'যে কোনও জায়গায় একা একা চলে যাব', প্রথমবার ই-স্কুটি চালিয়ে বললেন Mamata

'এনার্জির নাম ব্যানার্জি।' সেই বিরোধী নেত্রী থাকাকালীনই মমতাকে নিয়ে একথাই বলতেন তাঁর অনুগামীরা। সেই 'এনার্জি'ই আবার একুশের আগে। 

Updated By: Feb 25, 2021, 09:35 PM IST
'যে কোনও জায়গায় একা একা চলে যাব', প্রথমবার ই-স্কুটি চালিয়ে বললেন Mamata

নিজস্ব প্রতিবেদন: পেট্রোল, ডিজেল ও রান্নার গ্যাসের দামবৃদ্ধির প্রতিবাদে ই-স্কুটিতে অভিনব প্রতিবাদ মুখ্যমন্ত্রীর। সকালে নবান্ন গেলেন ই-স্কুটিতে। চালকের আসনে ফিরহাদ হাকিম (Firhad Hakim)। বিকেলে বাড়ির ফেরার পথেও সঙ্গী ই-স্কুটি। এবার স্কুটারের সামনের আসনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Baneree)। ই-স্কুটি ধরে রাখলেন তাঁর নিরাপত্তারক্ষীরা। পাশে হাঁটলেন ফিরহাদ হাকিম। মাঝে ই-স্কুটি চালালেনও। মমতার এই অভিনব প্রতিবাদের পর তৃণমূল কংগ্রেস বলছে, 'বাংলার এনার্জি মমতা ব্যানার্জি।'           

'এনার্জির নাম ব্যানার্জি।' সেই বিরোধী নেত্রী থাকাকালীনই মমতাকে নিয়ে একথাই বলতেন তাঁর অনুগামীরা। সেই 'এনার্জি'ই আবার একুশের আগে। পেট্রোপণ্যের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে এ দিন সকালে ই-স্কুটিতে নবান্নে গিয়েছিলেন মমতা (Mamata Banerjee)। তখন ফিরহাদ হাকিম (Firhad Hakim) যান চালাচ্ছিলেন। ফেরার পথে ই-স্কুটির 'হ্যান্ডেল' ধরলেন মমতা (Mamata Banerjee)। অপটু হাত। তাও খামতি নেই চেষ্টায়। ই-স্কুটির হাতল ধরে ধরেছিলেন নিরাপত্তারক্ষীরা। নবান্ন থেকে থেকে হুগলি ব্রিজে ওঠার মুখ পর্যন্ত ই-স্কুটি চালালেন মুখ্যমন্ত্রী। ততক্ষণ রাস্তার অন্য লেনে সার দিয়ে গাড়ির ভিড়। মুখ্যমন্ত্রীকে ক্যামেরাবন্দি করতে গাড়ি থামিয়ে রাস্তায় নেমে পড়েছেন সাধারণ মানুষ। উৎসাহ ছিল চোখে পড়ার মতো। মমতার নিরাপত্তায় আকাশে উড়েছে ড্রোন। এরপর ই-স্কুটি চালালেন ফিরহাদ হাকিম। তারপর হরিশ মুখার্জি রোডে গিয়ে ফের ই-স্কুটিতে চালক মুখ্যমন্ত্রী।

প্রথমবার ই-স্কুটি চালিয়েছেন। সে কথা নিজেই বলেছেন মমতা। তাঁর কথায়, 'পেট্রোল ও ডিজেলের ও রান্নার গ্যাসের দামবৃদ্ধির প্রতিবাদে নীরব প্রতিবাদ করলাম। আমি কিন্তু প্রথম দিন চালালাম। এখন তো খুব সহজ, যে কোনও জায়গায় চলে যাব একা একা। কে কখন খুঁজে বেড়াবে আমায় ধরবে আমায় তার ঠিক নেই।' 

তবে মমতার প্রতিবাদকে 'নাটক' হিসেবে অভিহিত করছে বিরোধীরা। সিপিএম নেতা শমীক লাহিড়ি বলেন,'রাজ্য সরকার আগে কর কমাক। স্কুটি না চালিয়ে সেটা করলেই সাধারণ মানুষ স্বস্তি পাবেন।' ই-নাটক বলে কটাক্ষ করেছেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরী। বলেন, 'পেট্রোপণ্যে এক্সাইজ ডিউটি নেয় কেন্দ্র। রাজ্য সরকার নেয় ভ্যাট। বাংলার মানুষের উপরে দিনের পর দিন ভ্যাট চাপিয়ে গিয়েছে রাজ্য সরকার। এখন ১০০টাকার কাছাকাছি পেট্রোলের দাম হওয়ায় ওঁর মনে হয়েছে ই-স্কুটিতে একটু ই-নাটক করি।' বিজেপি নেতা বাবুল সুপ্রিয়র কথায়,'সবাই প্রতিবাদের অভিনব পন্থা অবলম্বন করেন। বিজেপিও করেছে। এটা ওঁর মৌলিক অধিকার। সবাই গিমিক করতে চায়। এটা নিশ্চিতভাবে মানুষের চোখ টানবে।'

আরও পড়ুন- Mamata-র ভাষা বাংলার সংস্কৃতি নয়, TMC নেত্রীর শব্দবাণের পাল্টা Nadda-র