Fake Vaccine Case: স্বস্তিতে রাজ্য সরকার, সিবিআই তদন্তের দাবি খারিজ হাইকোর্টের

সমস্ত মামলার নিষ্পত্তি করে দিল আদালত।

Updated By: Jul 9, 2021, 02:59 PM IST
Fake Vaccine Case: স্বস্তিতে রাজ্য সরকার, সিবিআই তদন্তের দাবি খারিজ হাইকোর্টের

নিজস্ব প্রতিবেদন: ভুয়ো ভ্যাকসিন মামলায় স্বস্তিতে রাজ্য। সিবিআই তদন্তের দাবি খারিজ করে দিল কলকাতা হাইকোর্ট। আদালতের পর্যবেক্ষণ, 'এটা বিরল অপরাধ। দেবাঞ্জন কীভাবে এমন ঘটনা  ঘটাল, তা আশ্চর্যের'। স্রেফ সিবিআই তদন্ত চেয়ে জনস্বার্থ মামলাই নয়, সবকটি মামলারই নিষ্পত্তি হয়ে গেল। 

ভুয়ো টিকাকাণ্ডে এখনও পর্যন্ত কী কী পদক্ষেপ করা হয়েছে? জনস্বার্থ মামলার প্রেক্ষিতে ইতিমধ্যেই হাইকোর্টে হলফনামা দাখিল করেছে রাজ্য সরকার। হলফনামায় উল্লেখ, অভিযুক্ত দেবাঞ্জন দেবের বাড়ি থেকে প্রচুর ভায়েল উদ্ধার করেছেন তদন্তকারী অফিসাররা। ওই ভায়েলের উপরে কোভিশিল্ডের লেভেল লাগানো ছিল। দেবাঞ্জন নিজেই জানিয়েছে, সেরাম ইনস্টিটিউটকে মেল করেছিল সে। পাশাপাশি, যে আইপি অ্যাড্রেস থেকে এই মেল করা হয়েছিল, সেই আইপি অ্যাড্রেসটি জানতে গুগল কর্তৃপক্ষকে চিঠি দিয়েছে কলকাতা পুলিস। অভিযুক্তের বাড়ি থেকে উদ্ধার হওয়া ল্যাপটপ ও ফোনের আইপি অ্যাড্রেসও জানার চেষ্টা চলছে।  জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছেন দুই তৃণমূল সাংসদ মিমি চক্রবর্তী ও শান্তনু সেন-কে।

আরও পড়ুন: Upper Primary Tet: নয়া নিয়োগ তালিকায় নাম না থাকার অভিযোগ, SSC ভবনে বিক্ষোভ

এদিন শুনানিতে সিবিআই তদন্তের পক্ষে সওয়াল করতে গিয়ে সারদা মামলার প্রসঙ্গ তোলেন মামলাকারীর আইনজীবী বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য। বলেন, 'ভুয়ো ভ্যাকসিনকাণ্ড বৃহত্তর ষড়যন্ত্র। এই ঘটনার সঙ্গে জনস্বার্থ জড়িত'। বাদ যায়নি দেবাঞ্জনের সঙ্গে রাজ্যপালের দেহরক্ষীর ছবির বিষয়টিও। সরকারি আইনজীবীর পাল্টা সওয়াল, 'রাজ্যপালের দেহরক্ষীর সঙ্গে দেবাঞ্জনের ছবি প্রকাশ্য়ে এসেছে। তাহলে কি রাজ্যপালকেও কাঠগড়ায় তোলা হবে? এটা দেশের আইন নয়'। আদালতের কাছে আর্জি জানান, 'ভুয়ো ভ্যাকসিনকাণ্ডে সিট গঠন করে তদন্তে নেমেছে পুলিস। একাধিক ব্যক্তিকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। রাজ্যকেই তদন্ত চালিয়ে যাওয়ার অনুমতি দেওয়া হোক'। 

দু''পক্ষের সওয়াল-জবাব শোনার পর সিবিআই তদন্তের আর্জি খারিজ করে দিল হাইকোর্টের বিচারপতি ইন্দ্রপ্রসন্ন মজুমদারের ডিভিশন বেঞ্চ। জানানো হল, ''ভুয়ো ভ্য়াকসিকাণ্ডে আপাতত সিবিআই তদন্তের প্রয়োজন নেই। পরে যদি দেখা যায়, রাজ্য সরকারের তদন্তে তেমন কোনও অগ্রগতি হয়নি, তাহলে বিষয়টি বিবেচনা করা হবে'। এদিকে আবার ভুয়ো ভ্যাকসিনকাণ্ডে ইডির তৎপরতা তুঙ্গে। ইতিমধ্যেই সবুজ সংকেত দিয়েছে দিল্লি। এদিন কেস ইনফরমেশন রিপোর্ট (ECIR) বা FIR দায়ের করতে চলেছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থাটি। সূত্রের খবর তেমনই।

(Zee 24 Ghanta App : দেশ, দুনিয়া, রাজ্য, কলকাতা, বিনোদন, খেলা, লাইফস্টাইল স্বাস্থ্য, প্রযুক্তির লেটেস্ট খবর পড়তে ডাউনলোড করুন Zee 24 Ghanta App)