বিশ্বাস-ভরসা করে ভোট দিয়েছেন মানুষ, উদাহরণ তুলে ধরুন, Mukul-কে বার্তা Dilip-র

শিবির বদলেছেন মুকুল (Mukul Roy)। তাঁর বিধায়ক পদ নিয়ে চলছে টানাপোড়েন। 

Updated By: Jun 15, 2021, 08:39 PM IST
বিশ্বাস-ভরসা করে ভোট দিয়েছেন মানুষ, উদাহরণ তুলে ধরুন, Mukul-কে বার্তা Dilip-র

নিজস্ব প্রতিবেদন: অভিজ্ঞ রাজনীতিক হিসেবে উদাহরণ তুলে ধরার জন্য মুকুলকে (Mukul Roy) পরামর্শ দিলেন দিলীপ ঘোষ (Dilip Ghosh)। তাঁর বার্তা, দল ছেড়েছেন। বিধানসভার সদস্যপদ ছেড়ে দেওয়া উচিত। 
     
শিবির বদলেছেন মুকুল (Mukul Roy)। তাঁর বিধায়ক পদ নিয়ে চলছে টানাপোড়েন। শুভেন্দু অধিকারী ইতিমধ্যেই হুঁশিয়ারি দিয়েছেন, মঙ্গলবারের মধ্যে পদত্যাগ না করলে বুধবার যথাবিহিত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য বিধানসভার অধ্যক্ষর কাছে আবেদন করবেন। মঙ্গলবার ইস্তফা দেননি মুকুল (Mukul Roy)। উপরন্তু সাংবাদিকদের তিনি জানান,''আইনে যা আছে তাই হবে।'' তবে এনিয়ে জটিলতা চাইছেন না দিলীপ (Dilip Ghosh)। তাঁর কথায়,''উনি সিনিয়র নেতা। তাঁকে বিশ্বাস-ভরসা করে ভোট দিয়েছিলেন মানুষ। সেজন্য ওঁর উদাহরণ তুলে ধরা উচিত। দল ছেড়েছেন। বিধানসভার সদস্যপদও ছেড়ে দেওয়া উচিত।''

দলত্যাগ বিরোধী আইন সংবিধানে রয়েছে বলে মনে করিয়ে দেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি। তিনি বলেন,''সবার জন্য প্রযোজ্য দলত্যাগ বিরোধী আইন। বিধানসভায় দলত্যাগ হলে স্পিকারের ইচ্ছা-অনিচ্ছা গুরুত্বপূর্ণ হয়ে ওঠে। সিপিএম ও কংগ্রেস বিধায়করা ছেড়েছিলেন। সহায়তা করেননি স্পিকার। পরবর্তীকালে আমাদের দলেও এসেছেন অনেকে। কারও ক্ষেত্রেই ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। মানুষের সমর্থন নিয়ে জেতার পর দল ছেড়ে চলে যাওয়া ঠিক নয়। সেজন্য আইন রয়েছে। আইনের ব্যবহারও হবে।''

ক্ষমতার লোভে দলে দলে বিজেপিতে ভিড় হয়েছিল বলে মেনে নিয়েছেন দিলীপ। তাঁর বক্তব্য,''২০১৯ সালের পর ৪০ শতাংশ ভোটে ১৮ আসন পেয়েছিল বিজেপি। লাখে লাখে মানুষ এসেছিলেন। কিছু লোক ভেবেছিলেন ক্ষমতায় আসতে পারবে দল। ক্ষমতায় আসনি। তাঁরা চলে যাচ্ছেন। লক্ষ লক্ষ কর্মীরা আছেন। তাঁদের নিয়ে লক্ষ্যে পৌঁছব।'' 

আরও পড়ুন- Dilip-র জায়গায় BJP-র রাজ্য সভাপতি পদে 'বাংলার মেয়ে'কে চাইছে কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব!

(Zee 24 Ghanta App দেশ, দুনিয়া, রাজ্য, কলকাতা, বিনোদন, খেলা, লাইফস্টাইল স্বাস্থ্য, প্রযুক্তির লেটেস্ট খবর পড়তে ডাউনলোড করুন Zee 24 Ghanta App)