নারদকাণ্ডে সেমসাইড আইনজীবী কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের

নারদকাণ্ডে সেমসাইড কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের। এদিন আইনজীবী হিসাবে তাঁর সওয়াল ছিল, স্টিং কাণ্ডে যে ছবি দেখানো হচ্ছে তা ঘুষ না অনুদান খতিয়ে দেখা উচিত। আর এই যুক্তিকে হাতিয়ার করেই পাল্টা আক্রমণে  বিরোধীরা। তাদের দাবি, টাকা যে নেওয়া হয়েছিল, শাসকপক্ষের আইনজীবীই তো তা স্বীকার করে নিচ্ছেন।

Updated By: Mar 22, 2016, 08:17 PM IST
নারদকাণ্ডে সেমসাইড আইনজীবী কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের

ওয়েব ডেস্ক: নারদকাণ্ডে সেমসাইড কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের। এদিন আইনজীবী হিসাবে তাঁর সওয়াল ছিল, স্টিং কাণ্ডে যে ছবি দেখানো হচ্ছে তা ঘুষ না অনুদান খতিয়ে দেখা উচিত। আর এই যুক্তিকে হাতিয়ার করেই পাল্টা আক্রমণে  বিরোধীরা। তাদের দাবি, টাকা যে নেওয়া হয়েছিল, শাসকপক্ষের আইনজীবীই তো তা স্বীকার করে নিচ্ছেন।

নারদকাণ্ডে আদালতের সওয়াল জবাবে শাসকের অস্বস্তি বাড়ালেন আইনজীবী কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়। শুনানির শুরুতেই প্রধান বিচারপতি মঞ্জুলা চেল্লুরকে তিনি বলেন, স্টিংকাণ্ডে ভুয়ো অভিযোগ তোলা হচ্ছে। ঘুষ ও অনুদানের মধ্যে পার্থক্য আছে। সত্যি ঘটনা কী তা খতিয়ে দেখা উচিত। কল্যাণের যুক্তিকে হাতিয়ার করেই পাল্টা আক্রমণে শানিয়েছেন বিরোধীরা ।  তাঁদের দাবি, বক্তব্যের মধ্যে দিয়ে কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় স্বীকারই করে নিলেন যে টাকা নেওয়া হয়েছিল। বিরোধীদের অভিযোগ, এমন দাবি তো আগেই শোনা গেছে স্টিং কাণ্ডে অভিযুক্ত আর এক তৃণমূল সাংসদ অপরূপা পোদ্দারের বক্তব্যেও। যদিও এদিন আদালতে স্টিং কাণ্ডকে পুরোপুরি রাজনৈতিক চক্রান্ত বলেও কিছুটা পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার চেষ্টা করেন  কল্যাণ।