আদিবাসী সমবায় সমিতির নির্বাচনকে ঘিরে অশান্ত রাজনগরের আলিগড় গ্রাম

ফের উত্তপ্ত বীরভূম। আদিবাসী সমবায় সমিতির নির্বাচনকে ঘিরে অশান্ত রাজনগরের আলিগড় গ্রাম। বোমা-গুলিতে মৃত্যু হয়েছে ১ তৃণমূল কর্মীর ।  তিরবিদ্ধ আরও একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। উদ্ধার হয়েছে প্রচুর তাজা বোমা। অশান্তির জন্য সিপিএম এবং বিজেপিকেই দায়ী করেছে শাসকদল।

Updated: Jun 19, 2017, 07:58 PM IST
আদিবাসী সমবায় সমিতির নির্বাচনকে ঘিরে অশান্ত রাজনগরের আলিগড় গ্রাম

ওয়েব ডেস্ক: ফের উত্তপ্ত বীরভূম। আদিবাসী সমবায় সমিতির নির্বাচনকে ঘিরে অশান্ত রাজনগরের আলিগড় গ্রাম। বোমা-গুলিতে মৃত্যু হয়েছে ১ তৃণমূল কর্মীর ।  তিরবিদ্ধ আরও একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। উদ্ধার হয়েছে প্রচুর তাজা বোমা। অশান্তির জন্য সিপিএম এবং বিজেপিকেই দায়ী করেছে শাসকদল।

আদিবাসী সমবায় সমিতির নির্বাচনকে ঘিরে সকাল থেকে রাজনগরের আলিগড় গ্রামে ছিল টান টান উত্তেজনা। দীর্ঘদিন বামেদের হাতে থাকা এই সমিতির দখল নিতে মরিয়া ছিল তৃণমূল শিবির।  উল্টো দিকে একজোট বিরোধীরা। যা কিনা বিজেপি এবং সিপিএমের জোট বলেই দাবি তৃণমূলের। অশান্তির আশঙ্কায় তাই গ্রামে ছিল বিশাল পুলিস বাহিনী। কিন্তু তাতেও শেষরক্ষা হল না।

ভোটগ্রহণ শুরু হতেই সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে তৃণমূল এবং বিরোধীরা। বোমা-গুলিতে উত্তপ্ত হয় গোটা এলাকা। গুলিবিদ্ধ হয়ে প্রাণ হারান তৃণমূল কর্মী বলরাম মণ্ডল। তিরবিদ্ধ আরও ১ তৃণমূল কর্মী হাসপাতালে। খবর পেয়ে বীরভূম জেলার ২ অতিরিক্ত পুলিস সুপারের নেতৃত্বে ঘটনাস্থলে যায় বিশাল পুলিস বাহিনী। যুযুধান দুপক্ষকে হঠিয়ে দেয় পুলিস।

সোমবারের ঘটনায় মাওবাদীদের সঙ্গে নিয়ে  হামলা চালিয়েছে বিজেপি। দাবি অনুব্রত মণ্ডলের। যদিও সেই অভিযোগ সরাসরি খারিজ করেছে বিজেপি জেলা নেতৃত্ব। ঘটনার পর গ্রামজুড়ে তল্লাসি চালায় পুলিস। প্রচুর  দেশি বোমার পাশাপাশি উদ্ধার হয়েছে অত্যাধুনিক চ্যানেল বোমা।