Special B.ED: টেট পরীক্ষায় বসছে স্পেশাল বি-এড প্রার্থীরা, আর্জি মানল আদালত

নিয়োগ এবং পরীক্ষায় বসতে চেয়ে আদালতের দ্বারস্থ হন প্রায় ৫০ জন প্রার্থী। আপাতত আসন্ন টেট পরীক্ষায় বসার অনুমতি পেল স্পেশাল বি.এড'রা। এই প্রথম বি.এডদের পাশাপাশি পরীক্ষায় বসবে স্পেশাল বি.এড। প্রাথমিকে নিয়োগের আবেদনের শুনানি ৬ ডিসেম্বর।

Updated By: Nov 26, 2022, 01:32 PM IST
Special B.ED: টেট পরীক্ষায় বসছে স্পেশাল বি-এড প্রার্থীরা, আর্জি মানল আদালত
ফাইল ছবি

জি ২৪ ঘণ্টা ডিজিটাল ব্যুরো: এই প্রথম টেট-এ স্পেশাল বি-এড প্রার্থীরা। নিয়োগ এবং টেট-এ বসতে দেওয়ার আর্জি মানল আদালত। নিয়োগ এবং টেট পরীক্ষায় বসার আবেদন নিয়ে আদালতে দ্বারস্থ হয় স্পেশাল বি.এড'রা। নিয়োগ এবং পরীক্ষায় বসতে চেয়ে আদালতের দ্বারস্থ হন প্রায় ৫০ জন প্রার্থী। আপাতত আসন্ন টেট পরীক্ষায় বসার অনুমতি পেল স্পেশাল বি.এড'রা। এই প্রথম বি.এডদের পাশাপাশি পরীক্ষায় বসবে স্পেশাল বি.এড। প্রাথমিকে নিয়োগের আবেদনের শুনানি ৬ ডিসেম্বর।

আরও পড়ুন, Panchayet Election: অভিষেকের নজরে বীরভূম, পঞ্চায়েত ভোটে বাড়তি দায়িত্ব কেষ্ট-ঘনিষ্ঠ ৪ নেতাকে

প্রাথমিকের নিয়োগে অংশ নিতে চেয়ে কলকাতা হাইকোর্টে মামলা করে স্পেশাল বিএড-রা। কেন স্পেশাল বি.এডদের সুযোগ দেওয়া হবে না? কেন পারবে না টেটে অংশ নিতে? এই প্রশ্ন তুলেই বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের এজলাসে শুনানি হয়। আসন্ন প্রাথমিক পরীক্ষার ফর্ম ফিলাপের সময়সীমা ছিল ১৪ নভেম্বর। ইতোমধ্যেই আদালতে তা নিয়ে একাধিক মামলা দায়ের করা হয়েছে। এমতাবস্থায় নতুন মামলা দায়ের করে স্পেশাল বিএড-রা অর্থাৎ স্পেশাল চাইল্ডের নিয়ে ট্রেনিং প্রাপ্ত পড়ুয়ারা। কারণ ফর্ম ফিলাপে তাদের কোনও উল্লেখ করা হয়নি। 

তাদের দাবি ছিল, প্রাথমিকে নিয়োগ এবং টেট পরীক্ষা দুটি ক্ষেত্রেই তাদের অগ্রাধিকার দেওয়া হোক। কারণ তারা স্পেশাল বিএড। অনেক প্রাইমারি স্কুলে স্পেশাল স্টুডেন্ট রয়েছে তাদের জন্য স্পেশাল বি-এড শিক্ষকদের প্রয়োজন বলে তাদের দাবি। শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়, প্রাক্তন পর্ষদ সভাপতি মানিক ভট্টাচার্য এখন পুলিস হেফাজতে। এসএসসি ও টেট কেলেঙ্কারিকে অস্বস্তিতে সরকার। এসবের মধ্যেই প্রাথমিক টেটের নিয়োগপ্রক্রিয়া শুরু করছে সরকার। 

অবশেষে তাতে সিলমোহর পড়ল। টেট পরীক্ষার্থীদের সঙ্গে পরীক্ষায় বসতে পারবে স্পেশাল বি.এড-রা। প্রসঙ্গত, ৬ বছর পর ফের আগামী ১১ ডিসেম্বর হতে চলেছে টেট। তাই নিয়োগ প্রক্রিয়া স্বচ্ছ রাখতে এবার রেজাল্টের সঙ্গেই পরীক্ষার্থীর OMR শিটও দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পর্ষদ। সংশ্লিষ্ট পরীক্ষার্থী কোন প্রশ্নে কত নম্বর পেয়েছে, তার উল্লেখ থাকবে OMR শিটে। এর আগে, চাকরি দাবিতে ধর্মতলায়  ধরনায় বসেছিলেন ২০১২ ও ২০১৪ সালের টেট উত্তীর্ণরা। 

আরও পড়ুন, 'ওনার ইচ্ছে ছাড়া এই রাজ্যে গাছের পাতা নড়েনা', মুখ্যমন্ত্রীকে আক্রমণ দিলীপ ঘোষের

(Zee 24 Ghanta App দেশ, দুনিয়া, রাজ্য, কলকাতা, বিনোদন, খেলা, লাইফস্টাইল স্বাস্থ্য, প্রযুক্তির লেটেস্ট খবর পড়তে ডাউনলোড করুন Zee 24 Ghanta App)