কলকাতায় ওড়িশার চিটফান্ড সংস্থার কর্তার বাড়িতে সিবিআই হানা

কলকাতায় ওড়িশার চিটফান্ড সংস্থার কর্তার বাড়িতে সিবিআই হানা

ফের শহরে সিবিআই হানা। ওড়িশার একটি চিটফান্ড সংস্থার কর্তাদের বাড়ি এবং অফিসে তল্লাসি চালালেন কেন্দ্রীয় গোয়েন্দারা। যদিও তল্লাসির আগেই ফেরার সংস্থার একাধিক কর্তা।  উদ্ধার করা হয়েছে বেশ কিছু গুরুত্বপ

সারদা, রোজভ্যালির পর ফের সিবিআই হানা সুরাহা মাইক্রো ফিনান্সে সারদা, রোজভ্যালির পর ফের সিবিআই হানা সুরাহা মাইক্রো ফিনান্সে

সারদা, রোজভ্যালির পর এবার সুরাহা মাইক্রো ফিনান্স লিমিটেডের অফিসে হানা দিল সিবিআই। আজ সকালে বেশকয়েকটি দলে ভাগ হয়ে কলকাতা ও সংলগ্ন বিভিন্ন এলাকায় ওই সংস্থার অফিসে তল্লাসি চালান সিবিআই অফিসাররা। সংস্থ

সেবির নিষেধাজ্ঞাকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে বাজার থেকে টাকা তুলে যাচ্ছে প্রয়াগ সেবির নিষেধাজ্ঞাকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে বাজার থেকে টাকা তুলে যাচ্ছে প্রয়াগ

সেবির নিষেধাজ্ঞাকে কার্যত বুড়ো আঙুল দেখিয়েই বাজার থেকে টাকা তুলে যাচ্ছে প্রয়াগ চিটফান্ড সংস্থা। শুধু তাই নয়। রাজ্য সরকার তাদের সম্পত্তি না বিক্রি করার নির্দেশ দিলেও তাকে আদালতে চ্যালেঞ্জ করেছে প্রয়াগ। কীভাবে এই সমস্ত নিষেধাজ্ঞাকে অগ্রাহ্য করে বাজার  থেকে টাকা তুলছে প্রয়াগ? এনিয়ে কলকাতা হাইকোর্টে জনস্বার্থ মামলা করেছেন আমানতকারীরা। প্রয়াগের বিনিয়মের তথ্যই এখন চব্বিশ ঘণ্টার হাতে।

ক্ষতিপূরণ দিলে অভিযুক্তকে ছাড়, চিটফান্ড বিল দিল্লতে ফেরত পাঠাল রাজ্য ক্ষতিপূরণ দিলে অভিযুক্তকে ছাড়, চিটফান্ড বিল দিল্লতে ফেরত পাঠাল রাজ্য

চিটফান্ড বিলে ফের জটিলতা। রাষ্ট্রপতির অনুমোদন পাওয়া বিল দিল্লিতে ফেরত পাঠাল রাজ্য। বিধানসভায় মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, ওই বিলে অর্থমন্ত্রক যে শর্ত জুড়ে দিয়েছে তা মেনে নেবে না রাজ্য। 

সময় মত টাকা না মেলায় চিটফান্ড সংস্থার এজেন্টের বাড়িতে হামলা

সময় মত টাকা না মেলায় একটি বেসরকারি চিটফান্ড সংস্থার এজেন্টের বাড়িতে কয়েকজন গ্রাহক হামলা চালায় বলে অভিযোগ। ঘটনাটি ঘটেছে ডোমজুড় থানার সলপ অঞ্চলের কালীতলায়। শুক্রবারই গ্রাহকদের টাকা ফেরত দেওয়ার কথা ছিল এজেন্ট কেশব পাঁজার। কিন্তু মার্চ মাসে ওই চিটফান্ড সংস্থাটি বন্ধ হয়ে যাওয়ায় লগ্নিকারীদের ঠিক সময়ে টাকা দিতে পারেননি তিনি।

বাবার মৃত্যুতে জামিন মঞ্জুর গৌতম কুণ্ডুর বাবার মৃত্যুতে জামিন মঞ্জুর গৌতম কুণ্ডুর

