যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে 'অশোক রুদ্রের উপস্থিতি অবাঞ্ছিত', সুরঞ্জন দাশ

যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়কে ঘিরে থামছে না বিতর্ক। এবার বিতর্কের কেন্দ্রে গতকাল বিশ্ববিদ্যালয়ে তৃণমূল ছাত্র পরিষদের রাজ্য সভাপতি অশোক রুদ্রের উপস্থিতি। যেভাবে অশোক রুদ্র তাঁর কাছে এসেছিলেন, সেটা আদৌ বাঞ্ছিত নয়। আজ এই মন্তব্য করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপচার্য সুরঞ্জন দাশ। গতকালই হঠাত্‍ বিশ্ববিদ্যালয়ে হাজির হন তৃণমূল ছাত্র পরিষদের রাজ্য সভাপতি অশোক রুদ্র। তাঁর সঙ্গে ছিলেন বহিরাগতরাও। সবাইকে সঙ্গে নিয়ে স্লোগান দিতে দিতে  উপাচার্যের ঘরে ঢোকেন তাঁরা। সেপ্রসঙ্গেই আজ উপাচার্যের মন্তব্য, এভাবে তাঁর সঙ্গে দেখা করতে আসাটা বাঞ্ছিত নয়। তাঁর মন্তব্য, গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে যেকেউই উপাচার্যের সঙ্গে দেখা করতে পারেন। অশোক রুদ্র জানিয়েছিলেন তিনি সৌজন্য সাক্ষাতে আসছেন। কিন্তু তিনি যেভাবে দলবল নিয়ে এসেছেন, তা মোটেই বাঞ্ছিত নয়। উপাচার্যের আজকের মন্তব্যের জেরে  নতুন করে শুরু হয়েছে বিতর্ক ।

Updated By: Feb 4, 2016, 05:35 PM IST
যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে 'অশোক রুদ্রের উপস্থিতি অবাঞ্ছিত', সুরঞ্জন দাশ

ওয়েব ডেস্ক: যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়কে ঘিরে থামছে না বিতর্ক। এবার বিতর্কের কেন্দ্রে গতকাল বিশ্ববিদ্যালয়ে তৃণমূল ছাত্র পরিষদের রাজ্য সভাপতি অশোক রুদ্রের উপস্থিতি। যেভাবে অশোক রুদ্র তাঁর কাছে এসেছিলেন, সেটা আদৌ বাঞ্ছিত নয়। আজ এই মন্তব্য করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপচার্য সুরঞ্জন দাশ। গতকালই হঠাত্‍ বিশ্ববিদ্যালয়ে হাজির হন তৃণমূল ছাত্র পরিষদের রাজ্য সভাপতি অশোক রুদ্র। তাঁর সঙ্গে ছিলেন বহিরাগতরাও। সবাইকে সঙ্গে নিয়ে স্লোগান দিতে দিতে  উপাচার্যের ঘরে ঢোকেন তাঁরা। সেপ্রসঙ্গেই আজ উপাচার্যের মন্তব্য, এভাবে তাঁর সঙ্গে দেখা করতে আসাটা বাঞ্ছিত নয়। তাঁর মন্তব্য, গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে যেকেউই উপাচার্যের সঙ্গে দেখা করতে পারেন। অশোক রুদ্র জানিয়েছিলেন তিনি সৌজন্য সাক্ষাতে আসছেন। কিন্তু তিনি যেভাবে দলবল নিয়ে এসেছেন, তা মোটেই বাঞ্ছিত নয়। উপাচার্যের আজকের মন্তব্যের জেরে  নতুন করে শুরু হয়েছে বিতর্ক ।