আর মাত্র ২ দিনের অপেক্ষা! বাজারে আসতে চলেছে বিশ্বের প্রথম করোনার টিকা!

সেপ্টেম্বর থেকেই এই টিকার উৎপাদনের গতি আরও বাড়ানো হবে। এ বছরের মধ্যেই সাড়ে ৪ কোটিরও বেশি পরিমাণ টিকার ডোজ তৈরি করবেন বিজ্ঞানীরা...

Edited By: সুদীপ দে | Updated By: Aug 9, 2020, 02:17 PM IST
আর মাত্র ২ দিনের অপেক্ষা! বাজারে আসতে চলেছে বিশ্বের প্রথম করোনার টিকা!
—প্রতীকী চিত্র।

নিজস্ব প্রতিবেদন: সারা বিশ্বে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ইতিমধ্যেই ১ কোটি ৯৮ লক্ষ ছাড়িয়েছে। এই ভাইরাসে এখনও পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ৭ লক্ষ ২৯ হাজার ৭৪৮ জনের। ভারতেও করোনা পরিস্থিতি ক্রমশ উদ্বেগজনক হচ্ছে। বিগত ২৪ ঘণ্টায় ৬৪ হাজারেরও বেশি মানুষ নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এই পরিস্থিতিতে বড় খবর শোনালেন রুশ বিজ্ঞানীরা। তাঁরা জানিয়ে দিলেন, আগামী সপ্তাহেই বাজারে ছাড়া হবে বিশ্বের প্রথম করোনার প্রতিষেধক।

রাশিয়ার গামালেই ইনস্টিটিউট অব এপিডেমিওলজি অ্যান্ড মাইক্রোবায়োলজি (Gamalei Institute of Epidemiology and Microbiology) তৈরি করেছে এই প্রতিষেধক। শনিবার রুশ সংবাদ মাধ্যম জানায়, আগামী ১২ অগাস্ট বাজারে চলে আসবে বিশ্বের প্রথম করোনার প্রতিষেধক। ইতিমধ্যেই বিশ্বের প্রথম দেশ হিসাবে করোনা প্রতিষেধকের হিউম্যান ট্রায়াল পর্ব শেষ করে ফেলেছে রাশিয়া!

রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রক জানিয়েছে, ১,৬০০ জন স্বেচ্ছাসেবকের উপর এই টিকা প্রয়োগ করে দেখা হয়েছে। ট্রায়ালে দেখা গিয়েছে, এই টিকা করোনার বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়তে সক্ষম হয়েছে। স্বেচ্ছাসেবীদের শরীরেও এই টিকার প্রয়োগে কোনও রকম পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া বা সমস্যা দেখা দেয়নি। রুশ সংবাদমাধ্য TASS-কে সে দেশের শিল্পমন্ত্রী ডেনিস মন্তুরভ (Denis Manturov) জানান, সেপ্টেম্বর থেকেই এই টিকার উৎপাদনের গতি আরও বাড়ানো হবে।

গত সপ্তাহে রুশ স্বাস্থ্যমন্ত্রী মিখাইল মুরশকো জানান, সামনের মাসেই বাজারে টিকা ছাড়ার আদেশ ইতিমধ্যে জারি হয়ে গিয়েছে। দ্রত গতিতে চলছে টিকা উৎপাদনের কাজ। এ বছরের মধ্যেই সাড়ে ৪ কোটিরও বেশি পরিমাণ প্রতিষেধকের ডোজ তৈরি করতে পারবে রাশিয়া। তবে প্রতিষেধক উৎপাদনের পাশাপাশি চলবে এটির তৃতীয় পর্যায়ের ট্রায়ালও।

আরও পড়ুন: মার্কিন সংস্থা Novavax-এর শক্তিশালী করোনা টিকাও তৈরি হবে ভারতেই! দায়িত্ব পেল সেরাম ইনস্টিটিউট

গত মঙ্গলবারই WHO-এর মুখপাত্র খ্রিশ্চিয়ান লিন্ডমিয়ার বৃহত্তর ক্ষেত্রে জনস্বাস্থ্য সুরক্ষার কথা মাথায় রেখে রাশিয়াকে টিকা তৈরির ক্ষেত্রে সঠিক পদ্ধতি, প্রতিষ্ঠিত সুরক্ষা বিষয়ক সমস্ত নিয়ম-কানুন মেনে চলার অনুরোধ জানান। মার্কিন অ্যালার্জি এবং সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ ডঃ অ্যান্থনি ফৌসি রাশিয়ার তৈরি করোনা প্রতিষেধকের সুরক্ষা, কার্যকারিতা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেন। তবে সমস্ত জল্পনা, বিতর্ক উড়িয়ে গামালেই ইনস্টিটিউটের তৈরি করোনার টিকা আগামী ১২ অগাস্টই বাজারে ছাড়ার সিদ্ধান্তে অনড় রাশিয়া।