রোজভ্যালি কর্তা গৌতম কুণ্ডুর ১৪ দিনের অন্তর্বর্তীকালীন জামিন মঞ্জুর করল কলকাতা হাইকোর্ট। বাবার মৃত্যুর কারণে জামিন চেয়ে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছিলেন রোজভ্যালি কর্তা। সেই আবেদন মঞ্জুর করেছে হাইকোর্ট। তবে জামিন শেষে ফের তাঁকে আত্মসমর্পণ করতে হবে। আদালতে ইডি জামিনের বিরোধিতা করে ছিল।

চিটফান্ড কাণ্ডে রোজভ্যালি কর্তাকে ফের জেরা ইডির চিটফান্ড কাণ্ডে রোজভ্যালি কর্তাকে ফের জেরা ইডির

চিটফান্ড কাণ্ডে রোজভ্যালি কর্তাকে ফের জেরা করল ইডি। আজ সল্টলেকের সিজিও কমপ্লেক্সে জেরা করা হয় রোজভ্যালি কর্তা গৌতম কুণ্ডুকে। এরআগে তাকে জেরার জন্য সমন পাঠায় ইডি। গৌতম কুণ্ডুর আইনজীবী আবেদন জানান, তার মক্কেল  অসুস্থ থাকায় জেরার জন্য হাজিরা দিতে পারবেন না।

রাজ্যে চিটফান্ড মামলায় পুলিসের ভূমিকায় অসন্তুষ্ট শ্যামল সেন কমিশন রাজ্যে চিটফান্ড মামলায় পুলিসের ভূমিকায় অসন্তুষ্ট শ্যামল সেন কমিশন

চিটফান্ড মামলার তদন্তে পুলিসের ভূমিকায় অসন্তুষ্ট শ্যামল সেন কমিশন। সারদা ছাড়াও বহু চিটফান্ড সংস্থার মামলা চলছে কমিশনে। অথচ বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই ওই সমস্ত চিটফান্ড মালিকদের শুনানিতে হাজির করতে  ব্যর্থ

সারদাকাণ্ডে এবার রাঘব বোয়ালদের জেরা করতে চলেছে সিবিআই

সারদাকাণ্ডে এবার রাঘব বোয়ালদের জেরা করতে চলেছে সিবিআই

সারদায় এ বার গ্রেফতার ব্যবসায়ী শান্তুনু ঘোষ

সারদায় এবার গ্রেফতার ব্যবসায়ী শান্তুনু ঘোষ

মুখোমুখি জেরায় তর্কে জড়ালেন সুদীপ্ত-কুণাল

মুখোমুখি জেরায় তর্কে জড়ালেন সুদীপ্ত-কুণাল

সুদীপ্ত সেনকে ফের হেফাজতে চাইল ইডি

সুদীপ্ত সেনকে ফের হেফাজতে চাইল ইডি। বাংলার পাশাপাশি, ওড়িশাতেও সারদা কেলেঙ্কারির তদন্ত করছে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট। সেই সংক্রান্ত মামলাতেই আজ খুরদা আদালতে সুদীপ্ত সেনকে গ্রেফতারের আবেদন জানায় ইডি।

আমানতের বড় অংশ নগদে প্রভাবশালীদের পাচার করেছেন সুদীপ্ত সেন, অভিযোগ সিবিআইয়ের

আমানতের বড় অংশ নগদে প্রভাবশালীদের পাচার করেছেন সুদীপ্ত সেন, অভিযোগ সিবিআইয়ের

পুলিসের কাছে সারদার সব মামলার কেস ডায়েরি চেয়ে পাঠাল সিবিআই

পুলিসের কাছে সারদার সব মামলার কেস ডায়েরি চেয়ে পাঠাল সিবিআই

এবার সিবিআই তদন্ত মঙ্গলম চিটফান্ড সংস্থার লেনদেনে

এবার সিবিআই তদন্ত মঙ্গলম চিটফান্ড সংস্থার লেনদেনে

``আমি নির্দোষ। প্রকৃত দোষী মুকুল রায়, মদন মিত্র``

এজলাসের মধ্যে ক্ষোভে ফেটে পড়লেন কুনাল ঘোষ। শ্রীরামপুর আদালতে তোলা হলে কুনাল ঘোষ প্রথমেই বিচারকের কাছে অনুমতি চান। বিচারক অনুমতি দেওয়া মাত্রই কুনাল ঘোষ বলেন, তাঁকে রাজনৈতিক কারণে ফাঁসানো হয়েছে। তিনি চক্রান্তের শিকার। তিনি নির্দোষ। প্রকৃত দোষী মুকুল রায়, মদন মিত্র।