ফেলুদার সিক্রেট আউট!

জেনে নিন সেলিব্রিটিদের সব না-বলা কাহিনি। এমন সব কথা যা আগে কখনও বলেননি তাঁরা, আপনারাও আগে জানতেই পারেননি! সেলেব সিক্রেটসের দ্বিতীয় এপিসোডে হাজির স্বয়ং ফেলুদা, সব্যসাচী চক্রবর্তী। প্রথমেই তাঁর দাবি ছিল, তিনি নাকি ওপেন বুক, কোনও সিক্রেটই নেই তাঁর জীবনে। কিন্তু প্রশ্ন করতে করতেই উঠে এল, তাঁর নিজেরও না-জানা সিক্রেট। সঞ্চালক শর্মিলা মাইতির সঙ্গে তিনি এলেন কলেজ স্ট্রিটে কলকাতার এক ঐতিহ্যবাহী বইয়ের দোকানে। সেখানেই আবিষ্কৃত হল ফেলুদার স্রষ্টা সত্যজিত্‍ রায়ের একটুকরো সৃষ্টি, যা এতদিন টেলিভিশনের পর্দায় আসেনি। লেখা হয়নি কোনও পত্রপত্রিকাতেও। পাওয়া গেল সত্যজিতের একটি ইংরেজি অনুবাদ, যার প্রথম পাতায় তিনি অটোগ্রাফ দিয়েছিলেন, যা প্রকাশক রেখে দিয়েছেন সংগ্রহে। এসবই প্রথমবার দর্শক দেখতে পাবেন, সব্যসাচীর হাতে। জানতে পারবেন, কীভাবে দ্রুত বই পড়ে ফেলতে পারেন তিনি। দর্শককে শেখাবেন তাঁর সিক্রেটও।

Updated By: Jul 9, 2016, 04:05 PM IST
ফেলুদার সিক্রেট আউট!

ওয়েব ডেস্ক: জেনে নিন সেলিব্রিটিদের সব না-বলা কাহিনি। এমন সব কথা যা আগে কখনও বলেননি তাঁরা, আপনারাও আগে জানতেই পারেননি! সেলেব সিক্রেটসের দ্বিতীয় এপিসোডে হাজির স্বয়ং ফেলুদা, সব্যসাচী চক্রবর্তী। প্রথমেই তাঁর দাবি ছিল, তিনি নাকি ওপেন বুক, কোনও সিক্রেটই নেই তাঁর জীবনে। কিন্তু প্রশ্ন করতে করতেই উঠে এল, তাঁর নিজেরও না-জানা সিক্রেট। সঞ্চালক শর্মিলা মাইতির সঙ্গে তিনি এলেন কলেজ স্ট্রিটে কলকাতার এক ঐতিহ্যবাহী বইয়ের দোকানে। সেখানেই আবিষ্কৃত হল ফেলুদার স্রষ্টা সত্যজিত্‍ রায়ের একটুকরো সৃষ্টি, যা এতদিন টেলিভিশনের পর্দায় আসেনি। লেখা হয়নি কোনও পত্রপত্রিকাতেও। পাওয়া গেল সত্যজিতের একটি ইংরেজি অনুবাদ, যার প্রথম পাতায় তিনি অটোগ্রাফ দিয়েছিলেন, যা প্রকাশক রেখে দিয়েছেন সংগ্রহে। এসবই প্রথমবার দর্শক দেখতে পাবেন, সব্যসাচীর হাতে। জানতে পারবেন, কীভাবে দ্রুত বই পড়ে ফেলতে পারেন তিনি। দর্শককে শেখাবেন তাঁর সিক্রেটও।

আরও আছে এই আধ ঘণ্টায়। জানতে ইচ্ছে করে, বিয়ের আগে বেণুদা কার প্রেমে পড়েছিলেন? সেটাও জানতে পারবেন সেলেব সিক্রেটস-এ। ফেলুদা স্পেশাল পর্বে। শেষে সব্যসাচী চক্রবর্তীর দেওয়া প্রশ্নের উত্তর দিয়ে জিতে নিতে পারেন ফেলুদা সিরিজের একটি বই, যাতে নিজের হাতে অটোগ্রাফ দিয়েছেন সব্যসাচী চক্রবর্তী।