দাদার কীর্তিতে ক্ষুব্ধ তৃণমূল, তাই কি ব্রাত্য তাপস?

দলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে তাঁর বাড়িতে দেখা করতে যায় পাল দম্পতি। কিন্তু সেখানে দেখা হয়নি। এরপরই তাপস জায়া নন্দিনী পাল রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী তথা দলের মহাসচিবকে ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করেন। কিন্তু অন্য প্রান্ত থেকে কোনও উত্তর মেলেনি।

Updated By: Feb 26, 2018, 08:50 PM IST
দাদার কীর্তিতে ক্ষুব্ধ তৃণমূল, তাই কি ব্রাত্য তাপস?

কমলিকা সেনগুপ্ত

রোজভ্যালি কাণ্ডে জামিন মিললেও দলে খুব একটা গুরুত্ব পাচ্ছেন না তাপস পাল। চলতি বছরে জানুয়ারির শেষ সপ্তাহে জামিন পেয়ে কটক থেকে কলকাতায় ফেরেন কৃষ্ণনগরের তৃণমূল সাংসদ তাপস। তারপর থেকে দলের তরফে তাঁর সঙ্গে কেউ যোগাযোগ করেননি বলে খবর।

পুলিসি হেপাজতে তাপস পাল।

এরপরই রবিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) নিজের উদ্যোগে দলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে তাঁর বাড়িতে দেখা করতে যায় পাল দম্পতি। কিন্তু সেখানে দেখা হয়নি। এরপরই তাপস জায়া নন্দিনী পাল রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী তথা দলের মহাসচিবকে ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করেন। কিন্তু অন্য প্রান্ত থেকে কোনও উত্তর মেলেনি। আর এরপরই তাপসের রাজনৈতিক ভবিষ্যত নিয়ে তৃণমূলের অন্দরে জল্পনা জমাট বাঁধতে শুরু করে।

প্রসঙ্গত, কটকে সিবিআই হেপাজতে থাকাকালীন দল সেভাবে তাঁকে গুরুত্ব দেয়নি। তাপসের সঙ্গেই সেখানে ছিলেন লোকসভায় তৃণমূলের দলনেতা সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়। সে সময় তৃণমূলের পক্ষ থেকে সুদীপের যতটা খোঁজ খবর নেওয়া হত, ততটা গুরুত্ব পেতেন না তাপস পাল। তাঁর সঙ্গে দলের এমন ব্যবহার নিয়ে বেশ কয়েকবার অভিযোগও জানিয়েছেন বাংলা ছবির এই অভিনেতা।

আরও পড়ুন- 'শ্রীদেবীর সঙ্গে বিয়ে হয়নি', আজীবন আইবুড়ো তাপসবাবু

বিভিন্ন সময়ে বেফাঁস মন্তব্য করে দলের মুখ পুড়িয়েছেন তাপস পাল। তাঁর জন্য বিব্রত হতে হয়েছে দলকে। আর এ জন্যই দলে ক্রমশ ব্রাত্য হয়ে পড়ছেন তৃণমূলের এই অভিনেতা সাংসদ, এমনটাই মনে করা হচ্ছে। আগামী নির্বাচনে তাপসের টিকিট পাওয়ার বিষয়েও সংশয় তৈরি হয়েছে বলে খবর।