কলকাতায় কেন ৩ হাজার কোটির স্বামীজি-নেতাজির মূর্তি হবে না? BJP-কে নিশানা Abhishek-র

এ দিন স্বামী বিবেকানন্দের জন্মদিন উপলক্ষে পদযাত্রা করে তৃণমূল। হাজরায় অভিষেকের নিশানায় আগাগোড়াই ছিল বিজেপি।

Updated By: Jan 12, 2021, 05:25 PM IST
কলকাতায় কেন ৩ হাজার কোটির স্বামীজি-নেতাজির মূর্তি হবে না? BJP-কে নিশানা Abhishek-র

নিজস্ব প্রতিবেদন: স্বামী বিবেকানন্দের জন্মদিনের জন্মদিনে রাজনীতির কথা বলবেন না বলে ভাষণের শুরুতেই জানিয়েছিলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় (Abhishek Banerjee)। তবে 'রাজনীতি' চলেই এল। তা সে অন্য রাজনৈতিক মিছিলের সঙ্গে স্বতঃস্ফূর্ততার তুলনা হোক বা ধর্মীয় বিভাজনের কথা -বিজেপিকে নিশানা করলেন ডায়মন্ড হারবারের তৃণমূল সাংসদ। বিজেপির বিবেকানন্দ-ভক্তি নিয়ে প্রশ্ন তুলে অভিষেক বলেন,'গুজরাটে ৩৫০০ কোটি টাকা খরচ করে তৈরি হল সর্দার বল্লভভাই পটেলের মূর্তি। তার প্রতিবাদ করছি না। কিন্তু, কেন কলকাতার বুকে ৩ হাজার কোটি টাকা খরচ করে নেতাজি বা বিবেকানন্দের মূর্তি হবে না? এই প্রশ্ন জাগছে সাধারণ মানুষের মনে।'   

এ দিন স্বামী বিবেকানন্দের জন্মদিন উপলক্ষে পদযাত্রা করে তৃণমূল (TMC)। হাজরায় অভিষেকের নিশানায় আগাগোড়াই ছিল বিজেপি। তৃণমূল সাংসদ (Abhishek Banerjee) বলেন,'একদিনের নোটিসে মিছিল করেছি। মানুষের বিশ্বাস, উচ্চাশা ও আকাঙক্ষাকে তুলনা করলে অন্য রাজনৈতিক দলের মিছিল ১০-০ গোলে হেরে যাবে। এটা গুজরাট নয়। বাংলায় ধর্মে ধর্মে বিভাজন করা যাবে না। স্বামীজির (Swami Vivekananda) ছবি সামনে রেখে ২০১৪ সালে প্রচার করেছিল। তারপর বেলুড়মঠকে ন্যূনতম সম্মান দেয়নি। গুজরাটে ৩,৫০০ কোটি টাকায় তৈরি হল সর্দার বল্লভভাই পটেলের মূর্তি। আমরা প্রতিবাদ করিনি। কিন্তু, কেন কলকাতার বুকে ৩ হাজার কোটি খরচ করে স্বামী বিবেকানন্দ ও নেতাজি সুভাষচন্দ্রের মূর্তি তৈরি হবে না?'

নারীর ক্ষমতায়নে স্বামী বিবেকানন্দের (Swami Vivekananda) আদর্শ মেনেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) চলছেন বলে দাবি করেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় (Abhishek Banerjee)। তাঁর কথায়,'স্বামীজির দীক্ষা, শিক্ষা নিয়ে মানবসেবার কাজ করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নারীর ক্ষমতায়নের কথা বলেছিলেন স্বামীজি। কন্যাশ্রী, রূপশ্রীর মাধ্যমে সেই কাজই করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। স্বাস্থ্যসাথী কার্ড বাড়ির গৃহকর্ত্রীর হাতে তুলে দিয়েছেন।'

নাগরিকত্ব বিল নিয়ে স্বামীজির প্রসঙ্গ তুলেছেন অভিষেক (Abhishek Banerjee)। তাঁর কথায়, 'স্বামীজি (Swami Vivekananda) বলে গিয়েছিলেন নাকি ৩-৪টি ধর্মের লোককে নাগরিকত্ব দেবে। বিবেকানন্দের নাম মুখে আনার অধিকার নেই ওদের। সর্বধর্ম সমন্বয়, সহিষ্ণুতার কথা বলেছেন স্বামীজি (Swami Vivekananda)। বর্তমান শাসক দল বিদ্বেষ ও সাম্প্রদায়িকতার ছড়িয়ে দিয়েছে।' বিজেপিকে (BJP) 'বহিরাগত' দল বলে নিশানা করেছে চলেছে তৃণমূল নেতৃত্ব। এ দিন ফের সেই সুরেই অভিষেক বলেন,'ডোনাল্ড ট্রাম্পকে নিয়ে এল। স্বামী বিবেকানন্দের নাম উচ্চারণ করতে পারেননি। পাশে বসে হাততালি দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী। ডোনাল্ড ট্রাম্পের থেকে মাইক কেড়ে বলা উচিত ছিল, আগে নামটা ঠিক করে উচ্চারণ করে দেখাও। আমি রাজনৈতিক কথা বলব না। আমরা এত নীচে নামিনি স্বামীজির ছবি ব্যবহার করে বিজেপির প্রশ্নের জবাব দিতে হবে। ওরা ঈশ্বরচন্দ্রের মূর্তি ভাঙে। বলছে বাংলায় বাঙালিদের চেয়ে অবাঙালিদের অবদান বেশি। সহজপাঠ লিখেছেন ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর। এদের ক্ষমা করবে না মানুষ। বাংলার কৃষ্টি, সংস্কৃতি ও ঐতিহ্য জানে না।'

আরও পড়ুন- 'বৃহত্ ষড়যন্ত্রের অংশ, গ্রেফতারি চাই শোভনের', বিস্ফোরক Kunal