ইউএফও-ই কী দেখলেন পাওয়েল?

ইউএফও-ই কী দেখলেন পাওয়েল?

আকাশে ওটা কী দেখলাম! ছবির কোনায় ওটা কী ধরা পড়েছে! ইউএফও মনে হল না যেন! হ্যাঁ, এমনটাই মনে করছেন ফিওনা পাওয়েল নামের ওই মহিলা।

 ভিনগ্রহের প্রাণীর অস্তিত্ব ভারতেও! ভিনগ্রহের প্রাণীর অস্তিত্ব ভারতেও!

আপনি কি ভিনগ্রহের প্রাণীতে বিশ্বাসী? হতেও পারেন। না-ও হতে পারেন। আপনি ছাড়াও এই পৃথিবীর অনেক মানুষই বিশ্বাস করেন যে, ভিনদেশের প্রাণী আছে। আর এখানে যে ভিডিওটি আপনাকে দেখানো হচ্ছে, সেটায় তো রীতিমতো সন্দেহজনক বেশ কিছু প্রমাণও রয়েছে। এটা ঠিক, ভিনগ্রহের প্রাণীর কোনও প্রমাণ অকাট্য হয়তো হবে না। কিন্তু একেবারে উড়িয়েও দিতে পারবেন না। কারণ, ছবি যে সত্যিই কথা বলে। ইলোরার গুহার নিচেই রয়েছে একটা ৪০ ফুটের সুড়ঙ্গ। যদিও সেই  সুড়ঙ্গে সাধারণের কিংবা পর্যটকদের ঢোকার কোনও অনুমতি নেই। এখানকার নিরাপত্তারক্ষীদের এই বিষয়ে জিজ্ঞেস করলে বলা হয়, তাঁরা এই বিষয়ে কিছু জানেন না। আবার সুড়ঙ্গে ঢোকার অনুমতিও দেন না। তাহলে ওই সরু সুড়ঙ্গ কে বা কারা তৈরি করেছিল, প্রশ্নটা আসছেই। সুড়ঙ্গ একটা য়ায়গায় এত সরু যে, সেখানে মানুষের পক্ষে ঢোকা অসম্ভব। তাহলে ওই সুড়ঙ্গ ব্যবহার করত কে বা কারা! রীতিমতো রয়েছে একটা শহর! প্রশ্ন উঠছে অনেক। উত্তর এখনও নেই। তবে, ইতিমধ্যে এই ভিডিও দেখে অনেকেই বলা শুরু করে দিয়েছেন যে, ভারতেও ভিনগ্রহীরা ছিল। ভিডিওটা দেখার পর দেখুন, আপনার মত কী হয়।

 'ভুত কণা' প্রমাণ দিচ্ছে এলিয়নের উপস্থিতির! 'ভুত কণা' প্রমাণ দিচ্ছে এলিয়নের উপস্থিতির!

এক কখনও না দেখা ছবি, যা পৃথিবীর বাইরে মহাকাশ থেকে সংগৃহীত ধ্বংসাবশেষ থেকে প্রাপ্ত 'ভুত-কণা'-র উপস্থিতির কথা ফাঁস করল সঙ্গে দিল এলিয়ানের উপস্থিতির সংকেতও।

UFO-র গল্প হলেও সত্যি! টেক্সাসের আকাশে অদ্ভুত আলোকযানের হদিশ UFO-র গল্প হলেও সত্যি! টেক্সাসের আকাশে অদ্ভুত আলোকযানের হদিশ

প্রায় আমরা খবর শুনি পৃথিবীর বুকে ভিনগ্রহের মহাকাশযান দেখা গেছে। কখনও  কখনও গুজব বলে উড়িয়ে দিই। কখনও মনে হয় মানুষের কৌতুহলকে উস্কে দেওয়ার জন্য কিছু মনগড়া গল্প। তবে এই মনগড়া গল্প হয়ত সত্যি হতে চলেছে।

মনে কর বিদেশ ঘুরে...

বছর শেষের সপ্তাহটা আসলেই সারা বছর কী হল, কী না হল তার হিসাবনিকাশ শুরু হয়ে যায়। পেশার তাগিদে বছরের ইতিহাস নিয়ে চলে চরম গবেষণা। এই যে আমাদের

বিদায়ী ২০১৩, তাতে যে এত ঘটনার ঘনঘটা ঘটবে তা কী আর ছাই জানা ছিল? আর আমাকেও যে খড়ের গাদা থেকে এভাবে খুঁজে খুঁজে সুঁচ অন্বেষণ করতে হবে তাও

তো বুঝতে পারিনি। কিন্তু কী আর করা...চাকরিটা যখন রাখতেই হবে তখন কাজটা করেই ফেলতে হল...

গোটা ২০১৩-র বিদেশ সফরে বিশ্বের আনাচে কানাচে দুর্নিবার চক্কর কেটে যা কিছু কুড়িয়ে বাড়িয়ে পেলাম তাই জর করলাম...