নাগরিকত্ব বিল পাশের পর বাংলায় এনআরসি হবে, মমতাকে নিশানা মুকুলের

এদিন এনআরসি-র প্রতিবাদে সিঁথির মোড় থেকে শ্যামবাজার পর্যন্ত পদযাত্রা করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

Updated By: Sep 12, 2019, 05:37 PM IST
নাগরিকত্ব বিল পাশের পর বাংলায় এনআরসি হবে, মমতাকে নিশানা মুকুলের

নিজস্ব প্রতিবেদন: দিল্লিতে অমিত শাহের সঙ্গে বৈঠক করে কলকাতায় ফিরলেন মুকুল রায়। শহরে নেমেই মমতার এনআরসি বিরোধী পদযাত্রাকে নিশানা করলেন বিজেপি নেতা। মুকুল রায় বলেন, ''ঘোলা জলে মাছ ধরতে গিয়ে বাংলায় মমতা অশান্তি ডেকে আনছেন।''

এদিন এনআরসি-র প্রতিবাদে সিঁথির মোড় থেকে শ্যামবাজার পর্যন্ত পদযাত্রা করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মমতা বলেন, ''অসমে ১৯ লক্ষ মানুষের মধ্যে ১২ লক্ষ হিন্দু। বাংলায় কোনওভাবেই ওরা এনআরসি চালু করতে পারবে না। আমি বেঁচে থাকতে করতে দেব না। মরে গেলেও দল করতে দেবে না। আমরা পরে চারটি প্রজন্ম তৈরি করে দিয়েছি।'' সেই প্রসঙ্গে মুকুল রায় বলেন, এটা নিয়ে কেন আপত্তি করছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়? বিশ্বের সবদেশেই রয়েছে নাগরিকপঞ্জি। ভারতীয় জনতা পার্টি বারবার বলেছে, আগে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল পাশ হবে, তারপর তৈরি হবে নাগরিকপঞ্জী। ঘোলা জলে মাছ ধরতে গিয়ে উনি বাংলায় অশান্তি ডেকে আনছেন। ''    

পুজোর মরসুমে শহরে আসছেন জেপি নাড্ডা ও অমিত শাহ। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বাংলার পুজো উদ্বোধন করবেন বলে জানিয়েছেন দিলীপ ঘোষ। মুকুল রায় বলেন,''এটা বিজেপি ও বাংলার মানুষের কাছে বড় পাওনা। জেপি নাড্ডা ও অমিতজি দু'জনেই পুজোর আগে ও পরে আসছেন। স্বাভাবিকভাবে এটা বিজেপির পক্ষে বড় ব্যাপার।''  

মুকুলের আগে এদিন দিলীপ বলেন, ''উনি থাকতে এনআরসি হবে না। আমরা সেটা চাইও না। অসমে একটা পরীক্ষা করা হয়েছে, এবার বাকি দেশে করার চেষ্টা করব। প্রায় ২ কোটি বাংলাদেশি পশ্চিমবাংলায় ঢুকেছে। তারা ছড়িয়ে পড়েছে বিভিন্ন রাজ্যে।''

আরও পড়ুন- এদেশের দুর্ভাগ্য, ওম ও গরু শুনলেই কিছু লোকের চুল খাড়া হয়ে যায়: মোদী