সোনারপুর খাল থেকে উদ্ধার নিখোঁজ ব্যবসায়ীর দেহ

অবশেষে মিলল বৌবাজার থেকে নিখোঁজ ব্যবসায়ী নীতীশ জয়সওয়ালের দেহ। মঙ্গলবার গভীর রাতে সোনারপুর স্টেশন সংলগ্ন একটি খাল থেকে উদ্ধার হয় তাঁর দেহ। দেহে কোনও আঘাতের চিহ্ন না থাকায় পুলিসের প্রাথমিক অনুমান, শ্বাসরোধ করেই সম্ভবত খুন করা হয়েছে নীতীশ জয়সওয়ালকে।

Updated By: Feb 22, 2012, 03:19 PM IST

অবশেষে মিলল বৌবাজার থেকে নিখোঁজ ব্যবসায়ী নীতীশ জয়সওয়ালের দেহ। মঙ্গলবার গভীর রাতে সোনারপুর স্টেশন সংলগ্ন একটি খাল থেকে উদ্ধার হয় তাঁর দেহ। দেহে কোনও আঘাতের চিহ্ন না থাকায় পুলিসের প্রাথমিক অনুমান, শ্বাসরোধ করেই সম্ভবত খুন করা হয়েছে নীতীশ জয়সওয়ালকে।

মঙ্গলবার রাত আড়াইটে নাগাদ বউবাজার থানায় একটি ফোন আসে। বলা হয় সোনারপুর স্টেশন সংলগ্ন খালে একটি দেহ উদ্ধার হয়েছে। যার সঙ্গে মিল রয়েছে বৌবাজারের নিখোঁজ ব্যবসায়ী নীতীশ জয়সওয়ালের। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় পুলিস। তারপরই দেখা যায়, বৌবাজার থানায় নীতীশ জয়সওয়ালের পরিবার অপহরণের অভিযোগ
দায়েরের সময় যে বর্ণনা দিয়েছিলেন, উদ্ধার হওয়া দেহের সঙ্গে তার মিল ছিল। বিশেষ করে মৃতের ঘড়ি, জামা এবং জুতোর বর্ণনা প্রায় সবটাই মিলে গিয়েছিল। দেহটি নিয়ে আসা হয় কাঁটাপুকুর মর্গে। সনাক্তকরণের জন্য খবর দেওয়া হয় ব্যবসায়ীর পরিবারকে। শেষপর্যন্ত নীতীশ জয়সওয়ালের দুই আত্মীয় এসে দেহটি সনাক্ত করেন। দেহে কোনও আঘাতের চিহ্ন না থাকায়  প্রাথমিক ভাবে পুলিসের অনুমান, শ্বাসরোধ করে খুন করা হয়েছে নীতীশ জয়সওয়ালকে। যদিও ঠিক কী ভাবে তাঁকে খুন করা হয়েছে, ময়নাতদন্তের পরই তা স্পষ্ট হবে বলে জানিয়েছেন তদন্তকারী পুলিস অফিসাররা।
সোমবার বিকেল থেকে রহস্যজনক ভাবে নিখোঁজ ছিলেন বৌবাজারের টেম্পল স্ট্রিটের বাসিন্দা নীতীশ জয়সওয়াল। ধর্মতলায় নিজের দোকানে যাচ্ছেন বলে বাড়ি থেকে বেরিয়ে, আর ফেরেননি। অপহরণ করা হয়েছে। এই মর্মে সোমবার বৌবাজার থানায়
মিসিং ডাইরি করেন নীতীশ জয়সওয়ালের বাড়ির লোকজন। এঅবস্থায় মঙ্গলবার গড়িয়ার পাটুলিতে একটি খাল থেকে উদ্ধার হয় নীতীশ জয়সওয়ালের মানিব্যাগ। তারপরই রহস্য আরও ঘণীভূত হয়। পুলিস বাইপাস সংলগ্ন সমস্ত থানাকে সতর্ক করে দেয়। কারণ পুলিসের ধারণা হয়েছিল, দুষ্কৃতীরা হয়ত বাইপাস ব্যবহার করেছে। তবে সেটা পুলিসকে
বিভ্রান্ত করতেই করা হয়েছিল। এমনাই মনে করেন তদন্তকারী অফিসাররা। ব্যবসায়ী খুনের ঘটনায় সোনারপুর থানায় ৩০২ ধারায় একটি খুনের মামলা দায়ের করা হয়েছে। খোঁজ চলছে নীতীশ জয়সওয়ালের সুদের ব্যবসায় যারা জড়িত ছিলেন, তাঁদের। কারণ পুলিসের অনুমান, সুদের ব্যবসার সঙ্গে খুনের কোনও যোগাযোগ রয়েছে।