#উৎসব: অষ্টমীর অঞ্জলিতে কেন মাইকে মন্ত্রপাঠ? মুখ্যমন্ত্রী ও পুলিস কমিশনারকে আক্রমণ বামনেতার

ফেসবুক পোস্টে ক্ষোভ উগরে দিলেন তিনি।

Updated By: Oct 13, 2021, 10:05 PM IST
 #উৎসব: অষ্টমীর অঞ্জলিতে কেন মাইকে মন্ত্রপাঠ? মুখ্যমন্ত্রী ও পুলিস কমিশনারকে আক্রমণ বামনেতার

নিজস্ব প্রতিবেদন: মহাষ্ঠমীর সকালে পুষ্পাঞ্জলি ছাড়া বাঙালির পুজো অসম্পূর্ণ। কিন্তু মাইকে মন্ত্রোচ্চারণ কেন? ফেসবুকে ক্ষোভ উগরে দিলেন কলকাতার প্রাক্তন মেয়র, সিপিএম নেতা বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য। বেনজির আক্রমণ করলেন পুলিস কমিশনার, এমনকী মুখ্যমন্ত্রীকেও।

গত বছর করোনার জন্য পুজো বন্ধের দাবিতে মামলা লড়েছিলেন হাইকোর্টে। বাঙালিদের কাছে রীতিমতো ভিলেন বনে গিয়েছিলেন বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য। এবারও পুজোর সময়ে ফের বিতর্কে জড়ালেন এই বামনেতা। এবার মহাষ্টমীতে অঞ্জলির সময়ে মাইকে মন্ত্রোচ্চারণের বিরোধিতা করলেন তিনি। ফেসবুক পোস্টে বিকাশরঞ্জন লিখেছেন, 'এ শহরে নেই মহানাগরিক। আছে ,এক মুখ্যমন্ত্রী। অপরাধী মুখ্যমন্ত্রী। তাদের কাছে নাগরিকদের কোন বিশেষ আশা নেই।  কিন্তু, এক নগরপাল তো আছেন, আইনশৃঙ্খলা রক্ষার দায়প্রাপ্ত। আইনের অনুশাসন রক্ষা করা যার প্রাথমিক কর্তব্য। তিনি কি বধির? মাইকে চলছে উন্মত্ত চীৎকার। শব্দদূষণ কথাটাই যেন অবলুপ্ত হয়ে গেছে। মন্ত্রপাঠ ব্যক্তিগত আচরণের বিষয়। চিলচিৎকারে অবোধ্য কিছুশব্দ জোর করে শোনাতে হবে? সেটা কোন সংস্কৃতির অঙ্গ তা আমার জানা নেই।  নগরপাল একটু নড়াচড়া করুন। কঠোর ভাবে আইন প্রয়োগ করুন'।

 

নেটিজেনদের কী প্রতিক্রিয়া? সকাল থেকে ফেসবুকে নাস্তিক বামনেতার কমেন্ট করছেন অনেকেই। কেউ লিখেছেন, 'সহমত। কিন্তু, সমান্তরাল ভাবে আজানটাও ব্যাক্তিগত। তাহলে সেই চিলচিৎকারে প্রতিদিন এতবার করে শুনতে হবে কেন'?  আবার কারও মতে, 'ভুক্তভোগী ও অতি সত্য। কিন্তু, আমার মনে হয় বর্তমান পরিস্থিতিতে এই পোষ্ট বিতর্ক ছড়াবে'। সবাই যে বিরোধিতা করছেন, এমনটা কিন্তু নয়। 'সকাল থেকে রাত এক ভাবে চলছে কানের সামনে মাইক। তাতে কখনও তারোস্বরে গান আর কখনও মন্ত্র পাঠ। বারণ করলে চোখ রাঙায়', কিংবা 'যারা অঞ্জলি দিতে যাচ্ছেন তাদের শোনানোর জন্যে একটা বক্সই যথেষ্ট। তা না করে সাড়া পাড়ার মাথা খাচ্ছে'। এমন মন্তব্যও করেছেন কেউ কেউ।  

(Zee 24 Ghanta App : দেশ, দুনিয়া, রাজ্য, কলকাতা, বিনোদন, খেলা, লাইফস্টাইল স্বাস্থ্য, প্রযুক্তির লেটেস্ট খবর পড়তে ডাউনলোড করুন Zee 24 Ghanta App)