কলকাতা মেট্রোয় ফের আগুন আতঙ্ক, ধোঁয়ায় অসুস্থ ৩ যাত্রী

৪ নম্বর কামরার তলা থেকে ধোঁয়া বেরতে দেখা যায়। এদিন মেট্রোর যে রেকে দুর্ঘটনাটি ঘটে, সেটিও পুরনো নন-এসি রেক।

Updated By: Jan 31, 2019, 12:13 PM IST
কলকাতা মেট্রোয় ফের আগুন আতঙ্ক, ধোঁয়ায় অসুস্থ ৩ যাত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদন : ফের মেট্রোয় আগুন আতঙ্ক। কবি সুভাষগামী একটি মেট্রোয় রেকের তলা থেকে আগুনের ধোঁয়া বেরতে দেখা যায় এদিন সকালে। ধোঁয়ায় অসুস্থ হয়ে পড়েন ৩ যাত্রী।

জানা গিয়েছে, এদিন সকালে দমদম স্টেশন ছেড়ে মেট্রোটি বেরিয়ে যাওয়ার কিছু পরই বিপত্তি ঘটে। ৪ নম্বর কামরার তলা থেকে ধোঁয়া বেরতে দেখা যায়। সঙ্গে সঙ্গে আগুন আতঙ্ক গ্রাস করে যাত্রীদের। তত্ক্ষণাত্ দমদম স্টেশনের অদূরেই দাঁড় করিয়ে দেওয়া হয় মেট্রো রেকটিকে। তড়িঘড়ি যাত্রীদের ট্রেন থেকে নামিয়ে আনার কাজ শুরু হয়। তবে তার মধ্যেই ভিড়, ধোঁয়া, আতঙ্কে হুড়োহুড়িতে অসুস্থ হয়ে পড়েন ৩ যাত্রী।

উল্লেখ্য, এদিন মেট্রোর যে রেকে দুর্ঘটনাটি ঘটে, সেটিও পুরনো নন-এসি রেক। অনেকদিন আগেই এই মেট্রো রেকগুলোর জীবনকাল অতিক্রান্ত হয়ে গিয়েছে। কিন্তু পর্যাপ্ত রেক না থাকায় পুরনো রেকগুলিকেই রক্ষণাবেক্ষণ করে যাত্রী পরিষেবার কাজে ব্যবহার করা হচ্ছে। প্রসঙ্গত, কয়েকদিন আগে ময়দানে মেট্রোতেও আগুন লেগেছিল। সেক্ষেত্রেও রেকটি ছিল পুরনো।

আরও পড়ুন, বিধাননগর স্টেশনে মর্মান্তিক দুর্ঘটনায় হাত বাদ গেল যাত্রীর

মেট্রো কর্তৃপক্ষের তরফে জানা গিয়েছে, সব যাত্রীদের নামিয়ে আনার পর রেকটিকে নোয়াপাড়া কারশেডে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। মেট্রোর সিপিআরও ইন্দ্রাণী বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, ট্রেনটি স্টেশন ছেড়ে পুরোপুরি বেরনোর আগেই এক কর্মীর নজরে প্রথম পরে যে কামরার তলা থেকে ধোঁয়া বেরচ্ছে। ট্রেনটি শেষাংশ তখনও স্টেশনে থাকায়, যাত্রীদের সেখান দিয়ে নামিয়ে আনা হয়। যাত্রীদের নামিয়ে আনতেও কোনও অসুবিধা হয়নি।

সকাল ১১টা ১০ নাগাদ ঘটনাটি ঘটে। পুরনো রেকটিকে সরিয়ে সঙ্গে সঙ্গেই অন্য একটি রেক ডাউন লাইনে দেওয়া হয়। যাত্রীদের নিয়ে সেই ট্রেনটি ১১টা ১৪-তেই স্টেশন ছেড়ে বেরিয়ে যায়। ট্রেন চলাচলে কোনও ব্যাঘাত ঘটেনি।

আরও পড়ুন, স্কুটি চালানো শখ প্রেমিকার, শেখাচ্ছিল প্রেমিক, তখনই ঘটল মর্মান্তিক ঘটনা

ময়দানের পর ফের এদিন মেট্রোয় আগুন আতঙ্কের ঘটনায় নতুন করে আবার উঠে আসে পুরনো রেক চালানোর প্রসঙ্গটি। সিপিআরও ইন্দ্রাণী বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, ৪টি নতুন রেক এসে গিয়েছে। অবিলম্বে সেগুলির মাধ্যমে যাত্রী পরিষেবা শুরু হবে। তাই অচিরেই সমস্যা মিটবে।