Covid Positivity Rate: কেন্দ্রের উদ্বেগের তালিকায় বাংলা, কোভিড পজিটিভিটি রেটে দেশে শীর্ষে কলকাতা

করোনা সংক্রমণ নিয়ে বৃহস্পতিবার দেশের মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠক করবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ওই বৈঠকে এনিয়ে কথা উঠতে পারে

Updated By: Jan 12, 2022, 06:55 PM IST
Covid Positivity Rate: কেন্দ্রের উদ্বেগের তালিকায় বাংলা, কোভিড পজিটিভিটি রেটে দেশে শীর্ষে কলকাতা

নিজস্ব প্রতিবেদন: দেশে বাড়তে থাকা করোনা সংক্রমণের মধ্যে চিন্তা বাড়াচ্ছে কলকাতা। কারণ পজিটিভিটি রেটে এই মুহূর্তে দেশের শীর্ষ কলকাতা। জেলাভিত্তিক পজিটিভিটি রেটে কলকাতা রয়েছে ২ নম্বরে। মহানগরে এক সপ্তাহে ধরা পড়ল ৬০ শতাংশের বেশি পজিটিভিটি। এমনটাই জানিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক। মঙ্গলবার রাজ্যে দৈনিক সংক্রমণ ছিল ২১ হাজারের বেশি। মৃত্যু হয়েছিল ১৯ জনের। একদিনে কলকাতায় সংক্রমিত হয়েছিলেন ৬০০০ এর বেশি মানুষ।

কলকাতার করোনা পরিস্থিতি নিয়ে গত সপ্তাহেই উদ্বেগ প্রকাশ করেছিল কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক। আজ ফের একই উদ্বেগ প্রকাশ করা হল কেন্দ্রের তরফে। বলা হচ্ছে সাপ্তাহিক পজিটিভিটি রেটে গোটা দেশের শহরগুলির মধ্যে শীর্ষে রয়েছে কলকাতা। দেশের আর যেসব শহর নিয়ে কেন্দ্রের উদ্বেগ রয়েছে তার মধ্যে রয়েছে মুম্বই, বেঙ্গালুরু আরবান, থানে, কলকাতা, চেন্নাই, পুনে। এইসব জায়গাগুলিতে শুধুমাত্র ওমিক্রন বাড়ছে শুধু নয়, যারা ওমিক্রন আক্রান্ত হচ্ছেন তাদের মধ্য়ে মৃত্যুর হারও বাড়ছে। 

যেসব রাজ্যে এই মুহূর্তে ওমিক্রন বাড়ছে তার মধ্যে প্রথমেই রয়েছে মহারাষ্ট্র, দ্বিতীয় স্থানে পশ্চিমবঙ্গ(West Bengal)। এর পরেই রয়েছে দিল্লি, তামিলনাড়ু, কর্ণাটক, উত্তরপ্রদেশ, কেরল ও গুজরাট। উত্তর প্রদেশে গত সপ্তাহের তুলনায় করোনা সংক্রমণের হার ১৪ শতাংশ বেড়েছে। ফেব্রুয়ারিতে উত্তর প্রদেশে বিধানসভা নির্বাচনের কথা মাথায় রাখলে এই পরিসংখ্যান খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকে তরফে জানানো হয়েছে, গত এক সপ্তাহে মুম্বইয়ে পজিটিভিটি রেট বেড়ে হয়েছে ২৬.৯ শতাংশ, বেঙ্গালুরু আরবানে ১২.২৯ শতাংশ, থানেতে ৩১.৫৪ শতাংশ, কলকাতায় এই হার ৬০.২৯ শতাংশ লক্ষ্য করা গিয়েছে। অর্থাত্ কলকাতায় সংক্রমণ বাড়ছে খুব দ্রুত। এবারও মহারাষ্ট্রে আক্রান্তের সংখ্যা বেশি। উদ্ধব ঠাকরের রাজ্যে পজিটিভিটির হার ২২.৩৯ শতাংশ, দিল্লিতে ২৩.১ শতাংশ, বাংলায় এই হার ৩২.১৮ শতাংশ।

