কলিঙ্গ যুদ্ধে বাগানের চ্যালেঞ্জ বাগিচা শহরকে, 'এল ক্লাসিকো' ঘিরে বাড়ছে উত্তাপ

আই লিগ, ফেডারেশন কাপ এবং এএফসি কাপ মিলিয়ে এর আগে ১৩ বার মুখোমুখি হয়েছে মোহনবাগান-বেঙ্গালুরু। ৫টি ম্যাচ ড্র হলেও ৫টি ম্যাচ জিতেছে মোহনবাগান। মাত্র ৩টি ম্যাচ জিতেছে বেঙ্গালুরু এফসি। কিন্তু সেই তিনটেই খুব গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ জিতেছিল বেঙ্গালুরু।

Sukhendu Sarkar | Updated: Apr 16, 2018, 04:31 PM IST
কলিঙ্গ যুদ্ধে বাগানের চ্যালেঞ্জ বাগিচা শহরকে, 'এল ক্লাসিকো' ঘিরে বাড়ছে উত্তাপ
সৌজন্যে- এআইএফএফ

সুখেন্দু সরকার

মঙ্গলবার ভুবনেশ্বরের কলিঙ্গ স্টেডিয়ামে সুপার কাপের দ্বিতীয় সেমিফাইনালে আমনে সামনে  মোহনবাগান - বেঙ্গালুরু এফসি। ইস্টবেঙ্গল- মোহনবাগান ডার্বি ম্যাচের পর মোহনবাগান- বেঙ্গালুরু দ্বৈরথকে ভারতীয় ফুটবলের 'এল ক্লাসিকো' বলছেন ফুটবল বিশেষজ্ঞদের একাংশ। দুই দলের ফুটবলার থেকে কোচেরা কিন্তু 'এল ক্লাসিকো' মানছেন না। সাম্প্রতিককালে ভারতীয় ফুটবলের সবচেয়ে আকর্ষণীয় লড়াই, ভারতীয় ফুটবলের অন্যতম সেরা ম্যাচ- এই প্রতিবন্ধগুলি একবাক্যে মেনে নিচ্ছেন সবাই ।

আরও পড়ুন- গোল্ড কোস্ট মাতালেন ডিজে বোল্ট

গতবছর ফেডারেশন কাপের ফাইনালে কটকের বারাবটি স্টেডিয়ামে এই বেঙ্গালুরু এফসি-র কাছে হেরেছিল মোহনবাগান। এবার অবশ্য আই লিগ ছেড়ে আইএসএলে নাম লিখিয়েছে বেঙ্গালুরু এফসি। কিন্তু সুপার কাপের সৌজন্যে বছর ঘুরে আবার মুখোমুখি দুই দল। শুধু যুদ্ধক্ষেত্র বদলেছে। গতবছর ফেডারেশন কাপে হারের বদলা নেওয়ার সুবর্ণ সুযোগ মোহনবাগানের সামনে। অন্যদিকে এবার আইএসএল ফাইনালে উঠেও ট্রফি না জিততে পারার খিদেটা তাড়া করে বেড়াচ্ছে সুনীল ছেত্রীদের।

আরও পড়ুন- ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডের হার, ইপিএল চ্যাম্পিয়ন ম্যাঞ্চেস্টার সিটি

হাইভোল্টেজ ম্যাচ ঘিরে উন্মাদনা তুঙ্গে। আই লিগ, ফেডারেশন কাপ এবং এএফসি কাপ মিলিয়ে এর আগে ১৩ বার মুখোমুখি হয়েছে মোহনবাগান-বেঙ্গালুরু। ৫টি ম্যাচ ড্র হলেও ৫টি ম্যাচ জিতেছে মোহনবাগান। মাত্র ৩টি ম্যাচ জিতেছে বেঙ্গালুরু এফসি। কিন্তু সেই তিনটেই খুব গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ জিতেছিল বেঙ্গালুরু।

