সংসদে হাজির না থেকেও বাজেটের সমালোচনায় নুসরত

 বাজেট নিয়ে নিজের টুইটার হ্যান্ডেলে এভাবেই ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন তৃণমূলের সাংসদ অভিনেত্রী।

Edited By: রণিতা গোস্বামী | Updated By: Feb 1, 2020, 08:54 PM IST
সংসদে হাজির না থেকেও বাজেটের সমালোচনায় নুসরত

নিজস্ব প্রতিবেদন : ''দেশের বর্তমান পরিস্থিতি যেন সিনেমা। ২০২০-বাজেট দেশের অর্থনীতির কোনও উন্নতি ঘটাবে না।'' শনিবার বাজেট নিয়ে নিজের টুইটার হ্যান্ডেলে এভাবেই ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন তৃণমূলের সাংসদ অভিনেত্রী।

নুসরত কথায়, এই বাজেটে অর্থনীতি ও কর্মসংস্থানের কোনও উন্নতি তো হবেই না, এমনকি এই বাজেটে কৃষকদের স্বার্থও উপেক্ষিত। রেল, বিএসএনএল, এয়ার ইন্ডিয়া-র পর এলআইসি-কে বেসরকারিকরণের পথে কেন্দ্র যেভাবে হাঁটছে এদিন সেবিষয়েও ক্ষোভ উগরে দেন নুসরত। যদিও এদিন বাজেট পেশের সময় সংসদে উপস্থিত ছিলেন না নুসরত জাহান। তবে সংসদে ছিলেন তৃণমূলের আরও এক সাংসদ অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী।

আরও পড়ুন-গ্র্যামির মঞ্চে প্রিয়াঙ্কার পোশাক নিয়ে লাগাতার আক্রমণ, মুখ খুললেন মধু চোপড়া

শনিবার সংসদে গিয়ে রাজনৈতিক বিবাদ ভুলে কংগ্রেস সাংসদ ও সুপ্রিয়া সুলে ও বিজেপি সাংসদ কিরণ খেরের সঙ্গে সেলফি তোলেন মিমি চক্রবর্তী। সেই সেলফি নিজের ইনস্টা হ্য়ান্ডেলে পোস্টও করেন তিনি।

আরও পড়ুন-কনীনিকার মেয়ে অন্তঃকরণা-র মুখে ভাত, ছবি পোস্ট করলেন অভিনেত্রী

এদিকে শনিবার বাজেট নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারকে নিশানা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এছাড়াও বাজেট নিয়ে ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন তৃণমূলের অন্যান্য নেতা ও মন্ত্রীরাও। তৃণমূলের জাতীয় মুখপাত্র ডেরেক ও'ব্রায়েন টুইটারে প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন, দেশের অর্থনীতিকে খাদের কিনারায় ঠেলে দিল বাজেট। আইসিউ থেকে অর্থনীতি চলে গেল ভেন্টিলেটরে। কর্মসংস্থান নিয়ে কোনও কথা নেই। উল্লেখ নেই গরিবদের কথা। রেল, বিএসএনএল, এয়ার ইন্ডিয়া, এখন এলআইসিকে বেচে দেওয়া হল। কৃষকদের আয় দ্বিগুণ করার কথা বলা হয়েছে। কিন্তু কীভাবে সম্ভব? আয়করে ১০০টার মধ্যে ৭০টা ছাড় তো তুলে দেওয়া হয়েছে। মহিলা উন্নতিতে মাত্র ৬৪৪ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে। ৫০ শতাংশ ব্যয় করা হয়েছে বিজ্ঞাপনে।

আগামী অর্থবর্ষে ২.১ লক্ষ কোটি টাকার বিলগ্নিকরণের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। চলতি অর্থবর্ষে সেই লক্ষ্য ১.০৫ লক্ষ কোটি। ১৮ হাজার কোটি টাকাই তুলতে সক্ষম হয়েছে সরকার। ইতিমধ্যেই বিপিসিএল, শিপিং কর্পোরেশন ও কন্টেনার কর্পোরেশনের বেসরকারিকরণের সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্র। এয়ার ইন্ডিয়ার ১০০ শতাংশ অংশীদারিত্ব বিক্রি করতে চেয়ে চাওয়া হয়েছে দরপত্রও। শনিবার নির্মলা সীতারমন ঘোষণা করেন, ''সরকারি অংশ আইপিও (Initial Public Offering)-র মাধ্যমে লাইফ ইনসুরেন্স কর্পোরেশনের (LIC)-র শেয়ার বিক্রি করবে সরকার।''