ডায়াবেটিসের ওষুধে ক্যান্সারের ‘বিষ’! ৫ সংস্থাকে বাজার থেকে ওষুধ তুলে নেওয়ার নির্দেশ FDA-এর

ওষুধের ৪২ শতাংশ নমুনাতেই উচ্চ মাত্রায় (NDMA)-এর উপস্থিতির প্রমাণ মিলেছে। 

Edited By: সুদীপ দে | Updated By: May 31, 2020, 06:08 PM IST
ডায়াবেটিসের ওষুধে ক্যান্সারের ‘বিষ’! ৫ সংস্থাকে বাজার থেকে ওষুধ তুলে নেওয়ার নির্দেশ FDA-এর

নিজস্ব প্রতিবেদন: টাইপ ২ ডায়াবেটিসের রোগীদের যে ওষুধ খাওয়ার পরামর্শ দেন চিকিৎসকরা, এ বার সেই ওষুধেই মিলল কার্সিনোজেন। কার্সিনোজেন হল এমন একটি উপাদান যেটিকে মানব শরীরে ক্যান্সারের জন্য সরাসরি দায়ি করেছেন বিজ্ঞানীরা। এই ‘কার্সিনোজেন’ নামের ‘বিষ’ শরীরে প্রবেশ করলে তা ক্যান্সারের ঝুঁকি বহুগুণ বাড়িয়ে দিতে পারে।

ডায়াবেটিসের ওষুধে কার্সিনোজেনের উপস্থিতির প্রমাণ পেয়ে এ বার নড়েচড়ে বসেছে মার্কিন ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের (FDA) কর্তারা। মোট পাঁচটি ফার্মাসিউটিক্যাল সংস্থার তৈরি টাইপ ২ ডায়াবেটিসের ওষুধ ‘মেটফরমিন’-এর মধ্যেই কার্সিনোজেনের সমতুল্য ক্যান্সার সৃষ্টিকারী ‘বিষ’ এন-নাইট্রো সোডিমেথিলামাইন (NDMA)-এর উপস্থিতির প্রমাণ মিলেছে।

‘মেটফরমিন’-এ কার্সিনোজেনের উপস্থিতির প্রমাণ পাওয়ার পরই ওই পাঁচ ফার্মাসিউটিক্যাল সংস্থাকে তাঁদের তৈরি ওষুধ বাজার থেকে তুলে নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে FDA। তবে একই সঙ্গে বাজার থেকে ডায়াবেটিসের সব ওষুধ তুলে নেওয়ার পর ওই ঘাটতি কী ভাবে পূরণ করা যায়, তা নিয়ে বিচার-বিবেচনা করে দেখছেন মার্কিন ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের (FDA) কর্তারা।

আরও পড়ুন: প্রত্যাশা বাড়িয়ে করোনা প্রতিষেধকের দ্বিতীয় পর্যায়ের ‘হিউম্যান ট্রায়াল’ শুরু করল মোদের্না!

জানা গিয়েছে, গত ফেব্রুয়ারি থেকে আমেরিকার ২২টি ফার্মাসিউটিক্যাল সংস্থার তৈরি ‘মেটফরমিন’-এ কার্সিনোজেনের উপস্থিতির বিষয়টি নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালান FDA-এর গবেষকরা। ২২টি ফার্মাসিউটিক্যাল সংস্থার তৈরি ‘মেটফরমিন’-এর ১৬টি ব্যাচের (১৬টি পর্যায়ে বাজারে ছাড়া) ৪২ শতাংশ নমুনাতেই উচ্চ মাত্রায় (NDMA)-এর উপস্থিতির প্রমাণ মিলেছে। এর পরই পাঁচটি ফার্মাসিউটিক্যাল সংস্থার তৈরি সাম্প্রতিক সবকটি ব্যাচের ‘মেটফরমিন’ ওষুধ বাজার থেকে তুলে নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে FDA। ইতিমধ্যেই ওষুধের ঘাটতি মেটাতে বিকল্প ব্যবস্থা নিতে অন্যান্য ফার্মাসিউটিক্যাল সংস্থাগুলির সঙ্গে আলোচনা চালাচ্ছেন FDA-এর কর্তারা।