মোহনবাগান-বেঙ্গালুরু এফসি দ্বৈরথ
  মুখোমুখি  ১৩ ম্যাচ
 মোহনবাগান জিতেছে   ম্যাচ
 বেঙ্গালুরু এফসি জিতেছে   ম্যাচ
 ড্র হয়েছে   ম্যাচ

পরিসংখ্যানে এগিয়ে থাকলেও বিষয়টিকে পাত্তা দিতে নারাজ মোহনবাগান কোচ শঙ্করলাল চক্রবর্তী। বরং গত ফেড কাপ ফাইনালের প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলছেন, "গতবছর ফেডারেশন কাপের ফাইনালে বেঙ্গালুরু চমত্কার পারফরম্যান্স করেছিল। ম্যাচের মাঝেই তিনবার ফর্মেশন বদল করেছিলেন কোচ রোকা। কী ভাবে গোটা ম্যাচে একচেটিয়া রাজ করেছিল বেঙ্গালুরু সেটা আমি এখনও ভুলিনি। আপনারা ভুলে যাবেন না গতবছর মোহনবাগান ছিল সেরা দল।"

সেই সঙ্গে শঙ্করলাল বলেন, " বেঙ্গালুরু বিপজ্জনক দল। সুনীল ছেত্রী-উদান্ত সিং-মিকু এই ত্রিফলা আক্রমণই চিন্তার বিষয়। আমরাও সেই মত অনুশীলন করেছি। আমরা ব্যালান্সড ফুটবল খেলতে চাই।" সুনীল-উদান্ত-মিকু এই ত্রিমুখী আক্রমণকে রুখতে বেঙ্গালুরুর প্রাক্তন অজি মিডিও ক্যামেরন ওয়াটসনকে তুরুপের তাস করতে পারেন শঙ্করলাল। সঙ্গে কিনোয়াকি ইয়োটা আর রেনিয়ারকে ওয়াটনের সঙ্গে জুড়ে দিতে পারেন শঙ্কর। এদিকে রেনিয়ার ফার্নান্ডেজ বলছেন, "আমরা চ্যালেঞ্জ নিতে তৈরি। জানি কঠিন ম্যাচ। কিন্তু আমরাও তৈরি।"

চ্যালেঞ্জটা নিচ্ছে বেঙ্গালুরু এফসিও। দলের স্প্যানিশ কোচ আলবার্তো রোকা সেমিফাইনালে নামার আগে বলছেন, " এখন পর্যন্ত এই প্রতিযোগিতায় আমরা যতগুলি দলের মুখোমুখি হয়েছি তাদের মধ্যে মোহনবাগান হল সবচেয়ে কঠিন দল। গত মরসুমের থেকে এই মরসুমে দলে অনেক পরিবর্তন হয়েছে ওদের। আমরাও ভাল খেলার চেষ্টা করব। কিন্তু সহজ হবে না। আগামিকাল ম্যাচ জেতাই আমাদের কাছে চ্যালেঞ্জ।" হরমনজ্যোত খাবড়া বলছেন, "মোহনবাগান খুব আনপ্রেডিক্টেবল দল। দলে অনেক নতুন ফুটবলার আছে। তরুণ ফুটবলাররা নিজেদের প্রমাণ করতে মুখিয়ে থাকবেন। তাই শুরু থেকেই কড়া চ্যালেঞ্জের জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে।"

কোয়ার্টার ফাইনালে হ্যাটট্রিক করা সুনীল ছেত্রী ফের মোহনবাগানের বিরুদ্ধে জ্বলে উঠতে চাইছেন। কঠিন ম্যাচ মেনে নিচ্ছেন ভারতীয় ফুটবলের পোস্টার বয়ও। ভারতীয় ফুটবলের অন্যতম সেরা ম্যাচ ঘিরে  উত্তাপ বাড়ছে ভুবনেশ্বরে।  

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. You can find out more by clicking this link

Close