ভারত-পাক ম্যাচে বাধা শিবসেনাদের

Last Updated: Wednesday, October 31, 2012 - 13:40

মুম্বই জঙ্গি হানার পর ভারতের মাটিতে এই প্রথম খেলতে আসার সবুজ সিগন্যাল পেল পাকিস্তান টিম। কিন্তু এর তীব্র বিরোধিতা করেছে শিবসেনা ও মহারাষ্ট্র নবনির্মাণ সেনা। তারা স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছে, পাকিস্তানের সঙ্গে কোনওভাবেই খেলা বা সাংস্কৃতিক বিনিময়ের প্রশ্নই ওঠে না। শিবসেনার নেতা সুভাস দেশাই সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, পাকিস্তানের সঙ্গে কোনও যোগাযোগ প্রয়োজন আছে বলে মনে করে না তাঁর দল। তিনি আরও বলেন ছাব্বিশ এগারোর জঙ্গি হামলার জন্য একমাত্র দায়ী পাকিস্তান।
এদিকে গতকালই বিসিসিআই-এর ভাইস প্রেসিডেন্ট রাজীব শুক্লা জানিয়েছেন ২৫ ডিসেম্বর থেকে ভারত-পাক ম্যাচ শুরু হবে। দু`সপ্তাহের এই সংক্ষিপ্ত সফরে ৩টি একদিনের ম্যাচ ও ২টি টিটোয়েন্টি খেলা হবে। ইতিমধ্যেই দীর্ঘ ভারত সফরে এসেছে ইংল্যান্ড দল। সফর চলাকালীনই বড়দিনের ছুটিতে দেশে ফিরবে ইংল্যান্ডের ক্রিকেটাররা। সেই ফাঁকেই ২২ ডিসেম্বর পাকিস্তানের ভারত সফরে আসার কথা। বড়দিনেই প্রথম ভারত পাকিস্তান একদিনের ম্যাচ। ক্রিসমাস কাটিয়ে জানুয়ারির ১০ তারিখ ফের ভারতে ফিরছে ইংল্যান্ড দল। ভারত-পাক ম্যাচ শেষ হবার পর আবার ইংল্যান্ডের সঙ্গে একদিনের ম্যাচ শুরু হবে।
কিন্তু শিবসেনা ও মহারাষ্ট্র নবনির্মাণ সেনা যেভাবে রাজনৈতিকভাবে সমলোচনা শুরু করেছে তাতে যথেষ্ট ভয়ের কারণ আছে। এমএনএস নেতা শিশির সিন্ডে এরমধ্যেই ভারত-পাক ম্যাচ নিয়ে বিরুপ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন। ইতিহাস ঘাটলেই দেখা যাবে শিবসেনা একাধিকবার ক্রিকেট জগতে তাদের রাজনৈতিক জোর খাটিয়েছে। পাকিস্তানের সঙ্গে খেলা বানচালের উদ্দেশ্যে ১৯৯১-এ ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামের পিচ খুঁড়েছিল তারা। একই কারণে ১৯৯৯-তেও দিল্লির ফিরোজ শা কোটলাতে পিচ খোঁড়ার নজির রয়েছে তাঁদের বিরুদ্ধে। কখনও আইপিএল, কখনও মাস্টার ব্লাস্টারের বিরুদ্ধে মুখ খুলেছেন শিবসেনার নেতৃত্বরা। তাঁদের জেহাদ অগ্রাহ্য করে ভারতের মাটিতে পাকিস্তানের সফর সফল হয় কিনা সেই দিকেই তাকিয়ে ক্রিকেটপ্রেমীরা।



First Published: Wednesday, October 31, 2012 - 13:40


comments powered by Disqus