শুভ্রাংশুর জন্য বিজেপির দরজা খোলা: দিলীপ ঘোষ

বিজেপির দরজা খুলে কোচবিহারে মুকুলপুত্রের জন্য দিলীপের প্রস্তাব,"বাবা-ছেলে কেন আলাদা থাকবে? শুভ্রাংশ চাইলে তাঁকে দলে নেওয়া হবে।"      

Updated: Nov 14, 2017, 08:00 PM IST
শুভ্রাংশুর জন্য বিজেপির দরজা খোলা: দিলীপ ঘোষ

নিজস্ব প্রতিবেদন: মুকুল রায়ের ইয়র্কারের পর এবার ফুলটস ডেলিভারি দিলীপ ঘোষের। একদিকে আগুন ঝরানো স্পেলে বিপক্ষের তাবড় ব্যাটসম্যানকে চাপে রাখছেন সদ্য বিজেপিতে যোগদান করা মুকুল রায়। অন্যদিকে বিরোধী শিবিরে ফাটল ধরানোর লক্ষ্যে ফুলটস দিয়ে প্রোলোভনের ফাঁদ তৈরি করছেন রাজ্য বিজেপির ক্যাপ্টেন। 

আরও পড়ুন- রসগোল্লা বাংলারই, ওড়িশাকে হারিয়ে সত্ত্ব পেল পশ্চিমবঙ্গ

'বিগ ফিশ' মুকুলকে আগেই ঘরে তুলেছে বিজেপি। এবার গেরুয়া শিবির চাইছে জালে উঠুক চুনোপুটিও। আর সেই মতো রাজ্য রাজনীতিতে হাওয়া গরম করতে নেমে পড়েছেন গেরুয়া শিবিরের রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। বিজেপির দরজা খুলে কোচবিহারে মুকুলপুত্রের জন্য দিলীপের প্রস্তাব,"বাবা-ছেলে কেন আলাদা থাকবে? শুভ্রাংশ চাইলে তাঁকে দলে নেওয়া হবে।"  

আরও পড়ুন- বিশ্ববাংলা বিতণ্ডায় আটচল্লিশ ঘণ্টার মধ্যেই আইনি জবাব মুকুলের

গত শুক্রবার রানি রাসমণি রোডে বিজেপির সমাবেশ থেকে অভিষেক ব্যানার্জির বিরুদ্ধে সরাসরি তোপ দেগেছিলেন তৃণমূলের একদা চাণক্য মুকুল রায়। জার্সি বদলের পর সেটাই ছিল তাঁর প্রথম চমক। বিশ্ব বাংলা ব্র্যান্ড, জাগোবাংলা পত্রিকা এবং মা-মাটি-মানুষ স্লোগানের মালিকানা নিয়ে মুকুলের 'খুলাসা' কার্যত নাড়িয়ে দিয়েছে তৃণমূলকে। 

আরও পড়ুন- সূচি বদল উচ্চমাধ্যমিকের, এগিয়ে এল কয়েকটি বিষয়ের পরীক্ষা

পাল্টা সভায় আগুন ঝরিয়ছেন মুকুল বিরোধী হিসেবে পরিচিত ভাটপাড়ার বিধায়ক অর্জুন সিংও। রানি রাসমণি রোডে যুব তৃণমূলের সমাবেশ থেকে মুকুল রায়ের 'রাজনৈতিক দাঁত নেই' বলে কড়া আক্রমণ শানিয়েছেন মন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্যও। তবে সেদিন যুব তৃণমূলের সভায় গরহাজির থেকে 'বাবার পাশে' থাকার বার্তাই দিয়েছেন মুকুলপুত্র শুভ্রাংশু। যদিও অনুপস্থিতির জন্য শরীর খারাপের সাফাই দিয়েছেন বীজপুরের বিধায়ক। 

আরও পড়ুন- 'টুইটারে ফিরলেন' ঋতব্রত, ধন্যবাদ জানালেন তৃণমূল সাংসদ ডেরেক ও'ব্রায়েন-কে

২৪ ঘণ্টাও কাটল না। শুভ্রাংশ বিতর্কে নয়া মাত্রা যোগ করলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। শুভ্রাংশ চাইলে তাঁকে দলে নেওয়া হবে, দিলীপ ঘোষের এই মন্তব্যেই শুরু হয়েছে নতুন গুঞ্জন। তাহলে খুব শীঘ্রই কি বিজপেতি যোগ দান করতে চলেছেন 'বাপ কা বেটা'? মুকুল রায় অবশ্য বলছেন, "সে উনি (দিলীপ ঘোষ) চাইতেই পারেন। শুভ্রাংশু সাবালক। সে নিজের সিদ্ধান্ত নিজেই নেবে। তবে ভারতবর্ষের রাজনীতিতে এমন অনেক নিদর্শন রয়েছে যেখানে বাবা-ছেলে আলাদা রাজনৈতিক দলের হয়ে লড়াই করেছেন।" 

আরও পড়ুন- পঞ্চায়েত নির্বাচন আগে জেলায় জেলায় গরু বিলি করবে রাজ্য সরকার

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. You can find out more by clicking this link

Close