রাতদুপুরে মানালির বাড়ির সামনে চলল গুলি, পুলিস ডাকলেন কঙ্গনা

পুলিসের কাছে এমনই অভিযোগ করেছেন 'বলিউড কুইন' কঙ্গনা রানাওয়াত। 

Edited By: রণিতা গোস্বামী | Updated By: Aug 1, 2020, 10:33 PM IST
রাতদুপুরে মানালির বাড়ির সামনে চলল গুলি, পুলিস ডাকলেন কঙ্গনা

নিজস্ব প্রতিবেদন : তাঁর বাড়ির সামনে মাঝরাতে গুলি চালিয়েছেন দুষ্কৃতিরা। শুক্রবার রাতে, তিনি যখন মানালির বাড়িতে শোবার ঘরে ছিলেন, তখনই এই ঘটনা ঘটেছে। পুলিসের কাছে এমনই অভিযোগ করেছেন 'বলিউড কুইন' কঙ্গনা রানাওয়াত। অভিনেত্রীর, মুখ্যমন্ত্রী ছেলের বিরুদ্ধে মুখ খোলার জন্যই এমনটা ঘটেছে।

টাইমস অফ ইন্ডিয়াকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে, কঙ্গনা জানিয়েছেন, ''রাত তখন ১১টা বাজে, তাঁর বাড়ির সামনে গুলির আওয়াজ শুনতে পান। আমি নিরাপত্তারক্ষীকে ডেকে পাঠাই, আর বিষয়টি দেখতে বলি। ৮ সেকেন্ডের মধ্যে দুবার গুলির শব্দ শোনা যায়। আর সেটা ঠিক আমার ঘরের পর পাঁচিলের ওপারেই হয়েছে। আমার ঘরের সামনে একটি আপেল বাগান আক সুইমিংপুল রয়েছে। আর তারপরই পাঁচিল।''

আরও পড়ুন-এখনও খোঁজ পায়নি বিহার পুলিস, কোথায় আছেন রিয়া চক্রবর্তী?

আরও পড়ুন-''অঙ্কিতা সঙ্গে থাকলে সুশান্তের এই পরিণতি হত না'' একথা শুনে আবেগতাড়িত অঙ্কিতা, চোখে এল জ্বল...

কঙ্গনার কথায়, ''রাজনীতিতে গুণ্ডাগিরি নিয়ে পরিচিত লোকজনের সম্পর্কে মন্তব্য করে ফেলেছি। তাই হয়ত আমাকে ভয় দেখাতে এটা করা হল। এখানে এর আগে কখনও এমন ঘটনা ঘটেনি। আর এই আরও শুধু  আমিই নয়, আরও অনেকেই শুনেছেন। আমার মনে হয় স্থানীয় গুণ্ডাদের আমায় ভয় দেখাতে ভাড়া করা হয়েছিল। ৭-৮ হাজার টাকা দিলেই এদের যোগার করা যায়। আমার মনে হয়না এটা কোও কাকতালীয় ঘটনা। কারণ মুখ্যমন্ত্রীর ছেলের সম্পর্কে মন্তব্য করেছিলাম। লোকজন আমায় এখন বলছে, মুম্বই আপনার জীবন এরা দুর্বিষহ করে তুলবে। আমাকে সবাই মুম্বইয়ে থাকতে নিষেধ করছেন। এদেশে কি এভাবেই গুণ্ডাগিরি চলে? সুশান্তকেও নিশ্চয় এভাবেই ভয় দেখানো হয়েছিল। তবে আমি বলা থামবো না।''

প্রসঙ্গত, গত শুক্রবারই টিম কঙ্গনা টুইট করেন, ''প্রত্যেকেই জানে, তবে কেউ নাম নিতে পারে না। করণ জোহরের প্রিয় বন্ধু হল, দেশের সেরা মুখ্যমন্ত্রীর ছেলে। বেবি পেঙ্গুইন বলে পরিচিত। যদি কোনওদিন আমার ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয়, জানবেন আমি আত্মহত্যা করিনি।''

আরও পড়ুন-রিয়ার সঙ্গে ইউরোপ থেকে ফেরার পরই সুশান্ত অসুস্থ হয়ে পড়েন, বললেন সুশান্তের প্রাক্তন রাঁধুনি