ভর্তির পর বাড়ির লোক ও পুলিসকে কেন জানানো হয়নি? মইদুল-মৃত্যুতে প্রশ্ন Mamata-র

'সুজন চক্রবর্তীকে সকালে ফোন করে দুঃপ্রকাশ করেছি', বললেন মমতা। 

Updated By: Feb 15, 2021, 05:49 PM IST
ভর্তির পর বাড়ির লোক ও পুলিসকে কেন জানানো হয়নি? মইদুল-মৃত্যুতে প্রশ্ন Mamata-র

নিজস্ব প্রতিবেদন: ডিওয়াইএফআই কর্মীর মৃত্যুর সঠিক কারণ জানতে তদন্ত করবে পুলিস। নবান্নে সাংবাদিক বৈঠকে জানিয়ে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায় (Mamata Banerjee)। সকালে সুজন চক্রবর্তীকে ফোন করে দুঃখপ্রকাশও করেন। একইসঙ্গে মমতা প্রশ্ন তুললেন, মইদুল ইসলাম মিদ্যা হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পরও কেন পুলিস বা বাড়ির লোককে জানানো হল না?           

নবান্ন অভিযানে পুলিসের লাঠিচার্জে গুরুতর জখম হয়েছিলেন ডিআইএফআই-র (DYFI) যুবনেতা মইদুল ইসলাম মিদ্যা। আজ, সোমবার সকালে তাঁর মৃত্যু হয়। ঘটনায় পুলিস ও রাজ্য সরকারকে কাঠগড়ায় তুলেছে বামেরা।  এ দিন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) বলেন, 'যে কোনও মৃত্যুই দুঃখজনক। সুজন চক্রবর্তীকে সকালে ফোন করে দুঃপ্রকাশ করেছি। ময়নাতদন্ত করে জানানো হবে। গরিব পরিবারের ছেলে চাকরি ও আর্থিক সাহায্যের জন্যে তৈরি আছি।'

এর পাশাপাশি মুখ্যমন্ত্রীর (Mamata Banerjee) প্রশ্ন,'৩ দিন আগে হাসপাতালে ভর্তি হল অথচ বাড়ির লোক ও পুলিসকে জানানো হয়নি? পুলিসের কাছে কোনও অভিযোগ করা হয়নি। এই ধরনের ঘটনায় স্থানীয় থানায় খবর দিতে দেওয়াই নিয়ম। বাড়ির লোকেরা বলছে, ১৩ তারিখে জানতে পেরেছি। মাঝে ২দিন কোথায় গেল?'

ঘটনার তদন্ত হবে জানিয়ে মমতা (Mamata Banerjee) বলেন,'কিডনিতে আগেও তো সমস্যা থাকতে পারে। ছেলেটির বাড়ি থেকে খবরাখবর নেওয়ার চেষ্টা করছি। তদন্ত করে দেখা হবে আদৌ সেদিনের ঘটনায় মারা গিয়েছে কিনা!'

আরও পড়ুন- পার্শ্বশিক্ষকদের 'দাবি পূরণে' Amit Shah-কে চিঠি Mukul Roy-র