close

News WrapGet Handpicked Stories from our editors directly to your mailbox

রাজ্যে ট্রাফিক আইন ভাঙলে নতুন নিয়মে চড়া জরিমানা নয়, স্পষ্ট করলেন মমতা

সংশোধিত মোটরযান আইন এরাজ্যে চালু হচ্ছে না। নবান্নে ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর কথায়, চালান দিতে ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত লাগছে। গরিব মানুষ কোথা থেকে টাকা জোগাড় করবেন? সবসময় টাকা দিয়ে সমস্যার সমাধান হয় না।

Sutapa Sen | Updated: Sep 11, 2019, 06:57 PM IST
রাজ্যে ট্রাফিক আইন ভাঙলে নতুন নিয়মে চড়া জরিমানা নয়, স্পষ্ট করলেন মমতা

নিজস্ব প্রতিবেদন: সংশোধিত মোটরযান আইন এরাজ্যে চালু হচ্ছে না। নবান্নে ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর কথায়, চালান দিতে ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত লাগছে। গরিব মানুষ কোথা থেকে টাকা জোগাড় করবেন? সবসময় টাকা দিয়ে সমস্যার সমাধান হয় না।

১ সেপ্টেম্বর থেকে দেশের বিভিন্ন রাজ্যে চালু হয়েছে নতুন মোটরযান আইনে। সংশোধিত আইনে ট্রাফিক নিয়ম ভাঙলে উশুল করা হচ্ছে মোটা অঙ্কের জরিমানা। ইতিমধ্যেই গাড়ির চেয়েও বেশি জরিমানা আদায়ের ঘটনাও এসেছে প্রকাশ্যে। চড়া জরিমানা কমানোর জন্য কেন্দ্রের কাছে আবেদনও করা হয়েছে। কিন্তু অনড় কেন্দ্রীয় পরিবহণমন্ত্রী নিতিন গডকড়ি। পশ্চিমবঙ্গে সংশোধিত মোটরযান আইন চালু করা যাবে না বলে এদিন স্পষ্ট করে দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নবান্নে তিনি বলেন, ''আমরা চালু করব না। এখানে সেফ ড্রাইভ, সেভ লাইফের মতো কর্মসূচি রয়েছে। কাজ করছে পুলিস ও স্বেচ্ছাবেসী সংস্থাগুলি। দুর্ঘটনার সংখ্যা কমে গিয়েছে। ওরা খুব ভালো কাজ করছে। আমি মোটরযান আইন এখানে এখন চালু করব না। আমার সরকার মনে করছে, সাধারণ মানুষের উপরে অতিরিক্ত বোঝা চাপবে।'' 

সংসদে মোটরযান আইনের সংশোধিত বিল পাশের সময় তৃণমূল সরব হয়েছিল বলে মনে করিয়ে দেন মমতা। তিনি বলেন,''আমরা বলেছিলাম, এটা যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামোয় হস্তক্ষেপ করছে। ওরা আমাদের কথা শোনেনি। একতরফা সিদ্ধান্ত নিয়েছে। কিছু ক্ষেত্রে চালানের দাম পড়ছে ১০ হাজার টাকা। অনেক গরিব মানুষ আছেন। কোথা থেকে টাকা আনবেন তাঁরা? টাকা দিয়ে সব সমস্যার সমাধান হয় না। মানবিক দিক দিয়েও বিবেচনা করতে হয়।''                                  

নতুন মোটর ভেহিক্যাল আইন নিয়ে অবশ্য নমনীয় হতে নারাজ কেন্দ্রীয় সড়ক ও পরিবহণমন্ত্রী। নিতিন গডকড়ি স্পষ্ট জানিয়েছেন, ভয় থাকা দরকার। ট্রাফিক নিয়মকে বুড়ো আঙুল দেখাতেন অনেকে। ট্রাফিক আইন নিয়ে মানুষ সজাগ হলে তো ভালো কথা। বলে রাখি, সংশোধিত আইনে ট্রাফিক নিয়ম ভাঙলে আগের চেয়ে অনেক টাকা বেশি জরিমানা দিতে হচ্ছে, যেমন- সিট বেল্ট লাগানো না থাকলে জরিমানা দিতে হবে ১০০০ টাকা। আগে তা ছিল ১০০ টাকা। লাল বাতি না মানলে আগে দিতে হত ১০০০ টাকা। এখন লাগবে ৫ হাজার। মদ্যপান করে গাড়ি চালালে জরিমানা ১০০০ টাকা থেকে বেড়ে হয়েছে ১০ হাজার। 

হেলমেট না থাকলে আগে জরিমানা দিতে হতো ১০০ টাকা। তা বাড়িয়ে ৫০০ টাকা করা হয়েছে। গাড়ি চালাতে গিয়ে কোনও নাবালক ধরা পড়লে কঠোর শাস্তির ব্যবস্থা রয়েছে নয়া নিয়মে। নাবালক ধরা পড়লে অভিভাবক অথবা গাড়ির মালিককে ২৫ হাজার টাকা জরিমানা দিতে হবে। একইসঙ্গে বাতিল হবে গাড়ির রেজিস্ট্রেশন। ২৫ বছর বয়স না হওয়া পর্যন্ত লাইসেন্স দেওয়া হবে না ওই নাবালককে। 

আরও পড়ুন- রাজ্যের সরকারি চাকরির নিয়োগে গরমিলের অভিযোগ, প্যানেলে সানি লিওনির নাম