরানের অনেক ফুটবলপ্রেমীদের ফেসবুক পেজে গিয়ে দেখা গেল মেসি বিরোধী প্রচার। এমনকী মেসির অফিসিয়াল ফেসবুক পেজেও বেশ কিছু আপত্তিকর মন্তব্য পোস্ট করেছেন ইরানের বেশ কয়েকজন ফুটবলপ্রেমীরা। মেসি বিরোধী বেশ কিছু ফেসবুক পেজও তৈরি হয়েছে। যাতে মেসির নামের মানে লেখা হচ্ছে টিনের পাত্র (Messi means "of copper" in Persian)।

এই প্রথমবার বিশ্বকাপের মত প্রতিযোগিতায় আর্জেন্টিনার মত দেশের বিরুদ্ধে খেলার সুযোগ পাবে ইরান। কিন্তু সেসব ভুলে আর্জেন্টিনার প্রধান অস্ত্র-র বিরুদ্ধে নেমে পড়েছেন ইরানের কিছু মানুষ। যদিও উল্টো ছবিও আছে। ইরানের বেশ কয়েকজন মানুষ মেসির কাছে ক্ষমা চেয়ে নিয়েছেন।

মেসির পাশাপাশি ইরানের তোপের মুখে বিশ্বকাপের ড্রয়ের মঞ্চে সঞ্চালকের ভূমিকায় থাকা ব্রাজিলিয়ান সুন্দরী ফের্নান্দা লিমা। লিমা যে পোশাক পরে অনুষ্ঠানে এসেছিলেন তা ইরানের সংস্কৃতি বিরোধী বলে জোর সমালোচনা শুরু হয়েছে। ফেসবুকে লিমার বিরুদ্ধে আপত্তিকর শব্দও ব্যবহার করা হয়েছে। কিন্তু ৩৬ বছরের অভিনেত্রী লিমাকে অপছন্দের কারণের একটা যুক্তির কথা সোনা যাচ্ছে। লিমা নাকি ইরানের আনলাকি ম্যাসকট। তা না হলে নাকি ইরান কখনই আর্জেন্টিনার মুখে পড়ত না।

সব মিলেয় বিশ্বকাপের ড্র-য়ের পর ইরানে মেসি এখন য়েন রাক্ষসে পরিণত হয়েঠেন, আর লিমা যেন রাক্ষসি।

প্রসঙ্গত, ইরান এবার বিশ্বকাপে গ্রুপ এফ আছে। ইরানের সঙ্গে আছে আর্জেন্টিনা, বসনিয়া, নাইজেরিয়া। ১৬ জুন ইরানের প্রথম ম্যাচ নাইজেরিয়ার বিরুদ্ধে। নেসিদের বিরুদ্ধে ইরানের খেলা ২১ জুন।



First Published: Tuesday, December 10, 2013 - 10:36


comments powered by Disqus