স্বাস্থ্য মন্ত্রকের তরফে দেওয়া পরিসংখ্যান অনুযায়ী সাপ্তাহিক পজিটিভিটি রেট দেশের ৩০০ জেলায় ৫ শতাংশের উপরে। পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে কোন পজিটিভিটি রেটের ক্ষেত্রে কী পদক্ষেপ করতে হবে তারা একটা গাইডলাইনও দিয়েছে কেন্দ্র। এক্ষেত্রে ৫ শতাংশ পজিটিভিটি রেটকে(Positivity Rate) বেঞ্চমার্ক হিসেবে রাখা হয়েছে। বলা হয়েছে, ৫ শতাংশের উপরে পজিটিভিটি রেট থাকলে রেড অ্যালার্ট জারি করতে হবে। সেখানে পুরোপুরি লকডাউন(Lockdown) জারি করা যেতে পারে। এখন দেখা যাচ্ছে দেশের ৩০০টি জায়গাতে পজিটিভিটি রেট ৫ শতাংশর উপরে। ফলে আতঙ্কের যথেষ্ট কারণ রয়েছে। অন্যদিকে, কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, যারা টিকা পেয়েছেন তাদের মধ্যে ৭৮ শতাংশের উপরে করোনার মারণ কোনও প্রতিক্রিয়া হওয়ার সম্ভাবনা কম। কিন্তু যাদের ভ্যাকসিন দেওয়া নেই তাদের ক্ষেত্রে ওমিক্রন যথেষ্ট চিন্তার কারন।

আরও পড়ুন- গড়ে রোজ ১২-১৪ শিশু আক্রান্ত, Midnapore Medical-এ শিশুদের জন্য পৃথক Covid ওয়ার্ড

এদিকে, করোনা সংক্রমণ নিয়ে বৃহস্পতিবার দেশের মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠক করবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী(Narendra Modi)। ওই বৈঠকে এনিয়ে কথা উঠতে পারে। সংক্রমণ নিয়ে বিশিষ্ট চিকিত্সক সুমন পোদ্দার বলেন, মুম্বই, দিল্লিতে যখন তৃতীয় ঢেউ শুরু হয়ে গিয়েছিল তখন কলকাতায় তা ধীরে ধীরে বাড়ছিল। আমরা তখন সাবধান হইনি। আমরা ২৫ ডিসেম্বর পালন করেছি, পয়লা জানুয়ারি করেছি। সেইসময় অনেক কিছুই করতে পারিনি। তার একটা আফটার এফেক্ট হবেই। টেস্ট করতে দেরি হওয়ার কারণে আমাদের একটু বেশিদিন ভুগতে হবে।    

প্রসঙ্গত, গত ২৪ ঘণ্টায় গোটা দেশে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ১,৯৪,৭২০ জন। এদের মধ্যে ওমিক্রন আক্রান্ত ৪৮৬৮ জন। এমন এক পরিস্থিতিতে রাজ্যগুলিকে পর্যাপ্ত অক্সিজেন মজুত রাখতে বলল কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক। পাশাপাশি অক্সিজেন প্ল্য়ান্টগুলিকে সচল রাখা ও অক্সিজেন কনসেনট্রেটর তৈরি রাখার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। কারণ রোজই বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা ও আক্রান্তের হার।

কেন্দ্রের এই নির্দেশিকা নিয়ে বিশিষ্ট চিকিত্সক অরিন্দম বিশ্বাস জি ২৪ ঘণ্টাকে বলেন, ভালো লাগছে যে কেন্দ্র এখন বুঝতে পারছে যে সমস্যা এখন গভীরে। কেন এমন পরিস্থিতি তার কারণ রয়েছে। পঞ্জাবে একদিনে লেগেছিল ৬২ জনের অক্সিজেন। পরদিনই অক্সিজেন লেগেছিল ২৬২ জনের। তার মানে ওমিক্রন হোক বা অন্যকিছু অক্সিজেন এখনও লাগছে এক শ্রেণির মানুষের। যে কোনও সময়ে কারও অক্সিজেনের প্রয়োজন হতে পারে। তাই কেন্দ্র যা বলেছে তা ঠিকই।  

  (Zee 24 Ghanta App দেশ, দুনিয়া, রাজ্য, কলকাতা, বিনোদন, খেলা, লাইফস্টাইল স্বাস্থ্য, প্রযুক্তির লেটেস্ট খবর পড়তে ডাউনলোড করুন Zee 24 Ghanta App)