কোকেনকাণ্ডে BJP নেতা রাকেশ সিং-র বাড়িতে পুলিস, তদন্তকারীদের 'আটকাল' ছেলে

সমনে স্থগিতাদেশ জারির আবেদন খারিজ হাইকোর্টে।

Updated By: Feb 23, 2021, 05:41 PM IST
কোকেনকাণ্ডে BJP নেতা রাকেশ সিং-র বাড়িতে পুলিস, তদন্তকারীদের 'আটকাল' ছেলে

নিজস্ব প্রতিবেদন: মামলা খারিজ হয়ে গিয়েছে হাইকোর্টে (Calcutta High Court)। কোকেন কাণ্ডে তদন্তে বিজেপি রাকেশ সিং-র বাড়িতে বিশাল পুলিসবাহিনী। তাঁদেরকে বাড়ির ভিতরে ঢুকতে বাধা দেওয়ার অভিযোগ। বাড়ির বাইরে পুলিসকর্মীদের সঙ্গে বচসা জড়িয়ে পড়লেন অভিযুক্তের ছেলে। পুলিসের বিরুদ্ধে পাল্টা হেনস্তার অভিযোগ তুলেছেন তিনি। ঘটনাকে কেন্দ্র করে তুমুল উত্তেজনা ছড়াল এলাকায়।

ভোটের মুখে কোকেন কাণ্ডে বিড়ম্বনায় গেরুয়াশিবির। দলের যুবনেত্রী পামেলা গোস্বামীকে গ্রেফতারের পর, গতকাল বিজেপি নেতা রাকেশ সিং-র বিরুদ্ধে সমন জারি করে পুলিস। এদিন বিকেল ৪-টের সময়ে তাঁকে লালবাজারে হাজিরা নির্দেশ দেওয়া হয়। এরপর গ্রেফতারির আশঙ্কায় রক্ষাকবচের আবেদন জানিয়ে হাইকোর্টে মামলা দায়ের করেন রাকেশ। কিন্তু সেই আবেদন খারিজ হয়ে যায়। বিচারপতি সব্যসাচী ভট্টাচার্যের পর্যবেক্ষণ, 'পুলিস যা করেছে, আইন মেনেই করেছে'।

আরও পড়ুন: রুজিরাকে জিজ্ঞাসাবাদ শেষ, 'শান্তিনিকেতন' থেকে বেরিয়ে গেল CBI

এদিন দুপুরে আচমকাই বিজেপি নেতা রাকেশ সিং-র আলিপুরের বাড়িতে হাজির হয় পুলিস। কিন্তু তদন্তকারীরা বাড়িতে ভিতরে ঢুকতে পারেননি।  অভিযোগ, বিজেপি নেতার পরিবারের লোকেরাই পুলিসকে বাধা দেন। দাবি করেন, বাড়ি তল্লাশি চালানোর জন্য পর্যাপ্ত নথি নেই। বাড়ির বাইরে পুলিসকর্মীদের সঙ্গে রীতিমতো বচসায় জড়িয়ে পড়েন রাকেশ সিং-র ছেলে সাহেব। এমনকী, অভিযুক্ত না পেয়ে বাড়ির রান্নার লোক-সহ ৩ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

আরও পড়ুন: এক মেট্রোতেই কালীঘাট-দক্ষিণেশ্বর দর্শন, আজ থেকে চালু নোয়াপাড়া-দক্ষিণেশ্বর মেট্রো পরিষেবা

প্রসঙ্গত, গত শুক্রবার  নিউ আলিপুরে কোকেন-সহ ধরা পড়েন বিজেপির যুব নেত্রী পামেলা গোস্বামী। গ্রেফতার করা হয় তাঁর এক ঘনিষ্ট  বন্ধুকেও। ধৃতের কাছ থেকে ১০০ গ্রাম কোকেন পাওয়া গিয়েছে। আদালতে তোলার সময়ে পামেলা বলেন, 'আমি চাই সিআইডি তদন্ত হোক। বিজেপির রাকেশ সিং-কে যেন গ্রেফতার হয়। এটা ওর চক্রান্ত। কৈলাস বিজয়বর্গীয় ঘনিষ্ঠ রাকেশ সিং যেন অ্যারেস্ট হয়। এটা ওর চক্রান্ত ছিল।' পরে এজলাসে তোলার সময়েও রাকেশের নাম শোনা যায় ধৃতের গলায়। এরপরই ওই বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে সমন জারি করে পুলিস।