সুরক্ষার সঙ্গে আপোষ নয়! করোনার টিকা তৈরির ক্ষেত্রে রাশিয়াকে সঠিক পদ্ধতি মেনে চলতে বলল WHO

করোনার টিকা তৈরির ক্ষেত্রে রাশিয়াকে সঠিক পদ্ধতি, প্রতিষ্ঠিত সুরক্ষা বিষয়ক নিয়ম-কানুন মেনে চলতে বলল WHO।

Edited By: সুদীপ দে | Updated By: Aug 5, 2020, 09:04 PM IST
সুরক্ষার সঙ্গে আপোষ নয়! করোনার টিকা তৈরির ক্ষেত্রে রাশিয়াকে সঠিক পদ্ধতি মেনে চলতে বলল WHO
WHO-এর মুখপাত্র খ্রিশ্চিয়ান লিন্ডমিয়ার। ছবি: সংগৃহীত।

নিজস্ব প্রতিবেদন: আদৌ কি প্রতিষেধক তৈরিতে সমস্ত সুরক্ষা, কার্যকারিতা পরীক্ষার নিয়ম-কানুন মানা হয়েছে রাশিয়ার গামালেই ইনস্টিটিউটের তৈরি করোনা টিকার ক্ষেত্রে? প্রশ্ন তুলতে শুরু করেছিলেন বিজ্ঞানীরা। কারণ, এক মাসেরও কম সময়ে কী করে তিন পর্যায়ে হিউম্যান ট্রায়াল শেষ করছে রাশিয়া? এত অল্প সময়ের মধ্যে কী আদৌ কোনও প্রতিষেধকের সুরক্ষা, কার্যকারিতা পরীক্ষা করে সে বিষয়ে নিশ্চিত হওয়া সম্ভব? এ বার এই প্রসঙ্গে মুখ খুলল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO)। করোনার টিকা তৈরির ক্ষেত্রে রাশিয়াকে সঠিক পদ্ধতি, প্রতিষ্ঠিত সুরক্ষা বিষয়ক নিয়ম-কানুন মেনে চলতে বলল WHO।

রুশ সংবাদ মাধ্যম জানায়, আগামী ১০ থেকে ১২ অগাস্টের মধ্যেই বাজারে চলে আসবে বিশ্বের প্রথম করোনার প্রতিষেধক। ইতিমধ্যেই বিশ্বের প্রথম দেশ হিসাবে করোনা প্রতিষেধকের হিউম্যান ট্রায়াল পর্ব শেষ করে ফেলেছে রাশিয়া! গত সপ্তাহে রুশ স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান, সামনের মাসেই বাজারে টিকা ছাড়ার আদেশ ইতিমধ্যে জারি হয়ে গিয়েছে। দ্রত গতিতে চলছে টিকা উৎপাদনের কাজ। এ বছরের মধ্যেই সাড়ে ৪ কোটিরও বেশি পরিমাণ প্রতিষেধকের ডোজ তৈরি করতে পারবে রাশিয়া। অক্টোবর থেকেই দেশের জনসংখ্যার একটা বড় অংশকে করোনার টিকা দেওয়ার কথা জানায় রুশ স্বাস্থ্যমন্ত্রক। এর পরই এ বিষয়ে WHO-এর প্রতিক্রিয়া সামনে আসে।

আরও পড়ুন: ভারতে আরও সস্তা হল Favipiravir! করোনার ওষুধ এবার মিলবে মাত্র ৩৫ টাকায়!

মঙ্গলবার WHO-এর মুখপাত্র খ্রিশ্চিয়ান লিন্ডমিয়ার জানান, ওষুধ হোক বা টিকা, বাজারে ছাড়ার আগে সেগুলির সুরক্ষা ও কার্যকারিতার সমস্ত দিক খতিয়ে দেখা বাঞ্ছনীয়। এর জন্য নির্দিষ্ট নির্দেশিকাও রয়েছে। এগুলির সুরক্ষা, কার্যকারিতা বা কোনও বিরুপ প্রতিক্রিয়া আছে কিনা, সে সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া জরুরি। বৃহত্তর ক্ষেত্রে জনস্বাস্থ্য সুরক্ষার কথা মাথায় রেখে রাশিয়াকে টিকা তৈরির ক্ষেত্রে সঠিক পদ্ধতি, প্রতিষ্ঠিত সুরক্ষা বিষয়ক সমস্ত নিয়ম-কানুন মেনে চলার অনুরোধ জানায় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO)।