সরকারের কোনও ভূমিকা নেই, পুলিস-পুরসভা দায়িত্ব এড়াতে পারে না, টিকা-কাণ্ডে Mamata

দেবাঞ্জন (Debanjan Deb) সন্ত্রাসবাদীর চেয়েও ভয়ঙ্কর বলে মনে করেন মমতা (Mamata Banerjee)।

Updated By: Jun 28, 2021, 07:43 PM IST
সরকারের কোনও ভূমিকা নেই, পুলিস-পুরসভা দায়িত্ব এড়াতে পারে না, টিকা-কাণ্ডে Mamata

নিজস্ব প্রতিবেদন: ভুয়ো টিকা-কাণ্ডে কাউকে রেয়াত নয়। নবান্নে সাংবাদিক বৈঠকে কড়া বার্তা দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (CM Mamata Banerjee)। কলকাতা পুলিস ও পুরসভা দায়িত্ব এড়িয়ে যেতে পারে না বলেও ব্যক্তিগতভাবে মনে করেন তিনি। একইসঙ্গে সাধারণ মানুষকে প্রতারকদের থেকে সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছেন।    

সাংবাদিকদের প্রশ্নে সোমবার নবান্নে মমতা (Mamata Banerjee) বলেন,'দেবাঞ্জনের নামটা বারবার বলছেন কেন? যে চোর, ডাকাত, প্রতারক হয়, তাদের নামে প্রচার করতে নেই। এই প্রতারক ধরা পড়েছে বলুন, আমি বলব। তার এত বড় সাহস, ঔদ্ধত্য, অহংকার! সে সমস্ত সরকারি নথি নকল করে প্রতারণা করেছে। সরকারের এ ব্যাপারে কোনও ভূমিকা নেই। কারণ এটা সরকার করেনি।' ভুয়ো টিকা-কাণ্ডে পুলিস ও পুরসভাকে দায়িত্বের কথাও স্মরণ করিয়ে দিয়েছেন মমতা। তিনি বলেন,'পুলিসের চোখের সামনে কে কোন অফিস চালাচ্ছে, কে কী ব্যবসা করছে, মাঝে মধ্যে সারপ্রাইজ ভিজিট করে দেখা উচিত। এক্ষেত্রে পুরসভা ও কলকাতা পুলিস দায়িত্ব এড়াতে পারে না। ব্যক্তিগতভাবে তাই মনে করি। পুলিস ও পুরসভাকে সতর্ক করা হয়েছে।'

প্রতারকদের থেকে সাধারণ মানুষকে সচেতন থাকার বার্তাও দেন মুখ্যমন্ত্রী (Mamata Banerjee)। বলেন,'মানুষকে বুঝতে হবে, অনেকে এসে বলে এই চিটফান্ডে টাকা রাখুন। সহজ, সরল মানুষ ভরসা করে টাকা জমা দেন। কিন্তু টাকাটা পাওয়া যায় না। প্রতারকরা পালিয়ে যায়। এরকম কিছু কিছু লোক আছে, দেখতে সুন্দর। তাঁরা সেজেগুজে, টিপটপ থাকে। কখনও মুখ্যমন্ত্রীর সই নকল করে। প্রধানমন্ত্রীর সই নকল করে। সরকারি লাল বাতি গাড়ি নিয়ে তো সংসদে হামলা করতে গিয়েছিল।'

দেবাঞ্জন (Debanjan Deb) সন্ত্রাসবাদীর চেয়েও ভয়ঙ্কর বলে মনে করেন মমতা (Mamata Banerjee)। ঘটনায় কঠোর পদক্ষেপের নির্দেশও দিয়েছেন। তিনি বলেন,'যারা এসব কাজ করে তাদের মানুষ বলে মনে করি না। তাদের সমাজে থাকার যৌক্তিকতা নিয়ে প্রশ্ন রয়েছে। মানুষের জীবন নিয়ে খেলে। এরা সন্ত্রাসবাদীদের থেকেও ভয়ঙ্কর। আমরা কঠোর পদক্ষেপ করেছি। সিট গঠন করা হয়েছে। আমি নিজে এব্যাপারে পুলিস কমিশনারের সঙ্গে তিন-চারবার কথা বলেছি। কাউকে রেয়াত করা হবে না। যারা তাকে সাহায্য করেছে, তাদের সঙ্গে কোনও সমঝোতা করা হবে না। কঠোর ব্যবস্থা নিতে হবে।' মুখ্যমন্ত্রী আরও বলেন,'যাঁদের ইঞ্জেকশন দেওয়া হয়েছিল, তাঁদের শরীরের উপরে নজর রাখছে স্বাস্থ্য দফতর। ভ্যাকসিন যেখান থেকে কিনেছিল, সেই জায়গায় তল্লাশি চালানো হয়েছে। তাঁদের আবার ভ্যাকসিন দেওয়া যাবে কিনা, তা দেখছে বিশেষজ্ঞ কমিটি। মিমির সঙ্গে কথা বলেছি। ওঁর গলব্লাডারে সমস্যা ছিল। আমার ধিক্কার জানানোর ভাষা নেই।'

দেবাঞ্জনের (Debanjan Deb) সঙ্গে তৃণমূলের একাধিক নেতার ছবি প্রকাশ করেছে বিজেপি। ছবি-প্রসঙ্গে মমতা (Mamata Banerjee) এ দিন বলেন,'এই ধরনের চিটারদের থেকে দূরে থাকুন। রাস্তায় যাচ্ছি সামনে দাঁড়িয়ে ছবি তুলে নেয় এই ধরনের প্রতারকা। তার মানে আমার সঙ্গে জানাশোনা আছে! ধরুন এয়ারপোর্টে যাচ্ছি সেলফি তুলে নিল। আমরা অনুমতি দিই না। দূর থেকে বসে ছবি তুলছে। ফটোশপ করে নিচ্ছে। যারাই প্রতারণা করে সব পার্টির সঙ্গে একটা করে ছবি তুলে রেখে দেয়। ছবি তুলে আমি চিনি এটা প্রচার করা ওদের কাজ। এরা ঠকবাজ। এরকম ঠকবাজ সমাজে আছে। কড়া নজর রাখতে হবে।' 

আরও পড়ুন- রাজ্যে ১৫ জুলাই পর্যন্ত বাড়ল বিধিনিষেধ, বন্ধ লোকাল, চলবে বাস, খুলবে জিম-স্যালোঁ

 (Zee 24 Ghanta App দেশ, দুনিয়া, রাজ্য, কলকাতা, বিনোদন, খেলা, লাইফস্টাইল স্বাস্থ্য, প্রযুক্তির লেটেস্ট খবর পড়তে ডাউনলোড করুন Zee 24 Ghanta App)